পঞ্চায়েত পাই
  • তৃণমূল
  • বামফ্রন্ট
  • কংগ্রেস
  • অন্যান্য
details
বাংলার রায়
  • রাজ্যের কোন দুটো জেলায় পঞ্চায়েত নির্বাচন হবে না?
  • একজন ভোটার সর্বাধিক কটা ভোট দিতে পারেন?
জেলাওয়াড়ি
  • পুরুলিয়াপুরুলিয়া
  • বাঁকুড়াবাঁকুড়া
  • পশ্চিম মেদিনীপুরপশ্চিম মেদিনীপুর
  • পূর্ব মেদিনীপুরপূর্ব মেদিনীপুর
  • বর্ধমানবর্ধমান
  • হুগলিহুগলি
  • হাওড়াহাওড়া
  • উত্তর ২৪ পরগনাউত্তর ২৪ পরগনা
  • দক্ষিণ ২৪ পরগনাদক্ষিণ ২৪ পরগনা
  • মালদামালদা
  • নদীয়ানদীয়া
  • মুশির্দাবাদমুশির্দাবাদ
  • বীরভূমবীরভূম
  • উত্তর দিনাজপুরউত্তর দিনাজপুর
  • দক্ষিণ দিনাজপুরদক্ষিণ দিনাজপুর
  • কোচবিহারকোচবিহার
  • জলপাইগুড়িজলপাইগুড়ি
কেন্দ্রীয় বাহিনীকে কি ঠিকমত ব্যবহার করা হচ্ছে না?
sera-player

পঞ্চায়েত ভোট চলছে, চলছে সন্ত্রাস, চলছে গুন্ডামি। দ্বিতীয় দফার নির্বাচনে সন্ত্রাসের শিকার হলেন চারজন। পাশাপাশি বুথ দখল, ছাপ্পা ভোট, রিগিংয়ের বিস্তর অভিযোগ তো আছেই। এখানেই উঠছে প্রশ্ন। কেন্দ্রীয় বাহিনীকে কি ঠিকমত ব্যবহার করা হচ্ছে না। রাজ্য সরকার কি কেন্দ্রীয় বাহিনীকে অকেজো করে রেখেছে! নাকি ভোটে এমন হিংসা হওয়াটা স্বাভাবিক।

দাদার কীর্তি
sera-player

মুখ ফসকে যাওয়া অহেতুক কথাবর্তা (প্রসঙ্গ- পঞ্চায়েতমন্ত্রীর মন্তব্য, এইরকম কথা বলতে গেলে মুখ ফসকে দু একটা বেরিয়ে যায়) যা কান না দেওয়াই ভাল। আচ্ছা আপনি কি মনে করছেন, জানান আপনার মতামত।

শিশুর খেলা
sera-player

হিংসা, সন্ত্রাস এ বারের পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রতিটা দফাতেই একেবারে কমন ব্যাপার। কিন্তু চতুর্থ দফায় মালদায় যা ঘটল তা শুধু মর্মান্তিক বললেও কম বলা হবে। কালিয়াচকে তৃণমূল প্রার্থীর বাড়িতে বোমা ফেটে জখম হল তিনটি শিশু। আইসক্রিমের পাত্রে বোমা রেখে দেওয়া হয়েছিল। পাত্রটি নিয়ে খেলতে গিয়ে কোনওভাবে বোমা ফেটেই বিস্ফোরণ হয়।

pan-stat

মহিলাদের উপর অত্যাচার

মহিলাদের উপর অত্যাচাররাজ্যের অধিকাংশ মহিলা বলেছেন তাঁদের উপর অত্যাচার আগের থেকে কমেছে। ৬৩% মহিলার মত অত্যাচার কমেছে। ২৫% মনে করেন অত্যাচার একই রকম আছে। ১২% মহিলা মনে করেন অত্যাচার আগের থেকে বেড়েছে।

আপনার মতামত জানান

বিষয় সংখ্যালঘু উন্নয়ন

বিষয় সংখ্যালঘু উন্নয়নকেমন আছেন এ রাজ্যের সংখ্যালঘুরা? পরিবর্তনের আগে ও পরে তাঁদের অবস্থার কী কোনও উন্নতি হয়েছে? নাকি আরও খারাপ হয়েছে? নাকি রয়েছে অপরিবর্তিত? জানতে ক্লিক করুন পাশের ছবিতে। দেখে নিন এ রাজ্যে সংখ্যা লঘুদের বর্তমান অবস্থা। তাঁদের নিজের জবানবন্দীতে।

