ইডেনে ভরাডুবি ভারতের, সিরিজ খুইয়ে অধিনায়ক ধোনির ব্যর্থতার বৃত্ত সম্পূর্ণ

ইডেনে ভরাডুবি ভারতের, সিরিজ খুইয়ে অধিনায়ক ধোনির ব্যর্থতার বৃত্ত সম্পূর্ণ

ইডেনে ভরাডুবি ভারতের, সিরিজ খুইয়ে অধিনায়ক ধোনির ব্যর্থতার বৃত্ত সম্পূর্ণপাকিস্তান-- ২৫০। ভারত-- ১৬৫ (৪৮ ওভারে)
ম্যাচটা শেষ হওয়ার বেশ কিছু সময় আগেই বেরিয়ে এলেন বছর ৫০-এর সেই মানুষটা। তখন ভারতের ৬ উইকেট পড়ে গেছে। এত টাকা টিকিট কেটে আগে বেরিয়ে এলেন কেন? প্রশ্নটা করতেই শুধু হাসলেন। সেই লোকটার হাসিটাই এখন ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ে আলোচনার সেরা ছবি হতে পারে।

ব্যর্থতার একটা পর্যায় আসে যখন মানুষ রাগ করে। সেই ব্যর্থতাটা আরও একটু বাড়লে রাগটা ক্ষোভে পরিণত হয়। আর সেই ব্যর্থতাটা যখন চরমে যায় তখন বোধহয় সেই লোকটার মতই হাসি পায়। ইডেন গার্ডেন্সে লক্ষ্মীবারে ভারতের অলক্ষ্মীর মত হারটা একসঙ্গে অনেক কিছু ঘটিয়ে ফেলল। সেগুলোকে একসঙ্গে রাখলে দাঁড়ায়-- ১) দেশের মাটিতে পাঁচ বছর পর দ্বিদেশীয় সিরিজ খেলতে নেমে সিরিজ হারতে হল। ২) ঘরের মাঠে ভারত বাঘ এই প্রবাদবাক্যটা ধুলোয় মিশে গেল। ইংল্যান্ডের কাছে টেস্ট সিরিজ হারের পর পাকিস্তানের কাছে সিরিজ হার। ৩) ধোনি হটাও আন্দোলনটা নতুন মাত্রা পেল। ব্যাটসম্যান ধোনির সফলতাও যার কাছে ঢাকা পড়ে যাচ্ছে। ৪) ভারতের গর্বের ব্যাটিং লাইনআপ নিয়ে ভাবনাচিন্তার সময় এসেছে। ৫) এবারেও ইডেনে পাকিস্তানকে হারানো গেল না। কলকাতায় অপরাজিত তকমাটা ধরে রাখল পাকিস্তান।

এবার একনজরে দেখে নেওয়া যাক আজকের ইডেন ম্যাচের ঝলক---

ম্যাচ শুরুর আগে--

আকাশের মুখ ভার। তবু উত্‍সাহে ভাটা নেই।

নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে ইডেন গার্ডেন্স চত্ত্বর। ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তার বেড়াজাল টপকে দর্শকরা স্টেডিয়ামে ঢুকছেন।

পাকিস্তানের ইনিংস--
১) টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। ভারতীয় দলে একটাই পরিবর্তন রোহিতের বদলে রবীন্দ্র জাদেজা। শুরুটা দারুণ করলেন দুই পাক ওপেনার হাফিজ-জামশেদ।
২) রেকর্ড রানের ওপেনিং পার্টনারশিপ গড়লেন হাফিজ-জামসেদ। প্রথম উইকেটে দুই পাক ওপেনার যোগ করলেন ১৪১ রান।

৩) দুরন্ত শতরান করলেন ওপেনার নাসির জামসেদ। হাফিজ করেন ৭৬ রান।

৪) পাকিস্তানের মিডল অর্ডার তাসের ঘরের মত ভেঙে পড়ল। দারুণ ভিত তৈরি করেও পাকিস্তানের ইনিংস আটকে গেল ২৫০ রানে।

৫) রবীন্দ্র জাদেজা,ইশান্ত শর্মা তিনটি করে উইকেট নিলেন। অশোক দিন্দা কোনও উইকেট পেলেন না।

বিরতিতে--

একদিনের ক্রিকেটে ইডেনের পঁচিশ বছর পুর্তি উপলক্ষ্যে ভারত এবং পাকিস্তানের কিংবদন্তি ক্রিকেটারদের সংবর্ধিত করা হল। এদিন দুদেশের ক্রিকেটারদের হুডখোলা জিপে ইডেন ঘোরানো হয়।

ভারতের ইনিংস--
১) ২৫১ রান তাড়া করতে নেমে সাবধানী শুরু ভারতের।

২) ভারতের প্রথম উইকেট পড়ল ৪১ রানে।

৩) ভারতের ব্যাটিং বিপর্যয়। একে একে ফিরে গেলেন সব প্রতিষ্ঠিত ব্যাটসম্যান।

৪) ১০৩ রানের মধ্যে পড়ে গেল ৬ উইকেট। ইডেন থেকে বেরোতে শুরু করলেন দর্শকরা।

৫) নিশ্চিত হারের মুখে পাওনা ধোনির অপরাজিত ৫৪ রানের ইনিংস।

৬)  ভারত হারল ৮৫ রানে। ম্যাচের সেরা নাসির জামসেদ।

ম্যাচের পর--
ইডেনে সিরিজ জয়ের উত্‍সব পালন করলেন মিসবা-হাফিজরা। ড্রেসিংরুমে চলল আনন্দের নাচ।

মাথা নীচু করে মাঠ ছাড়লেন ধোনিরা। টিম বাসে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে যখন ধোনিরা হোটেলে ফিরছেন, তখন কলকাতার ছবিটা হারের হতাশায় মোড়া। মেঘলা আকাশটা যেন প্রতীকী।

৬ জানুয়ারি দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায় সিরিজের তৃতীয় তথা শেষ ম্যাচটা শুধুই নিয়মরক্ষার হয়ে দাঁড়াল।







First Published: Friday, January 04, 2013, 11:44


comments powered by Disqus