এগিয়ে থেকেও কোটলার পিচ চিন্তায় রাখছে ভারতকে

Last Updated: Saturday, March 23, 2013 - 18:05

অস্ট্রেলিয়া-- ২৬২। ভারত-- ২৬৬/৮
সিরিজের সেরা বলে নাথান লিয়ন যখন সচিন তেন্ডুলকরকে প্যাভিলিয়ানে ফিরিয়ে দিলেন ভারতের স্কোরবোর্ড রানসংখ্যা ১৮৪। হাতে মাত্র পাঁচটি উইকেট। তিনি দিনেই খেলা শেষ হয়ে যাওয়ার ভবিষ্যৎবাণী কেমন যেন দিশা হারিয়ে ফেলল ফিরোজ শাহ কোটলার ২২গজে। হোয়াইট ওয়াশ, ব্রাউন ওয়াশের পাপড়ি বিছানো নরম পথে হঠাৎ কাঁটা ছড়িয়ে দিয়ে গেল নিয়নের স্বপ্নের স্পেল। যে স্পেলের কাছে হার মানলেন পাঁচ ভারতীয় ব্যাটসম্যান।
অথচ শুরুটা হয়েছিল প্রত্যাশা মতই। গতকাল ২৩১ রানের সঙ্গে আজ অস্ট্রেলিয়া যোগ করতে পেরেছিল মাত্র ৩১ রান। কাল সারাদিন বারবার বোলার বদলিয়ে চমক দিয়েছিলেন অধিনায়ক ধোনি। আজকেও চমক উপহার দিলেন। আজিঙ্কে রাহানে নয়। মুরলি বিজয়ের সঙ্গে ওপেন করতে নামলেন চেতেশ্বর পূজারা। তবে মাহির ফাটকা বিফলে গেল না। দুই ওপেনারই শুরুটা করলেন ভালই। প্রথম উইকেটে ১০৮ রানের পার্টনারশিপের পর যখন মনে হচ্ছিল এই টেস্টেও অসিদের ভাগ্যে আগের তিনটেস্টের ফটোকপি প্রাপ্তি শুধু সময়ের অপেক্ষা ঠিক তখনই ফাটলটা ধরালেন লিয়ন। তাঁর সৌজন্যে এই সিরিজে প্রথমবার সত্যিকারের প্রতিদ্বন্দ্বিতা তৈরি হল। দিনের শেষে অসিদের থেকে ভারতীয়রা মাত্র ৪ রানে এগিয়ে। হাতে দুটি উইকেট।
জীবনের প্রথম টেস্টের অভিজ্ঞতা খুব একটা সুখের হল না ভারতের নতুন প্রজন্মের ব্যাটিংয়ের সেরা সম্ভাবনা রাহানের। মাত্র ৭ রানে পরাস্ত হলেন লিয়নের স্পিনের কাছে। শুধু তিনিই নন। লিয়নের স্পিনের কাছে রীতিমত নাকানিচোবানি খেলেন স্পিন বিশেষজ্ঞ ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। মুরলি বিজয় (৫৭) ও চেতেশ্বর পূজারা (৫২) ফিরে যাওয়ার পর বাকি ব্যাটসম্যানরা `শুধু আসা যাওয়ার` ফর্মুলা মানলেন। ক্রিজে জমে যাওয়া সচিন তেন্ডুলকরের (৩২) ব্যাট যখন ভয়ঙ্কর হওয়ার ইঙ্গিত দিচ্ছে ঠিক তখনই কোটলার দর্শকদের চরম হতাশা উপহার দিলেন লিয়ন। ছিনিয়ে নিলেন লিটল মাস্টাররের অমূল্য উইকেট। দেশের মাটিতে সম্ভবত জীবনের শেষ টেস্টটা অনাড়ম্বর ভাবে শুরু করলেন মাস্টারব্লাস্টার।
শেষ মুহূর্তে রবীন্দ্র জাদেজা ৪৩ রান না করলে ভারত অসিদের রান টপকাতে পারত কিনা সে বিষয়েও সন্দেহ থেকেই যাচ্ছে।
সিরিজটা পকেটে চলেই এসেছে। কিন্তু এক গাদা রেকর্ডের হাতিছানির আকাশে এভাবে কালো মেঘ ঘনিয়ে আসবে তা বোধ হয় মাহি দুঃস্বপ্নেও ভাবেননি। ভারতীয় দর্শকদের স্মৃতি যে বেশ দুর্বল সেটা বিলক্ষণ জানেন টিম ইন্ডিয়ার ক্যাপ্টেন। পরপর আট টেস্টে হারার স্মৃতি ভুলে এখন যেমন সবাই বি গ্রেডেড অস্ট্রেলিয়া দলের বিরুদ্ধে তিন টেস্ট জয়ে মেতে আছে, এই টেস্ট হারলে সব প্রশংসা সমালোচনায় বদলাতে এক সেকেন্ড সময় নেবে না সে বিষয়ে সম্যক অভিজ্ঞতা আছে তাঁর। কোটলার বুমেরাং হয়ে যাওয়া স্পিনিং স্পিচে এই সব কথাই মাথায় নিয়ে বর্ডার-গাভাসকর ট্রফির চতুর্থ টেস্টের তৃতীয় দিন মাঠে নামবেন ধোনি এন্ড কোম্পানি।



First Published: Saturday, March 23, 2013 - 18:05


comments powered by Disqus