মুম্বইয়ে কাল প্রত্যাবর্তনের লড়াইয়ে মরগ্যানরা

মাঠে গত পাঁচটা ম্যাচের মধ্যে তিনটেতে হেরে আই লিগের চ্যাম্পিয়নশিপের লড়াইটা কঠিন করে ফেলেছে ইস্টবেঙ্গল। কঠিন পরিস্থিতির মধ্যেই রবিবার মুম্বই এফ সি-র মুখোমুখি হচ্ছে মরগ্যান ব্রিগেড। পুণেতে ইয়াকুবুদের বিরুদ্ধে হারতে হয়েছিল মেহতাবদের। রবিবার তাই বদলার লড়াই লাল-হলুদ ব্রিগেডের সামনে। মরগ্যান বলছেন,রবিবার না জিততে পারলে আই লিগ জয়ের স্বপ্ন কার্যত শেষ হয়ে যাবে তাদের।

Updated: Jan 12, 2013, 10:31 PM IST

মাঠে গত পাঁচটা ম্যাচের মধ্যে তিনটেতে হেরে আই লিগের চ্যাম্পিয়নশিপের লড়াইটা কঠিন করে ফেলেছে ইস্টবেঙ্গল। কঠিন পরিস্থিতির মধ্যেই রবিবার মুম্বই এফ সি-র মুখোমুখি হচ্ছে মরগ্যান ব্রিগেড। পুণেতে ইয়াকুবুদের বিরুদ্ধে হারতে হয়েছিল মেহতাবদের। রবিবার তাই বদলার লড়াই লাল-হলুদ ব্রিগেডের সামনে। মরগ্যান বলছেন,রবিবার না জিততে পারলে আই লিগ জয়ের স্বপ্ন কার্যত শেষ হয়ে যাবে তাদের।
চোটের জন্য খেলতে পারবেন না দলের দুই নির্ভরযোগ্য মিডফিল্ডার সঞ্জু আর খাবরা। শুরু থেকেই খেলতে পারেন ডিকা। ওএনজিসি ম্যাচে একাধিক সুযোগ নষ্টের খেসারত দিতে হয়েছিল মরগ্যানের দলকে।তাই কল্যাণীতে শুরুতেই গোল চাইছেন লাল-হলুদ কোচ।
ইস্টবেঙ্গলের হয়ে খেলতে কলকাতায় চলে এলেন অসি স্ট্রাইকার অ্যান্ড্রু বোরিসিচ। বোরিসিচের আগমনে উচ্ছ্বসিত লাল-হলুদ শিবির। কোচ মরগ্যানও মানছেন,আই লিগের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে বোরিসিচ এসে যাওয়ার তার হাতে বিকল্প ফুটবলারের সংখ্যা বাড়বে। তাছাড়া চিড্ডির উপর থেকেও চাপ কমবে। বোরিসিচ নিজেও লাল-হলুদ জার্সি গায়ে মাঠে নামার জন্য মুখিয়ে আছেন। উনিশ তারিখ লিগ শীর্ষে থাকা চার্চিলের বিরুদ্ধে মাঠে নামতে চান তিনি।
আই লিগের শুরুটা দুরন্ত করেও,শেষপর্যন্ত রানার্স হয়েই সন্তুষ্ট থাকা। গত দুবছরে এটাই ছিল আই লিগে ইস্টবেঙ্গলের পারফরম্যান্স। এবারও আই লিগের শুরুটা দুরন্ত করেছিল লাল-হলুদ শিবির।কিন্তু হঠাত করেই খেই হারিয়ে ফেলেন মেহতাবরা। আই লিগে গত পাঁচটা ম্যাচের মধ্যে তিনটেই হারতে হয়েছে লাল-হলুদ শিবিরকে।দলের ছন্দপতনে চিন্তিত কর্তারাও।কিন্তু কেন এমন হচ্ছে? দলের সিনিয়র ফুটববলার মেহতাব হোসেন বলছেন, ক্লান্তির জন্যই তাদের খেলায় ধারাবাহিকতার অভাব ঘটছে।
আই লিগের শুরু থেকেই দুর্ভেদ্য ছিল লাল-হলুদ ডিফেন্স। ওপারা-অর্ণব জুটিকে ভাঙা রীতিমত চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠেছিল বিপক্ষ স্ট্রাইকারদের সামনে। কিন্তু গত কয়েকটা ম্যাচে বেশ কয়েকটি গোলহজম করতে হয়েছে লাল-হলুদ শিবিরকে।একে অবশ্য ডিফেন্সের ব্যর্থতা মানতে নারাজ মেহতাব।তার মতে,ক্ষণিকের মনোসংযোগের অভাবেই গোল হজম করতে হচ্ছে তাদের।