ডার্বি জিতে ফার্গুসনের বাড়া ভাতে ছাই মানচিনির

Last Updated: Tuesday, April 9, 2013 - 15:09

ম্যান সিটি (২) ম্যান ইউ (১)
(মিলনার,আগুয়েরা) (কোম্পানি-আত্মঘাতী)
বাড়া ভাতে ছাই বোধহয় একই বলে। ওল্ড ট্রাপোর্ডে সোমবার রাতে ম্যানচেস্টার ডার্বি জিতে সিটি কোচ রবার্তো মানচিনি বিপক্ষ কোচ ফার্গুসনের দিকে যেভাবে হাসলেন তার মানেটা দাঁড়ায়, সরি ফার্গি তোমায় আর একটু অপেক্ষা করালাম। ইংলিশ প্রিমিয়র লিগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ২-১ গোলে হারিয়ে ম্যানচেস্টার সিটি কাপ জয়ের অপেক্ষা বাড়াল। তবে এই হারের পরেও টানা ১৯ বার প্রিমিয়র লিগ খেতাব হাতের মুঠোয় ফার্গুসনে। ইপিএলে এখন আর সাতটা ম্যাচ বাকি। রুনিরা এখনও সিটির থেকে ১২ পয়েন্টে এগিয়ে।
ঘরের মাঠে রুনিরা এই ম্যাচ জিততে পারলেই ইপিএলের ট্রফি হাতে তুলে ফেলত। কিন্তু হল না মারাদোনার প্রাক্তন জামাই সার্গিও আগুয়েরোর দুর্দান্ত গোলে। টানা ১৯ বার প্রিমিয়র লিগ খেতাব জয়ের পর ফের এই খেতাব জয়ের সামনে দাঁড়িয়ে অ্যালেক্স ফার্গুসনের দল ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড। আজ রাতে ম্যাঞ্চেস্টার সিটির বিরুদ্ধে খেলতে নামছে রুনি পার্সিরা।
এই ম্যাচটি জিততে পারলে সাত ম্যাচ বাকি থাকতেই কার্যত লিগ খেতাব ছিনিয়ে নেবে ইউনাইটেড। তাই আজকের রাতের ম্যাচটাই তাঁর দলের কাছে শেষ লড়াই বলে মানছে ম্যাঞ্চেস্টার সিটির কোচ রবের্তো মানচিনি। ম্যান ইউতে রয়েছেন রুনির মতো একজন ফুটবলার। এর সঙ্গে পার্সি দলের যোগ দেওয়ায় শক্তি অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে।
অন্যদিকে চোট আঘাত আর বিতর্কে ম্যান সিটির শক্তি কমে এসেছে। চোটের জন্য সিটি এই লিগে বেশিরভাগ সময় পায়নি আগুয়েরো ও কোম্পানিকে। বালোতেলিও মাঝপথে দল ছেড়ে চলে গিয়েছেন। ম্যান ইউয়ের সামনে ম্যান সিটি অনেকটাই দুর্বল জায়গায় দাঁড়িয়ে।
ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে অনুষ্ঠিত এই ম্যাচে আধিপত্য ছিল ম্যানচেস্টার সিটিরই। কালকের এ জয়ে প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় স্থানে থাকা সিটি অবশ্য ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে পয়েন্টের ব্যবধান কমাল।
ম্যাচের শুরুটা ছিল দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। তবে ১০ মিনিট যেতে না যেতেই খেলায় ছন্দপতন ঘটতে শুরু করে। বিপক্ষের দুর্গে এসে ম্যানসিটির দাপট সাত মিনিট পরই বন্ধ হয়ে যায় কোম্পানির আত্মঘাতী গোলে। ম্যাচ যখন ১-১, তখন পাল্টা আক্রমণে ম্যান ইউ। কিন্তু ফার্গুসনের যাবতীয় আক্রমণের ছক বানচাল হয়ে যায় আগুয়েরার দুরন্ত গোলে। গোটা ম্যাচে শুধু ভ্যানপার্সিই নন, সুপারফ্লপ ম্যন ইউয়ের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ফুটবলার রায়ান গিগসও। ম্যাচ হারলেও ৭২ পয়েন্ট পেয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে ম্যান ইউ। ৬৫ পয়েন্ট পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে মানচিনির ম্যান সিটি। ইউনাইটেড স্ট্রাইকার রবিন ফন পার্সির একটি ফ্রি-কিকের বল সিটির অধিনায়ক ভিনসেন্ট কম্পানির পায়ে লেগে গোলে চলে যায়।
দুর্ভাগ্যজনক গোলটি হজমের পর ইউনাইটেডের ওপর চড়াও হয় সিটি। সামির নাসরি, জেমস মিলনার ও ডেভিড সিলভারা নষ্ট করেন বেশ কয়েকটি সুযোগ। রবিন ফন পার্সি কাল অতিবাহিত করলেন ইউনাইটেডের হয়ে গোলবিহীন টানা দশম ম্যাচ। ম্যাচের ৭৮ মিনিটে বদলি খেলোয়াড় সার্জিও অ্যাগুয়েরো গোল করে সিটির জয় নিশ্চিত করেন। সামির নাসরির পরিবর্তে অ্যাগুয়েরোকে নামানোর সিদ্ধান্তের কারণে মনে মনে গর্বিত হতেই পারেন।
ম্যাচ শেষে হতাশ ফার্গুসন এখনই লিগ খেতাব নিয়ে নিশ্চিন্ত হতে চান না। বিশ্বখ্যাত এই কোচ বলেন, ‘সব অঙ্ক শেষ না করে আমি এ বিষয় নিয়ে কথা বলব না।’ ফার্গুসন বলেন, ‘ইতিহাস বলে, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড অতীতে অনেকবারই নিজেদের শিরোপা জয়টা নিজেরাই কঠিন করেছে। এবার সেটা হতে দিতে চাই না।’
ইউনাইটেড সমর্থকেরাও চান না এমন কিছু হোক !



First Published: Tuesday, April 9, 2013 - 17:33
comments powered by Disqus