সিদ্ধান্তে অনড় বাগান কর্তারা, ইস্টবেঙ্গলের কাছেই ক্ষতিপূরণের দাবি

রবিবার বড় ম্যাচে দল তুলে নেওয়ার পর সোমবার বৈঠকে বসেছিলেন মোহনবাগান কর্তারা। বৈঠকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বৈঠকে ইস্টবেঙ্গলের কাছে ক্ষতিপূরণের দাবি করলেন মোহনবাগান সচিব অঞ্জন মিত্র। তাঁর মতে রহিম নবির চোটের জন্য আয়োজক ক্লাবকেই ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। প্রয়োজনে তাঁরা ফিফার দ্বারস্থ হবেন বলেও জানিয়েছেন।

Updated: Dec 10, 2012, 05:08 PM IST

ডার্বি বিতর্ক অব্যহত। বড় ম্যাচে দল তুলে নেওয়ার পর এবার ইস্টবেঙ্গলকে কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন মোহনবাগান কর্তারা। সোমবার জরুরী বৈঠকের পর ইস্টবেঙ্গলের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণের দাবি করলেন মোহনবাগান সচিব অঞ্জন মিত্র। তাঁর মতে রহিম নবির চোটের জন্য আয়োজক ক্লাবকেই ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। পাশাপাশি ফিফায় যাওয়ার সিদ্ধান্তও নিয়ে ফেলল ক্লাব। এ ব্যাপারে বাগান সচিব অঞ্জন মিত্রকেই যাবতীয় দায়িত্ব দিয়েছে কর্মসমিতি। এদিন ক্লাব তাঁবুর বাইরে রেফারি বিষ্ণু চৌহানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখান মোহনবাগান সমর্থকরা।
মোহনবাগান কর্তাদের এহেন আচরণে স্বভাবতই ক্ষুব্ধ ইস্টবেঙ্গল শিবির। তাঁরা এই দাবি মানতে রাজি নন। বরং ইস্টবেঙ্গলের সহসচিব ডঃ শান্তিরঞ্জন দাশগুপ্তের দাবি, ফিফার নিয়মানুযায়ী সমস্যায় পড়তে পারে মোহনবাগান।
অন্যদিকে বড় ম্যাচে দল তুলে নেওয়ার জন্য শাস্তি চাইলেও বাগানকে সাসপেন্ড করা হোক এমনটা চাইছেন না ইস্টবেঙ্গলের কর্তারা। ইস্টবেঙ্গল সচিব কল্যাণ মজুমদার জানান, তিনি চান বাংলার ফুটবলের স্বার্থে মোহনবাগানের সাসপেনসন যেন না হয়। তবে ডার্বি ম্যাচে দল না নামানোর জন্য তিনি যে মোহনবাগানের শাস্তি চান তাও পরিষ্কার করে দিয়েছেন ইস্টবেঙ্গল সচিব।