ফাইনালেও উঠে জেদ আরও বাড়ল মরগ্যানের

ফাইনালে উঠেও আত্মতুষ্টিতে ভুগছেন না ইস্টবেঙ্গলের ব্রিটিশ কোচ ট্রেভর মরগ্যান। বললেন, এখনও অনেক কাজ করতে বাকি রয়ে গেছে। তবে দলের ফুটবলারদের উপর ভরসা রাখছেন তিনি।

Updated: Sep 28, 2012, 02:44 PM IST

ফাইনালে উঠেও আত্মতুষ্টিতে ভুগছেন না ইস্টবেঙ্গলের ব্রিটিশ কোচ ট্রেভর মরগ্যান। বললেন, ফাইনালে উঠে দারুণ লাগছে। তবে কাজ এখনও শেষ হয়নি। এখন দলের খেলায় অনেক উন্নতির অবকাশ রয়েছ বলে মনে করেন ইস্টবেঙ্গলের কোচ। তবে দলের ফুটবলারদের উপর তিনি বেশ খুশি সেটাও জানিয়েছেন । একই সঙ্গে জানিয়ে দিলেন ফাইনালে উঠে কাপ জয়ের খিদেটা আরও বেড়ে গেছে। গতকাল চার্চিল ব্রাদার্সের বিরুদ্ধে জয়ের পর লাল হলুদ বাহিনীকে ঘিরে উচ্ছাসে মাতোয়ারা ময়দান। কিন্তু এই উচ্ছ্বাসে গা ভাসাতে মোটেও রাজি নন মরগ্যান। ফেড কাপের ফাইনালকেই পাখির চোখ দেখছেন তিনি। নিজেই জানালেন ফাইনালে কাদের সঙ্গে তাঁর দল খেলবে সেটা নিয়ে তিনি মোটেও ভাবছেন না। জেতাকেই এখন মূল মন্ত্র করতে চাইছেন এই ইংরেজ।
পর পর চারবার। ফেড কাপ ফাইনালে আবার লাল হলুদ বাহিনী। মঙ্গল বার শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে মেগা সেমিফাইনালে গোয়ার চার্চিল ব্রাদার্সকে ১-০ গোলে পরাজিত করল ইস্টবেঙ্গল। অতিরিক্ত সময়ে খেলার জয়সূচক গোলটি করেন লালরিন ডিকা। গ্রুপ লিগে সেভাবে ছন্দে পাওযা যায়নি লাল-হলুদ শিবিরকে। তার উপর কালিঘাটের বিরুদ্ধে ৪-৩ গোলে জয়ের পর গড়াপেটার বিতর্ক উস্কে দিয়েছিলেন গোয়ার ক্লাবগুলির কোচেরা। তাই বৃহস্পতিবারের সেমিফাইনাল ছিল মরগ্যানের কাছে চ্যালেঞ্জ। সেই চ্যালেঞ্জে বেটোদের টেক্কা দিলেন মেহতাবরা। ৯০ মিনিটে কোন দলই গোলমুখ খুলতে পারেনি। যদিও দুদলের কাছেই সুযোগ এসেছিল। শেষপর্যন্ত ১১১ মিনিটে ডেডলক খোলেন পরিবর্ত হিসাবে মাঠে নামা লালরিন ডিকা। মেহেতাবের নেওয়া ফ্রিকিকে চিড্ডির হেড ডিকার কাছে পৌঁছলে বাঁ পায়ের দুরন্ত শটে গোল করে যান জাতীয় দলের এই মিডফিল্ডার।