শ্রীলঙ্কায় সোশ্যাল মিডিয়ায় নিষেধাজ্ঞা, বিপাকে ভারতীয় দল

শ্রীলঙ্কার টেলিকম মন্ত্রী দেশবাসীর কাছে আবেদন করেছেন, "নিজেদের স্মার্টফোনকে দূরে সরিয়ে রাখুন। ঘৃণা বর্জন করে নতুন শ্রীলঙ্কা গড়তে সাহায্য করুন। এতেই সকলের মঙ্গল।" 

Updated: Mar 8, 2018, 12:05 PM IST
শ্রীলঙ্কায় সোশ্যাল মিডিয়ায় নিষেধাজ্ঞা, বিপাকে ভারতীয় দল

নিজস্ব প্রতিবেদন: বৌদ্ধ-মুসলিমদের মধ্যে সংঘর্ষ, ক্যান্ডিতে ১০ দিনের জরুরি অবস্থা জারি করেছে শ্রীলঙ্কার সরকার। মঙ্গলবারের এই ঘোষণার পর ৪৮ ঘন্টাও কাটল না, এবার গোটা দেশেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করল শ্রীলঙ্কা। সরকারের তরফে সে দেশের সমস্ত টেলিকম নেটওয়ার্ক সংস্থাগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, যাতে আগামী তিন দিন ফেসবুক কলিং বন্ধ করে দেওয়া হয়। 

খেলা বিষয়ক আরও খবর- মহিলা ক্রিকেটারদের বেতন বাড়ল আড়াই গুণ

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, শ্রীলঙ্কা সরকারের এই নির্দেশিকার কারণেই বিপাকে পড়েছে ভারতীয় দল। 'টেকস্যাভি' মেন ইন ব্লুদের গোটা ভার্চুয়াল সোশ্যাল লাইফই না কি এখন থেমে গেছে। হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম কোনও মাধ্যমেই আর প্রত্যক্ষভাবে অংশগ্রহন করতে পারছেন না রোহিত অ্যান্ড কোং। 

আরও পড়ুন- 'সেক্স স্ক্যান্ডেল' প্রকাশ্যে এনে শামিকে 'আসামী'র কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন স্ত্রী হাসিন

শ্রীলঙ্কা সরকারের দাবি, ক্যান্ডি-সহ গোটা দেশেই মুসলিমদের বিরুদ্ধে হিংসা ছড়াতে ব্যবহার করা হচ্ছে ফেসবুক কলিং। এই জরুরি অবস্থায় হিংসাকে প্রতিহত করতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

আরও পড়ুন- ভাগ্নিকে বিয়ে করতে না পেরে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন শামি!

একেই নিদহাস ট্রফির শুরটা ভাল হয়নি শাস্ত্রী শিবিরের। এরই মধ্যে নেট দুনিয়া থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে আরও 'হতাশ' দলের নবাগতরা। দলের এক সদস্য দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-কে জানিয়েছেন, হোয়াটসঅ্যাপ-এ টেক্সট এলেও 'রিপ্লাই' করা যাচ্ছে না। পরে পরিস্থিতি কিছুটা ভাল হলেও তা একেবারে স্বাভাবিক হয়নি। 

খেলা বিষয়ক আরও খবর- বেতনের মার্কশিটে A+ বিরাট-রোহিত, মাহি রইল মাহিতেই

শ্রীলঙ্কার টেলিকম মন্ত্রী দেশবাসীর কাছে আবেদন করেছেন, "নিজেদের স্মার্টফোনকে দূরে সরিয়ে রাখুন। ঘৃণা বর্জন করে নতুন শ্রীলঙ্কা গড়তে সাহায্য করুন। এতেই সকলের মঙ্গল।"