সেমিফাইনালের আগে ভারতের সামনে প্রোটিয়াস কাঁটা

Last Updated: Tuesday, October 2, 2012 - 10:59

আজ সুপার এইটে দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে সম্মুখ সমরে ভারত। আগের ম্যাচে পাক বাহিনীকে উড়িয়ে দিলেও সেমিফাইনালের দরজার সামনে বেশ কিছু জটিল হিসেব নিকেশ এখনও বাধা হয়ে আছে ভারতের সামনে। টি-২০ বিশ্বকাপে শেষ চারে যাওয়ার টিকিটটা নিশ্চিত করার সবচেয়ে সহজ উপায় আজকে প্রোটিয়াসদের বিরুদ্ধে ম্যাচটা জেতা। কিন্তু ডি ভিলিয়ার্সদের বিরুদ্ধে যুদ্ধটা যে সহজ হবেনা ক্যাপ্টেন ধোনি সেটা নিজেই স্বীকার করে নিয়েছেন।
পরপর ২ খানা ম্যাচে হেরে এবারের বিশ্বকাপ থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিদায় মোটামুটি নিশ্চিত। তবে ডি ভিলিয়ার্সের দল যে টুর্নামেন্টের একটা সম্মানজনক পরিসমাপ্তি চাইবে তা বলাই বাহুল্য। তার সঙ্গেই প্রোটিয়াসরা কিন্তু আজকের ম্যাচে মিরাকলের সন্ধান করবেই। সেমিফাইনালে ওঠার ক্ষীণ আশাটুকু জিইয়ে রাখতে সর্বশক্তি দিয়ে ঝাঁপাবে তারা। এমনিতেই এখনও রানরেটের বিচারে পাকিস্তানের থেকে পিছিয়ে আছে ভারত। দু`টো ম্যাচ জিতে সেমিফাইনালে খেলা মোটামুটি নিশ্চিত করে ফেলেছে অস্ট্রেলিয়া। ভারতের ভাগ্য কিন্তু অনেকটাই নির্ভর করছে গ্রুপ বি`র আরেক ম্যাচে পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া যুদ্ধের উপর। পাকিস্তান যদি আজ হেরে যায় তাহলে ভারত অনেকটাই নিশ্চিন্ত হতে পারবে। সেক্ষেত্রে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারালে সহজেই সেমিফাইনালে পৌঁছনো সম্ভব। এমনকী, খুব কম ব্যবধানে হারলেও সেমি ফাইনালে যাওয়ার রাস্তা বন্ধ হবে না। কিন্তু যদি আফ্রিদিরা আজ জিতে যান তাহলে দক্ষিণ আফ্রিকাকে শুধু হারালেই চলবেনা, রানরেটও অনেকখানি বাড়িয়ে নিতে হবে `মেন ইন ব্লু`কে।

ডেইল স্টেইন আর মর্নি মরকেলের বিরুদ্ধে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের `হাঁটু-কাপুনির` একটা পুরোনো ইতিহাস আছে। আজকের ম্যাচ জিততে গেলে সেই সব ইতিহাসকে ড্রেসিং রুমেই ছেড়ে আসতে হবে ধোনি বাহিনীকে। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং- এই তিনটি বিভাগেই প্রোটিয়াসদের টেক্কা দিতে না পারলে বিপদ। যদিও বিরাট কোহলি বেশ কয়েক ম্যাচ ধরেই ভারতীয় ক্রিকেটের মুশকিল-আসানের ভূমিকাটা দায়িত্ব সহকারে পালন করে চলেছেন। তবে রোজ রোজ তিনিই ত্রাতা হয়ে হাজির হবেন এরকম আশা না করাই উচিত। আগের ম্যাচে দলে ফিরে এসে বীরু-পাজি ফর্মে ফিরলেও আরেক ওপেনর গম্ভীর এখনও খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি। এই মুহূর্তে বীরু-গৌতি জুটির ঝলক কিন্তু ভীষণ জরুরি দলের জন্য।
পাকিস্তান ম্যাচে অফ স্পিনের বিরুদ্ধে বেশ নড়বড়ে হয়ে গিয়েছিল প্রোটিয়াসদের ব্যাটিং লাইন আপ। সেটা মাথায় রাখলে আজ দলে হরভজনের উপস্থিতি অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। আজকের মরণ-বাঁচন ম্যাচে `ক্যাপ্টেন কুল`কে কিপিং-এ মনোযোগ বাড়াতে হবে। আগের ম্যাচে তাঁর কিপিং দেখে বিশ্বকাপের চেয়ে হাই-স্কুল ট্যুর্নামেন্টের কথাই মনে পড়ছিল বেশি। অসাধারণ দলের `সাধারণ` ক্যাপ্টেনের যে তকমাটা তাঁর নামের সঙ্গে জড়িয়ে গিয়েছে তার থেকে বিলক্ষণ বেড়িয়ে আসতে চান ধোনি। অসাধারণত্য প্রমাণ করার এর থেকে ভাল সুযোগ তিনি যে আর পাবেন না সেকথাও বুঝে নিতে হবে তাঁকে। এর সঙ্গেই আজকেও দলের চাই ফর্মে থাকা যুবরাজকেও।
টিম ইন্ডিয়া পরিবারের অন্দরমহলের সম্পর্কগুলোও এখন বেশ টালমাটাল। পাকিস্তান তার ফায়দা তুলতে পারেনি বলে দক্ষিণ আফ্রিকাও যে তা পারবে না, তা কিন্তু নয়। ভুলে গেলে চলবেনা, এবার কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা দলের সঙ্গী গ্যারি কার্স্টেন নামের এক ভদ্রলোক। যিনি ভারতীয় ড্রেসিং রুমের প্রত্যেক অলি গলির সঙ্গে অতি সুপরিচিত। সে বিষয়ে নিয়েও নিশ্চয়ই ভারতীয় থিঙ্ক-ট্যাঙ্ক ভাবনা চিন্তা চালাচ্ছেন। তাই খেলা শুরুর আগে `সাধু সাবধান` হয়ে যাওয়াটাই মঙ্গলের।



First Published: Tuesday, October 2, 2012 - 10:59


comments powered by Disqus