বিরাটের ১৮৩, পাকিস্তানকে হারিয়ে কার্যত ফাইনালে ভারত

Last Updated: Sunday, March 18, 2012 - 13:52

পাকিস্তানকে হারিয়ে কার্যত এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠে গেল ভারত। পাকিস্তানের ৩২৯ রানের বিশাল লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে বিরাট কোহলির দুরন্ত শতরান ও রোহিত শর্মার যোগ্য সঙ্গতে ৬ উইকেটে ম্যাচ জেতে ভারত। প্রথমে ব্যাটিং করে ৬ উইকেটে ৩২৯ রান করে পাকিস্তান। হাফিজ ও জামশেদেরে জোড়া সেঞ্চুরির সৌজন্যে ৩০০ রানের গণ্ডি পেরোয় পাকিস্তান। হাফিজ ১০৫ ও জামশেদ ১১২ রান করে ভারতের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের ওপেনিং জুটির সর্বোচ্চ রানের নতুন রেকর্ড গড়েছেন। এদিন ১৯৯৬ সালে সিঙ্গাপুরে সইদ আনোয়ার ও আমির সোহেল জুটির ১৪৪ রানের ইনিংস পেরিয়ে যান তাঁরা। ভারতের হয়ে দিন্দা ও প্রবীণকুমার ২টি করে উইকেট পান।
জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই গম্ভীরকে হারিয়ে চাপে পড়ে যায় ভারত। এরপর বিরাট কোহলির সঙ্গে জুটি বাঁধেন সচিন। রিয়াজ-চিমা-গুলদের যাবতীয় বোলিং আক্রমণকে মাঠের বাইরে পাঠিয়ে দেন সচিন-কোহলি জুটি। অবশেষে আজমলের স্পিনের কাছে পরাস্ত হয়ে ৫২ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মাস্টার ব্লাস্টার। এরপর পাকিস্তানের দুরন্ত বোলিং বৈচিত্র্যের সামনে বিন্দুমাত্র চাপে না পড়ে দুই তরুণ, কোহলি ও রোহিত শর্মা জুটি বেঁধে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন ভারতের ইনিংসকে। কেরিয়ারে একাদশতম শতরান করেন বিরাট কোহলি। আজমল-গুলদের বোলিং দাপটের সামনে উইকেট না হারিয়ে মাটি কামড়ে পড়ে থেকে অবশেষে ভারতকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয় রোহিত-কোহলির ১৭২ রানের পার্টনারশিপ। অবশেষে ৬৮ রানে আউট হন রোহিত শর্মা। অবশেষে উমর গুলের বলে বিরাট কোহলি আউট হন ১৮৩ রানে। জয়ের জন্য বাকি কাজটা সারেন ধোনি-রায়না জুটি। প্রসঙ্গত, ভারতের এটাই সর্বাধিক রান তাড়া করে ম্যাচ জয়ের রেকর্ড।



First Published: Sunday, March 18, 2012 - 21:57


comments powered by Disqus