নির্বাসন মুক্ত হয়ে বাগান চলল গোয়ায়

Last Updated: Thursday, January 17, 2013 - 20:12

নির্বাসন থেকে মুক্ত হয়ে আবার মাঠে ফিরছে মোহনবাগান। অসহ্য চাপ কর্তারা কাটিয়ে উঠলেও,মোহনবাগান কোচ-ফুটবলাররা কি পেরেছেন? ঠাসা ক্রীড়াসূচির চাপ তো রয়েইছে। তার সঙ্গে নতুন চ্যালেঞ্জ,এই অবস্থা থেকে সমর্থকদের মুখে আবার হাসি ফোটানো। সেই দায়িত্বও কম চাপের নয়! গোয়ায় রওনা হওয়ার আগে ক্লাবের মাঠে শেষ অনুশীলনে নিজের দলের ফর্মেশনে মন দিলেন করিম।
আপফ্রন্ট ওডাফাহীন হওয়ায় টোলগের সঙ্গী হচ্ছেন সাবিথ। ভাবনায় রয়েছেন স্ট্যানলিও। সেন্ট্রাল ডিফেন্সে আইবর-ইচে। দুই সাইডব্যাক হিসেবে নির্মল ছেত্রীর সঙ্গে নতুন ভূমিকায় দেখা যেতে পারে স্নেহাশিস চক্রবর্তীকে। মাঝমাঠে ডিফেন্সিভ ব্লকার হিসেবে দেখা যাবে রাকেশ মাসিকে। দুই হাফ জুয়েল ও নবি। মাঝমাঠে স্ট্যানলি না ডেনসন দেবদাস-সে নিয়ে এখনও ছক ভাঙা গড়ার কাজ চলছে কোচ করিমের।
মরসুমের শুরুতে তাঁকে ঘিরে বিতর্ক হয়েছিল। আর মরসুমে ক্লাবের নির্বাসনে নিজের ফুটবল কেরিয়ারই প্রশ্নের মুখে পড়ে গিয়েছিল।অবশেষে নির্বাসন থেকে মুক্তি পেয়ে টোলগে ওজবে নিজেকে ছাপিয়ে যেতে মরিয়া। সালগাঁওকর ম্যাচ খেলতে নামার আগে টোলগের দাবি,এখন আর হার বা ড্র নয়,জয়ই এখন তাঁর স্বপ্নে।
 
 
তবে নির্বাসন থেকে মুক্তি পাওয়ার পর প্রথম ম্যাচ অ্যাওয়ে হওয়ায় একটা আফশোস আছে টোলগের। কামব্যাকের ম্যাচে তিনি মিস করবেন মাঠে সমর্থকদের চিত্কার। পুরানো বিতর্ক নিয়ে আর মাথা ঘামাতে চাননা টোলগে।আবার গোলের মধ্যে ফিরতে চান অসি গোলমেশিন।
ফতোদরা বদলে এখন গোয়ায় আইলিগের ম্যাচ হচ্ছে মাপোসার দুলের স্টেডিয়ামে।এই নতুন স্টেডিয়ামে ফিল্ডটার্ফ থাকায় মোহনবাগান কোচ করিম চেয়েছিলেন বৃহস্পতিবার যুবভারতীতে অনুশীলন করতে। কিন্তু সকালে যুবভারতী বুকিং ছিল মহমেডান স্পোর্টিংয়ের। তাঁরা ছাড়তে রাজি না হওয়ায় অগত্যা ক্লাবের মাঠে অনুশীলন করতে হয় মোহনবাগানকে। নির্বাসন থেকে মুক্তি পেয়ে প্রথম ম্যাচ। গোয়ায় মোহনবাগান কোচ করিম মুখোমুখি হচ্ছে তাঁর প্রাক্তন দল সালগাঁওকরের। নির্বাসন থেকে মুক্তি পেয়ে কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি দাঁড়িয়ে থাকা কোচ করিম একদমই পেশাদার।
  
বেশ কিছুদিন প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ খেলেনি মোহনবাগান। তাই সেরা ফর্মে ফিরতে এক-দুটো ম্যাচ লাগবে বলে মনে করেন মোহনবাগান কোচ।



First Published: Thursday, January 17, 2013 - 20:12


comments powered by Disqus