নজির গড়ে শেষ ষোলোয় ইস্টবেঙ্গল

বিদেশের মাটিতে অনন্য নজির গড়ল ইস্টবেঙ্গল। প্রথম ভারতীয় দল হিসাবে এএফসি কাপে পঞ্চাশ গোল করার নজির গড়ল তারা। মঙ্গলবার সেলাঙ্গুরের বিরুদ্ধে লালরিন ডিকা গোল করার সঙ্গে সঙ্গেই এই অনন্য নজির গড়ে ট্রেভর মরগ্যানের দল। সেলাঙ্গুর ম্যাচের আগে এএফসি কাপে ইস্টবেঙ্গলের গোলসংখ্যা ছিল ৪৮। এদিন আরও দুটি গোল করে তারা। এর আগে প্রথম ভারতীয় ক্লাব হিসাবে এএফসি আয়োজিত সব টুর্নামেন্ট মিলিয়ে একশো গোল করারও নজির গড়েছিল ইস্টবেঙ্গল।

Updated: Apr 23, 2013, 09:22 PM IST

ইস্টবেঙ্গল (২) সেলাঙ্গুর (২)
বিদেশের মাটিতে অনন্য নজির গড়ল ইস্টবেঙ্গল। প্রথম ভারতীয় দল হিসাবে এএফসি কাপে পঞ্চাশ গোল করার নজির গড়ল তারা। মঙ্গলবার সেলাঙ্গুরের বিরুদ্ধে লালরিন ডিকা গোল করার সঙ্গে সঙ্গেই এই অনন্য নজির গড়ে ট্রেভর মরগ্যানের দল। সেলাঙ্গুর ম্যাচের আগে এএফসি কাপে ইস্টবেঙ্গলের গোলসংখ্যা ছিল ৪৮। এদিন আরও দুটি গোল করে তারা। এর আগে প্রথম ভারতীয় ক্লাব হিসাবে এএফসি আয়োজিত সব টুর্নামেন্ট মিলিয়ে একশো গোল করারও নজির গড়েছিল ইস্টবেঙ্গল।
এএফসি কাপের প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে গেল ইস্টবেঙ্গল। মালয়েশিয়ার শাহ আলম স্টেডিয়ামে সেলাঙ্গুরের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করল মরগ্যানের দল। এক সময় দুই গোলে এগিয়ে থেকেও শেষ পর্যন্ত ম্যাচ ড্র করেন মেহতাবরা। ম্যাচের ২৩ মিনিটেই গোল করে ইস্টবেঙ্গলকে এগিয়ে দেন পেন। চিড্ডির পাস থেকে সেলাঙ্গুর ডিফেন্সের ভুল থেকে গোল করে যান ইস্টবেঙ্গলের নাইজেরীয় মিডফিল্ডার।
প্রথমার্ধের মত দ্বিতীয়ার্ধেও ইস্টবেঙ্গলের দাপট ছিল বেশি। খেলার ৫৪ মিনিটে লাল-হলুদের হয়ে ব্যবধান বাড়ান ডিকা। সেলাঙ্গুরের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠেও গোল করেছিলেন লাল-হলুদের এই মিডফিল্ডার। দুগোলে এগিয়ে থাকার অ্যাডভান্টেজ অবশ্য কাজে লাগাতে পারেনি মরগ্যানের দল। ম্যাচের ৮৯ মিনিটে আব্দুলের গোলে ব্যবধান কমায় মালয়েশিয়ার দলটি। খেলার একেবারে শেষ পর্বে গোল হজম করে বিদেশের মাটিতে পরপর দু ম্যাচ জেতার সুযোগ হারাতে হয় ইস্টবেঙ্গলকে। ইনজুরি টাইমে মালয়েশিয়ার দলটিকে সমতায় ফেরান আব্দুল লতিফ। সেলাঙ্গুরের সঙ্গে ড্র করলেও পাঁচ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট পেয়ে গ্রুপে শীর্ষেই থাকল ইস্টবেঙ্গল।