ডেম্পোকে হারিয়ে দীর্ঘদিন পর বাগানে বসন্ত

খেলা শেষ হতেই কেঁদে ফেলল ওরা। গ্যালারিতে একে অপরকে জড়িয়ে ধরল। সত্যি এমন দৃশ্য কতদিন দেখা যায়নি মোহনবাগান গ্যালারিতে। দীর্ঘদিন বাদে আজ সেইদিন ফিরল। সাম্প্রতিক কালে সবচেয়ে বড় এবং তাত্‍পর্যের জয় পেল করিম বেঞ্চারিফার দল। রবিবার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে আই লিগে ডেম্পোকে হারিয়ে অবনমনের ফাঁস আলগা করল মোহনবাগান। তার থেকেও বড় কথা ক্রমাগত ব্যর্থতার মাঝে হঠাত্‍ একটা সাফল্যের দমকা হাওয়া এল বাগানে।

Updated: Mar 31, 2013, 05:16 PM IST

মোহনবাগান (২) ডেম্পো (১)
(নবি, ওডাফা) (কার্ভালহো)
খেলা শেষ হতেই কেঁদে ফেলল ওরা। গ্যালারিতে একে অপরকে জড়িয়ে ধরল। সত্যি এমন দৃশ্য কতদিন দেখা যায়নি মোহনবাগান গ্যালারিতে। দীর্ঘদিন বাদে আজ সেইদিন ফিরল। সাম্প্রতিক কালে সবচেয়ে বড় এবং তাত্‍পর্যের জয় পেল করিম বেঞ্চারিফার দল। রবিবার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে আই লিগে ডেম্পোকে হারিয়ে অবনমনের ফাঁস আলগা করল মোহনবাগান। তার থেকেও বড় কথা ক্রমাগত ব্যর্থতার মাঝে হঠাত্‍ একটা সাফল্যের দমকা হাওয়া এল বাগানে।
অবনমনের খাদের ধারে দাঁড়িয়ে দুরন্তভাবে ঘুরে দাঁড়াল মোহনবাগান। সাম্প্রতিক অতীতে সবুজ-মেরুনের শ্রেষ্ঠ পারফরম্যান্সের কাছে নতি স্বীকার করতে বাধ্য হল গতবারের চ্যাম্পিয়ান ডেম্পো। জাতীয় লিগের `ডু অর ডাই` ম্যাচে ২-১ গোলে জয় পেল করিমের দল। ওডাফা আর নবির জোড়া গোলে সবুজ-মেরুনের ঝুলিতে যুক্ত হল অতি প্রয়োজনীয় তিনটি পয়েন্ট।
করিমের ৪-৩-৩ ছকে ওডাফা-টোলগে জুটি আজ যুবভারতীতে আজ ফুল ফোটালেন। ফলস্বরূপ ম্যাচের নয় মিনিটের মাথায় বিপক্ষের গোল মুখ খুলে ফেললেন পালতোলা নৌকার নাবিকরা। নবির দুরন্ত হেডেই বোধহয় ঠিক হয়ে যায় বাগানের জয়ের ঠিকানা। ম্যাচের ১৬ মিনিটের মাথায় ব্যাবধান আরও বাড়িয়ে দেন নাইজেরিয়ান তারকা ওডাফা। দ্বিতীয়ার্দ্ধে ম্যাচের ৫১ মিনিটের মাথায় পিটার কার্ভালহোর গোলে ডেম্পো ব্যবধান কমায়।