আপনার মতামত জানান

নারীদের ওপর অত্যাচার: ১ম বাংলা

নারীদের ওপর অত্যাচার: ১ম বাংলারিপোর্ট বলছে, দুহাজার বারো সালে পশ্চিমবঙ্গে মহিলাদের ওপর অত্যাচারের সংখ্যা ৩,৯৪২। সারা দেশের নিরিখে যা ১২.৬৭ শতাংশ। আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে কলকাতা শহরের অপরাধের ঘটনাও।

আপনার মতামত জানান

রাজ্যে সবচেয়ে বড় ইস্যু কোনটি

রাজ্যে সবচেয়ে বড় ইস্যু কোনটিরাজ্যের ৬০% মানুষ মনে করেন বর্তমানে রাজ্যের সব থেকে বড় ইস্যু সারদা কেলেঙ্কারি। এর পরেই রয়েছে পঞ্চায়েত ভোট। ১৪% মানুষ মনে করেন এটিই রাজ্যের সব থেকে বড় ইস্যু। এ রাজ্যের ৭% মানুষ মনে রাজনৈতিক হিংসাই বর্তমানে সর্বাধিক চর্চিত বিষয়।

আপনার মতামত জানান

সারদা কাণ্ডের পর শাসক দল সম্পর্কে রাজ্যবাসীর মতামত

সারদা কাণ্ডের পর শাসক দল সম্পর্কে রাজ্যবাসীর মতামতসারদা কাণ্ডের পর রাজ্যের ৮২% মানুষ মনে করেন তৃণমূলের অবস্থা আগের থেকে খারাপ হয়েছে। একই মত ৮৬% সারদার আমানতকারীর। একই আছে মনে করেন রাজ্যের ১৬% ও ১২% আমানতকারী। ভাল হয়েছে বলে একজনও আমানতকারী মনে করেন না।

আপনার মতামত জানান

রাজ্য সরকার কেমন কাজ করছে-সারদা কাণ্ডের আগে-পরে

রাজ্য সরকার কেমন কাজ করছে-সারদা কাণ্ডের আগে-পরেসারদা কাণ্ডের আগে ও পড়ে কেমন কাজ করছে রাজ্যের সরকার? জানুন রাজ্যবাসীর নজরে সরকার ও শাসক দলের কাজের উপর কতটা আস্থা রেখেছেন এই রাজ্যের মানুষ। জানতে ক্লিক করুন পাশের ছবিতে।

আপনার মতামত জানান

বাচ্চারা স্কুলে যায়?

বাচ্চারা স্কুলে যায়?রাজ্যের ৯৩% মানুষ মনে করেন সব বাচ্চারাই স্কুলে যায়। যেখানে মাত্র ৭% মানুষ মনে করেন রাজ্যে প্রত্যেক শিশুই স্কুলে যাওয়ার সমানাধিকার পায়ে না।

আপনার মতামত জানান

শিক্ষার মান

শিক্ষার মান৭০% মানুষ মনে করেন রাজ্যে শিক্ষার হাল আগের থেকে ভাল হয়েছে। যেখানে ১২% মানুষের মত ঠিক এর উল্টো। ১৯% মানুষের মত একই রকম আছে শিক্ষার হাল।

আপনার মতামত জানান

স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে কতটা সাহায্য হয়

স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে কতটা সাহায্য হয়রাজ্যের ৫০% মানুষ মনে করেন স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলি থেকে তাঁরা প্রচুর সাহায্য পান। ১২% মানুষের ঠিক এর বিপরীত মত। ৩৭% মানুষ মনে করেন তাঁরা মোটামুটি সাহায্য পান।

আপনার মতামত জানান

কলকারখানা হওয়াটা কতটা জরুরি

কলকারখানা হওয়াটা কতটা জরুরিরাজ্যের প্রতিটা অংশের মানুষ মনে করেন এই রাজ্যে নতুন কল কারখানা হওয়া অত্যন্ত জরুরী।

আপনার মতামত জানান
মন্তব্য