বলিউডে দেশ

Aug 15, 2013, 08:50 PM IST
বলিউডের দেশপ্রেমঅ্যাকশন, রোম্যান্স, কমেডির পাশাপাশি বলিউডের ছবিতে বারেবারে উঠে এসেছে দেশপ্রেম। আর যখনই এসেছে ভারতের জনতা তাকে স্যালুট জানিয়েছে। সেরকমই সেরা কিছু দেশপ্রেমের ছবি নিয়ে এই স্লাইড শো।
1/13

বলিউডের দেশপ্রেম
অ্যাকশন, রোম্যান্স, কমেডির পাশাপাশি বলিউডের ছবিতে বারেবারে উঠে এসেছে দেশপ্রেম। আর যখনই এসেছে ভারতের জনতা তাকে স্যালুট জানিয়েছে। সেরকমই সেরা কিছু দেশপ্রেমের ছবি নিয়ে এই স্লাইড শো।

মাদার ইন্ডিয়া- ১৯৫৭দেশ যে মা হয়, সেকথা সাধারণ মানুষের মনে যদি কোনও ছবি একেবারে গেঁথে দেয় তাহলে বলিউডের সর্বকালের অন্যতম সেরা এই সিনেমাই পেরেছে। মা আর দেশ, ও দেশ আর মা কথাটা যে সমান, মাদার ইন্ডিয়াই তার প্রামাণ্য দলিল।
2/13

মাদার ইন্ডিয়া- ১৯৫৭
দেশ যে মা হয়, সেকথা সাধারণ মানুষের মনে যদি কোনও ছবি একেবারে গেঁথে দেয় তাহলে বলিউডের সর্বকালের অন্যতম সেরা এই সিনেমাই পেরেছে। মা আর দেশ, ও দেশ আর মা কথাটা যে সমান, মাদার ইন্ডিয়াই তার প্রামাণ্য দলিল।

শহিদ- ১৯৬৫বলিউডের সর্বকালের সেরা দেশপ্রেমের ছবির নাম এলে মনোজ কুমারের শহিদের কথা হয়তো সবার আগে আসবে। ভগত্ সিংয়ের জীবনীর মাধ্যমে দেশপ্রেমকে দেখানো আর দর্শকদের মধ্যে তা ছড়িয়ে দিয়ে সেরার সেরা তালিকায় ঠাঁই করে নিয়েছেন মনোজ কুমার। স্বাধীনতার পর দেশের মানুষ যখন নিজেদের গ্রাসাচ্ছদনের তাগিদে দেশপ্রেমকে প্রায় ভুলতে বসেছিল, শহিদ মনে করিয়ে দিয়েছিল নিজের অস্তিত্ব রক্ষায় সবার আগে দেশপ্রেম মনে জাগিয়ে রাখার প্রয়োজনীয়তা।
3/13

শহিদ- ১৯৬৫
বলিউডের সর্বকালের সেরা দেশপ্রেমের ছবির নাম এলে মনোজ কুমারের শহিদের কথা হয়তো সবার আগে আসবে। ভগত্ সিংয়ের জীবনীর মাধ্যমে দেশপ্রেমকে দেখানো আর দর্শকদের মধ্যে তা ছড়িয়ে দিয়ে সেরার সেরা তালিকায় ঠাঁই করে নিয়েছেন মনোজ কুমার। স্বাধীনতার পর দেশের মানুষ যখন নিজেদের গ্রাসাচ্ছদনের তাগিদে দেশপ্রেমকে প্রায় ভুলতে বসেছিল, শহিদ মনে করিয়ে দিয়েছিল নিজের অস্তিত্ব রক্ষায় সবার আগে দেশপ্রেম মনে জাগিয়ে রাখার প্রয়োজনীয়তা।

গান্ধী-১৯৮২গান্ধীকে ইতিহাসের পাতা থেকে পর্দায় তুলে এনেছিল এই ছবি। মহাত্মা গান্ধীর জীবনী অবলম্বনে এই ছবি ভারতকে এনে দিয়েছিল আটটি অস্কার। ভারতের দেশপ্রেম, স্বাধীনতা সংগ্রাম আর গান্ধী। এই তিন উপাদান একসঙ্গে থাকলে যে কী হতে পারে তা দেখিয়েছিল গান্ধী। সঙ্গে বেন কিনসলের অভিনয়। এরপরও গান্ধীকে নিয়ে আরও প্রায় আধ ডজন ছবি হলেও এই ছবিকে ছাপিয়ে যায়নি কোনওটাই।
4/13

