দীর্ঘদিন বাদে বড় জয়ের স্বাদ পেলেন ধোনি

অনেকদিন পর ভারতীয় ক্রিকেটে বড় ব্যবধানে জয় এল। কোচিতে ইংল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে একদিকে সিরিজে সমতায় ফিরল ভারত। অন্যদিকে ১২৭ রানের বড় জয়ে ধোনির সংসারে ফিরে এল স্বস্তির বাতাস। একসঙ্গে ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং তিনটে বিভাগেই `ক্লিক` করে জয় পাওয়াটা ধোনির দল প্রায় ভুলেই গেছিল। অবশেষে সেটা এল কোচির নেহেরু স্টেডিয়ামে। এই স্বস্তির জয়ের পিছনে বড় ভূমিকা নিলেন এমন একজন যিনি ভারতীয় ক্রিকেটে সবচেয়ে বড় সমালোচনার পাত্র হয়েছিলেন। ধোনির প্রিয় পাত্র বলেই দলে আছেন বলে যাকে নিয়ে হাসিঠাট্টা করা হচ্ছিল।

Updated: Jan 15, 2013, 08:19 PM IST

ভারত-- ২৮৫/৬, ইংল্যান্ড-- ১৫৮ (৩৬ ওভারে)
অনেকদিন পর ভারতীয় ক্রিকেটে বড় ব্যবধানে জয় এল। কোচিতে ইংল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে একদিকে সিরিজে সমতায় ফিরল ভারত। অন্যদিকে ১২৭ রানের বড় জয়ে ধোনির সংসারে ফিরে এল স্বস্তির বাতাস। একসঙ্গে ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং তিনটে বিভাগেই `ক্লিক` করে জয় পাওয়াটা ধোনির দল প্রায় ভুলেই গেছিল। অবশেষে সেটা এল কোচির নেহেরু স্টেডিয়ামে। এই স্বস্তির জয়ের পিছনে বড় ভূমিকা নিলেন এমন একজন যিনি ভারতীয় ক্রিকেটে সবচেয়ে বড় সমালোচনার পাত্র হয়েছিলেন। ধোনির প্রিয় পাত্র বলেই দলে আছেন বলে যাকে নিয়ে হাসিঠাট্টা করা হচ্ছিল।
সেই রবীন্দ্র জাদেজার ব্যাটে বলে দক্ষতাই ফারাক গড়ে দিল। ব্যাট হাতে ৩৭ বলে অপরাজিত ৬১ রান করার পর বল হাতেও তুলে নিলেন দুটি উইকেট। আর হ্যাঁ জয়ের ভিতটা গড়েছিলেন ধোনিই। দল যখন হারের গ্রহে, ধোনির ব্যাট তখন প্রত্যাঘাতের সুরে বাজছে। আজও ঠিক তাই হল। ধোনি যখন নামলেন, তখন দলের অর্ধেক ব্যাটসম্যান প্যাভিলিয়নে ফিরে গেছেন চাপটা ক্রমশ বাড়ছিল। কিন্তু ইদানিং ধোনি হারটা এত বেশি দেখেছেন যে চাপটাও যেন কমে গেছে। আজ সেটাতে লাভই হল। ধোনির ব্যাট থেকে এল ঝকঝকে ৭১ রান।
ধোনি-জাদেজা ছাড়া ভুবনেশ্বর কুমারও বেশ আশা জাগালেন। ভারতীয় বোলিংকে দেখলে এখন কেমন যেন দুর্ভিক্ষের দশা মনে হয়, এমন একটা কটাক্ষ করেছেন জেফ্রি বয়কট। বয়কটের এরকম মন্তব্যের পাল্টা দিতে হলে ভুবনেশ্বরদের জাগতে হবে। আজ সেটা করে দেখালেন। ভুবনেশ্বর নিলেন ১০ ওভারে ২৯ রান দিয়ে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট। সামি আহমেদ নিলেন ৪ ওভারে ২৪ রানে একটি উইকেট। আজ ইংল্যান্ডের `ব্যাড বে ইন অফিস`-এ কিছুটা লড়লেন রুট (৩৬), সমিত প্যাটেল (৩০)। বাকিরা কেউ বলার মত কিছুই করতে পারলেন না। ১১০ থেকে ১৩৫ রানের মধ্যে কুকবাহিনীর ৪টি উইকেট পড়ে যায়। তার আগে ইনিংসের শুরুতেই ৭৩ রানের মধ্যে পড়ে ৪টি উইকেট।
ম্যাচের সেরা-- রবীন্দ্র জাদেজা

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close