মোহনবাগানকে হারিয়ে আই লিগ এখন সুভাষ ভোমিকের পকেটে

Last Updated: Sunday, April 21, 2013 - 18:07

চার্চিল ব্রাদার্স (২) মোহনবাগান (০)
 মোহনবাগানকে হারিয়ে আই লিগ খেতাব প্রায় নিশ্চিত করে ফেলল চার্চিল ব্রাদার্স। বাকি দুম্যাচ থেকে দুপয়েন্ট পেলেই দেশের সেরা ক্লাবের তকমা পেয়ে যাবে গোয়ার দলটি। আই লিগের সুপার সানডেতে গোটা দেশের ফুটবলমহলের চোখ ছিল কল্যাণীর হাইপ্রোফাইল ম্যাচের দিকে। ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরাও তাকিয়ে ছিলেন ওডাফা-টোলগেদের দিকে। কিন্তু লিগ শীর্ষে থাকা চার্চিলের বিরুদ্ধে হতাশ করল দুরন্ত ফর্মে থাকা মোহনবাগান।
আই লিগে পয়েন্ট তালিকায় সবার ধরাছোঁয়ার বাইরে যেতে হলে চার্চিল ব্রাদার্সের চাই আর দু পয়েন্ট। সুভাষের দলের বাকি এখনও দুটো ম্যাচ। তার মধ্যে একটা এয়ার ইন্ডিয়া আর একটা মোহনবাগানের বিরুদ্ধে।
প্রথমার্ধে হেনরির করা জোড়া গোলে করিমের দলকে হারিয়ে দিল সুভাষ ভৌমিকের দল।প্রথমার্ধে দুরন্ত ফুটবল খেলে চার্চিল। হেনরি আর সুনীল ছেত্রীর জুটিকে আটকাতে কার্যত নাস্তানাবুদ হতে হয় ইচেবিহীন মোহনবাগান ডিফেন্সকে।
সুনীলের পাস থেকেই প্রথমে চার্চিলকে এগিয়ে দেন হেনরি। কিছুক্ষণ পর মোহনবাগান ডিফেন্সের ভুলের সুযোগ থেকে ব্যবধান বাড়ান চার্চিলের এই তারকা স্ট্রাইকার।
বিরতির ঠিক আগে বালাল আরেজুর হেড দুরন্ত সেভ না করলে প্রথমার্ধেই তিন-শূন্য ব্যবধানে পিছিয়ে পরত মোহনবাগান। দ্বিতীয়ার্ধে মরিয়া হয়ে ঝাঁপান ওডাফা-টোলগেরা। আক্রমণে চাপ বাড়ালেও বিপক্ষের গোলমুখ খুলতে পারেনি মোহনবাগান। ওডাফার একটি শট গোললাইন সেভ করেন ডেনজিল ফ্র্যাঙ্কো। স্নেহাশিস আর জুয়েলকে নামিয়ে একটা চেষ্টা করেছিলেন করিম।
কিন্তু দুরন্ত খেলে চার্চিলের ডিফেন্স।চার্চিলের গোলের নীচে অনবদ্য খেলেন অভিজ্ঞ সন্দীপ নন্দীও। গোয়ায় গিয়ে সালগাঁওকরের কাছে হারের পর আই লিগে এই প্রথম হারল মোহনবাগান। অন্যদিকে এই জয়ের ফলে দ্বিতীয়স্থানে থাকা ইস্টবেঙ্গলের থেকে এক ম্যাচ বেশি খেলে আট পয়েন্টে এগিয়ে গেল চার্চিল।



First Published: Sunday, April 21, 2013 - 18:20


comments powered by Disqus