গান্ধী-১৯৮২
গান্ধীকে ইতিহাসের পাতা থেকে পর্দায় তুলে এনেছিল এই ছবি। মহাত্মা গান্ধীর জীবনী অবলম্বনে এই ছবি ভারতকে এনে দিয়েছিল আটটি অস্কার। ভারতের দেশপ্রেম, স্বাধীনতা সংগ্রাম আর গান্ধী। এই তিন উপাদান একসঙ্গে থাকলে যে কী হতে পারে তা দেখিয়েছিল গান্ধী। সঙ্গে বেন কিনসলের অভিনয়। এরপরও গান্ধীকে নিয়ে আরও প্রায় আধ ডজন ছবি হলেও এই ছবিকে ছাপিয়ে যায়নি কোনওটাই।

তিরঙ্গা-১৯৯৩বলিউডের সব মশলা আছে। নানা পাটেকর আছেন, রাজকুমার আছেন, প্রথম দৃশ্যেই অপহরণের নাটকও আছে। তারওপর টিপিক্যাল বলিউডি সংলাপও রয়েছে। কিন্তু বলিউডের সঙ্গে দেশের জাতীয় পতাকার তিন রং মিলিয়ে দেশপ্রেমের অনন্য নজির দেখানো হয়েছে এই সিনেমায়।
5/13

তিরঙ্গা-১৯৯৩
বলিউডের সব মশলা আছে। নানা পাটেকর আছেন, রাজকুমার আছেন, প্রথম দৃশ্যেই অপহরণের নাটকও আছে। তারওপর টিপিক্যাল বলিউডি সংলাপও রয়েছে। কিন্তু বলিউডের সঙ্গে দেশের জাতীয় পতাকার তিন রং মিলিয়ে দেশপ্রেমের অনন্য নজির দেখানো হয়েছে এই সিনেমায়।

বর্ডার-১৯৯৭দেশপ্রেম ঠেলে দেয় মৃত্যুর মুখে। থেকে যায় ভালবাসার পিছুটান। কিন্তু কোনওভাবেই ঠাঁই পায় না দুর্বলতা। প্রতিজ্ঞা আর কর্তব্যের সামনে ভালবাসা কাঁদলেও অস্তিত্ব হারায় না..বর্ডার দেখিয়েছিল সেটাই।
6/13

বর্ডার-১৯৯৭
দেশপ্রেম ঠেলে দেয় মৃত্যুর মুখে। থেকে যায় ভালবাসার পিছুটান। কিন্তু কোনওভাবেই ঠাঁই পায় না দুর্বলতা। প্রতিজ্ঞা আর কর্তব্যের সামনে ভালবাসা কাঁদলেও অস্তিত্ব হারায় না..বর্ডার দেখিয়েছিল সেটাই।

সরফরোশ-১৯৯৯সন্ত্রাসবাদীদের জন্ম, মৃত্যু কোথায়, কী পোশাকেই বা তাঁরা থাকেন, এই প্রশ্নের সঠিক জবাব সবাই হাতড়ে বেড়ায়। হাতড়ে বেড়াতে হয়েছিল পুলিসের চরিত্রে অভিনয় করা আমির খানকেও। দেশকে বাঁচানোর লড়াইয়ে নেমে এক পুরুষের জীবন মরণের লড়াইয়ে নামা এক পুলিস অফিসারের কাহিনি এই ছবি।
7/13

সরফরোশ-১৯৯৯
সন্ত্রাসবাদীদের জন্ম, মৃত্যু কোথায়, কী পোশাকেই বা তাঁরা থাকেন, এই প্রশ্নের সঠিক জবাব সবাই হাতড়ে বেড়ায়। হাতড়ে বেড়াতে হয়েছিল পুলিসের চরিত্রে অভিনয় করা আমির খানকেও। দেশকে বাঁচানোর লড়াইয়ে নেমে এক পুরুষের জীবন মরণের লড়াইয়ে নামা এক পুলিস অফিসারের কাহিনি এই ছবি।

গদর- ২০০১দেশভাগ, হিন্দু-মুসলমান সংঘাত। দেশের ইতিহাসের পাতায় দুটি রক্তাক্ত অধ্যায়। কিন্তু রক্তঝরা সেই ইতিহাসের মাধেও বেঁচে থাকে প্রেম। খুন, ধর্ষণের মধ্যেও শ্বাস নেয় মনুষ্যত্ব, বেঁচে থাকে আশা...সেই চিরন্তন সত্যই আবারও পর্দায় তুলে ধরেছিল গদর।
8/13

গদর- ২০০১
দেশভাগ, হিন্দু-মুসলমান সংঘাত। দেশের ইতিহাসের পাতায় দুটি রক্তাক্ত অধ্যায়। কিন্তু রক্তঝরা সেই ইতিহাসের মাধেও বেঁচে থাকে প্রেম। খুন, ধর্ষণের মধ্যেও শ্বাস নেয় মনুষ্যত্ব, বেঁচে থাকে আশা...সেই চিরন্তন সত্যই আবারও পর্দায় তুলে ধরেছিল গদর।

