সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতির বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ আনলেন এক তরুণী আইনজীবী

বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত সুপ্রিমকোর্টের এক বিচরপতির বিরুদ্ধে যৌননির্যাতনের অভিযোগ আনলেন এক তরুণী আইনজীবী। সূত্রের খবর কলকাতার আইন বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই ছাত্রী ডিসেম্বরে সুপ্রিমকোর্টের অভিযুক্ত ওই বিচারপতির অধীনে শিক্ষানবিশ ছিলেন। অভিযোগ গত বছর ডিসেম্বর শিক্ষানবিশকতা করার সময়ই তিনি ওই বিচারপতির দ্বারা যৌন নির্যাতনের শিকার হন।

Updated: Nov 12, 2013, 01:33 PM IST

বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত সুপ্রিমকোর্টের এক বিচরপতির বিরুদ্ধে যৌননির্যাতনের অভিযোগ আনলেন এক তরুণী আইনজীবী। সূত্রের খবর কলকাতার আইন বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই ছাত্রী ডিসেম্বরে সুপ্রিমকোর্টের অভিযুক্ত ওই বিচারপতির অধীনে শিক্ষানবিশ ছিলেন। অভিযোগ গত বছর ডিসেম্বর শিক্ষানবিশকতা করার সময়ই তিনি ওই বিচারপতির দ্বারা যৌন নির্যাতনের শিকার হন।
ওই আইনজীবী তাঁর উপর হওয়া যৌননির্যাতনের উল্লেখ করেন একটি ব্লগে। পরে `লিগালি ইন্ডিয়া` নামের একটি ওয়েবসাইটে পুনরায় এই ঘটনার উল্লেখ করেছেন।
নিগৃহীতা তরুণী অভিযোগ করেছেন দিল্লিতে ১৬ ডিসেম্বরের গণধর্ষণ কাণ্ডে সারা দেশ যখন প্রতিবাদে উত্তাল তখন দিল্লিরই একটি হোটেলে `ঠাকুরদার বয়সী` ওই বিচারক তাঁর উপর যৌননিগ্রহ চালায়।
ঘটনার পর মেয়েটি বিষয়টি নিয়ে নিশ্চুপ থাকার কারণে নিজেকে ভীতু বলে অভিহিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন ভবিষ্যতে কোনও মেয়ে যাতে এই ধরণের নিগ্রহের শিকার না হয় তাই তিনি বর্তমানে সোচ্চার হয়েছেন।
ঘটনার পর কেন তিনি চুপ ছিলেন মেয়েটির কাছে এ কথা জানতে চাইলে তিনি জানান ঘটনার আকস্মিকতায় তিনি এতটাই হতবাক হয়ে গিয়েছিলেন যে সেই সময় কোনও প্রতিক্রিয়া জানাবারও অবস্থায় ছিলেন না তিনি।
নিজের উপর নিগ্রহের কথা প্রকাশ করে নিগৃহীতা আইনজীবী জানিয়েছেন ``আমি অন্তত চারজনকে চিনি যাঁদেরকে ওই বিচারক যৌন নিগ্রহ করেছে। তাঁদের মধ্যে একটি মেয়েতো দীর্ঘদিন ধরে ওই ব্যক্তির বিকৃত লালসার শিকার হয়ে ছিলেন।``
তবে ব্লগে নিজের বক্তব্য জানাবার সংবাদ্মাধ্যমের কাছে নতুন করে আর কিছু জানাতে চাননি অভিযোগকারী আইনজীবী।
চলতি বছরের ১৭জুলাই সুপ্রিমকোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি আলতামাস কবীরের নেতৃত্বাধীন একটি বেঞ্চ যৌন নির্যাতন বিরোধী একটি কমিটি গঠন করেছিলেন। এখন দেখার বিষয় শীর্ষ আদালতেরই এক বিচারকের বিরুদ্ধে ওঠা যৌন নির্যাতনের অভিযোগে কী পদক্ষেপ নেয় এই কমিটি।