জনসমর্থনের যুক্তি দেখিয়ে এবার আই লিগে খেলতে চাওয়ার দাবি মহমেডানের

ঐতিহ্যশালী ও জনসমর্থনে পুষ্ট হওয়ার জন্য যদি মোহনবাগান নির্বাসিত না হয়,তবে মহমেডান স্পোর্টিংকেও সুযোগ দেওয়া হোক আইলিগের মূলপর্বে। বুধবার ইস্টবেঙ্গলের সিদ্ধান্তে খুশি মহমেডান স্পোর্টিং। তিনবার আইলিগের মূলপর্বে খেললেও,এখন মহমেডান স্পোর্টিং দ্বিতীয় ডিভিশনে। ইস্টবেঙ্গল তাঁদের পাশে থাকার খবরে উজ্জীবিত মহমেডান কর্তারা ২৬ জানুয়ারি থেকে আগামি একসপ্তাহব্যপী সইসংগ্রহ অভিযান চালাবেন গোটা দেশে।

Updated: Jan 17, 2013, 10:11 PM IST

ঐতিহ্যশালী ও জনসমর্থনে পুষ্ট হওয়ার জন্য যদি মোহনবাগান নির্বাসিত না হয়,তবে মহমেডান স্পোর্টিংকেও সুযোগ দেওয়া হোক আইলিগের মূলপর্বে। বুধবার ইস্টবেঙ্গলের সিদ্ধান্তে খুশি মহমেডান স্পোর্টিং। তিনবার আইলিগের মূলপর্বে খেললেও,এখন মহমেডান স্পোর্টিং দ্বিতীয় ডিভিশনে। ইস্টবেঙ্গল তাঁদের পাশে থাকার খবরে উজ্জীবিত মহমেডান কর্তারা ২৬ জানুয়ারি থেকে আগামি একসপ্তাহব্যপী সইসংগ্রহ অভিযান চালাবেন গোটা দেশে।
এখানেই শেষ নয়,ফেডারেশনের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন মহমেডান স্পোর্টিংয়ের সভাপতি সুলতান আহমেদ। মোহনববাগানের উপর থেকে নির্বাসন তুলে নেওয়ার পর,এখন ইস্টবেঙ্গল-মহমেডান যেভাবে একজোট বাঁধছে,তাতে চাপ বাড়ানোর কৌশল তৈরি হচ্ছে ফেডারেশনের উপর।
প্রসঙ্গত, গতকাল বুধবার ইস্টবেঙ্গলের কর্মসমিতির বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে যে জনসমর্থন এবং শতাব্দী প্রাচীন ক্লাব প্রসঙ্গ টেনে মোহনবাগানকে নির্বাসন মুক্ত করা হয়েছে, তাহলে মহমেডান স্পোর্টিংকে কেন আই লিগে খেলার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না। এই আর্জি ফেডারেশনের কাছে জানায় ইস্টবেঙ্গল।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close