লগন- ২০০১জনপ্রিয়তার নিরিখে লগনের ধারেকাছেও আসতে পারবে না আর কোনও দেশপ্রেমের ছবি। দেশ আর ক্রিকেট, এইদুটোই যে ভারতবাসীর মূল আবেগ তা আরও একবার বুঝিয়েছিল লগন। এই দুটোর মিশেল যে ছবিতে কী করতে পারে লগন দেখার পর তা আর আলাদা করে ব্যাখ্যার অপেক্ষা রাখে না...
9/13

লগন- ২০০১
জনপ্রিয়তার নিরিখে লগনের ধারেকাছেও আসতে পারবে না আর কোনও দেশপ্রেমের ছবি। দেশ আর ক্রিকেট, এইদুটোই যে ভারতবাসীর মূল আবেগ তা আরও একবার বুঝিয়েছিল লগন। এই দুটোর মিশেল যে ছবিতে কী করতে পারে লগন দেখার পর তা আর আলাদা করে ব্যাখ্যার অপেক্ষা রাখে না...

দ্য লেজেন্ড অফ ভগত্ সিং-২০০২ভগত্ সিংয়ের জীবনী নিয়ে ছবির মূল ইউএসপি ছিল অজয় দেবগনের অভিনয়। দেশপ্রেম পরিবেশনের অসাধারণ আঙ্গিক দেখিয়েছিল এই ছবি। একই সঙ্গে মুক্তি পেয়েছিল ভগত্ সিংকে নিয়ে আরও দুটি ছবি। কিন্তু এই ছবির কাছে দাঁড়াতে পারেনি কোনওটাই।
10/13

দ্য লেজেন্ড অফ ভগত্ সিং-২০০২
ভগত্ সিংয়ের জীবনী নিয়ে ছবির মূল ইউএসপি ছিল অজয় দেবগনের অভিনয়। দেশপ্রেম পরিবেশনের অসাধারণ আঙ্গিক দেখিয়েছিল এই ছবি। একই সঙ্গে মুক্তি পেয়েছিল ভগত্ সিংকে নিয়ে আরও দুটি ছবি। কিন্তু এই ছবির কাছে দাঁড়াতে পারেনি কোনওটাই।

লক্ষ্য-২০০৪প্রবাসী ভারতীয় বৈজ্ঞানিকের দেশে ফেরার গল্পো। শিকড় খোঁজার মাধ্যমেই জেগে ওঠে দেশপ্রেম। চিনে নিতে পারেন স্বদেশকে।
11/13

লক্ষ্য-২০০৪
প্রবাসী ভারতীয় বৈজ্ঞানিকের দেশে ফেরার গল্পো। শিকড় খোঁজার মাধ্যমেই জেগে ওঠে দেশপ্রেম। চিনে নিতে পারেন স্বদেশকে।

রং দে বসন্তী-২০০৬রং দে বসন্তী- ২০০৬কলেজের উদ্দাম জীবন পাল্টে দেয় এক বিদেশির ডায়রি। চরিত্রে অভিনয় করতে করতে জেগে ওঠে ভিতরের আগুন। আধুনিক ভারতের দুর্নীতির বিরুদ্ধে, দেশের জন্য প্রাণ দেওয়া সৈনিক বন্ধুর মৃত্যুর প্রতিবাদ করতে শেষপর্যন্ত কলজের সেই তরতাজা তরুণরাই শহিদ হয়।
12/13

রং দে বসন্তী-২০০৬
রং দে বসন্তী- ২০০৬

কলেজের উদ্দাম জীবন পাল্টে দেয় এক বিদেশির ডায়রি। চরিত্রে অভিনয় করতে করতে জেগে ওঠে ভিতরের আগুন। আধুনিক ভারতের দুর্নীতির বিরুদ্ধে, দেশের জন্য প্রাণ দেওয়া সৈনিক বন্ধুর মৃত্যুর প্রতিবাদ করতে শেষপর্যন্ত কলজের সেই তরতাজা তরুণরাই শহিদ হয়।

চিটাগং-২০১২চিটাগং-২০১২এখনও পর্যন্ত ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের সর্বশেষ বলিউডি দলিল। চট্টগ্রাম অস্ত্রাগার লুন্ঠন, মাস্টারদা সূর্য সেনের লড়াই...এই ছবি মনে করিয়ে দেয় অবিভক্ত ভারতকে। দেশ যতটা এপারে...ততটাই ওপারেও।
13/13

চিটাগং-২০১২
চিটাগং-২০১২

এখনও পর্যন্ত ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের সর্বশেষ বলিউডি দলিল। চট্টগ্রাম অস্ত্রাগার লুন্ঠন, মাস্টারদা সূর্য সেনের লড়াই...এই ছবি মনে করিয়ে দেয় অবিভক্ত ভারতকে। দেশ যতটা এপারে...ততটাই ওপারেও।