ডার্বি নয় করিমের ভাবনায় এখন শুধুই তিনটে অ্যাওয়ে ম্যাচ

Last Updated: Thursday, November 22, 2012 - 20:45

মাঝে বাকি এখনও দু`সপ্তাহেরও বেশি সময়। তারপর মরসুমের প্রথম ডার্বি ম্যাচে মুখোমুখি হতে চলেছে ইস্টবেঙ্গল ও মোহনবাগান। সমর্থকদের মধ্যে ইতিমধ্যে বড় ম্যাচ নিয়ে আলোচনা তুঙ্গে হলেও,মোহনবাগান শিবিরে এখনও আঁচ পড়েনি। বরং মাঝে তিনটি অ্যাওয়ে ম্যাচ নিয়েই বেশি চিন্তায় সবুজ-মেরুন থিঙ্ক ট্যাঙ্ক।
এই মরসুমে প্রথমবার মোহনবাগানের জার্সি গায়ে ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে খেলতে নামবেন নির্মল ছেত্রী। ডার্বির আবেগ এখনও ছুঁতে পারেনি বাগান ডিফেন্সের সেরা অস্ত্রকে। ডার্বি ম্যাচে চোটের জন্য প্রতিপক্ষের অধিনায়ক সঞ্জু প্রধান অনিশ্চিত। ১২ বছর ধরে একসাথে খেলা বন্ধু সঞ্জুর জন্য সমব্যথী নির্মল।
আই লিগে তিনটি অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলতে যাওয়ার জন্য প্রায় দেড় সপ্তাহ কলকাতার বাইরে থাকবে মোহনবাগান। শুক্রবার অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলতে ভোর সাড়ে ছটায় পুনে উড়ে যাবে করিমের সবুজ-মেরুন শিবির। তার আগে বৃহস্পতিবার শেষ অনুশীলনে করিম মূলত জোর দিলেন দলকে আরও সংঘবদ্ধ করতে। চার্চিলে থাকার সুবাদে ওডাফাকে চিনতেন। সালগাঁওকরে কোচিং করার সময় বিশ্বজিত সাহা,মেহরাজ,খেলেম্বাদের কাছ থেকে দেখেছেন। এমনকি এই শহরের পরিবেশও খুব চেনা মরক্কোন কোচের। তাই নতুন করে মোহনবাগানের জার্সি গায়ে আড়ষ্ঠতা নেই করিম বেঞ্চিরিফার।
দলের বেশ কয়েকজন ফুটবলার চোট সারিয়ে ফিরে আসছেন। চলছে ম্যাচ ফিট হওয়ার প্রস্তুতি। যার মধ্যে রয়েছেন দলের তিন নির্ভরযোগ্য ডিফেন্ডার ইচে,মেহরাজ ও রাকেশ মাসি। এই তিন ফুটবলার পুরো ম্যাচ ফিট না হলেও অ্যাওয়ে ম্যাচগুলির জন্য দলে নেওয়া হচ্ছে। ডেম্পোর বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ন ম্যাচের কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কোচ করিম।
ছয় ম্যাচে দশ পয়েন্ট। এই জায়গায় দাঁড়িয়ে আইলিগে আর পেছনের দিকে তাকাতে নারাজ মোহনবাগান। ছন্দ পেয়ে যাওয়া বাগান নতুন কোচ করিমের তত্ত্বাবধানে সামনের তিনটি অ্যাওয়ে ম্যাচে যথাসম্ভব পয়েন্ট ঘরে তুলে নিজেদের জায়গা আরও পোক্ত করতে চাইছে। তিনটি অ্যাওয়ে ম্যাচে তার টার্গেট পয়েন্ট নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননা কোচ করিম। তবে দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ন ফুটবলার নির্মল ছেত্রী জানান,তাঁদের টার্গেট,সাত পয়েন্ট।
ডেম্পো দলে এখন ডামাডোল চরমে। দুই ম্যাচ নির্বাসিত ক্লাইম্যাক্স লরেন্স। বিদেশি কোকোও চোটের জন্য মাঠে ফেরা নিয়ে সংশয় রয়েছেন। চাপে রয়েছেন কোচ কোলাসো। ডেম্পোর এই অবস্থাকেই গোয়ায় অ্যাওয়ে ম্যাচে কাজে লাগাতে চাইছেন করিম বেঞ্চিরিফা।
মোহনবাগানের প্রথম ইনিংসের থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে এখন অনেক পরিনত করিম। সন্তোষ কাশ্যপের জমানার সমালোচনার পথে একদমই হাঁটতে চান না নতুন মোহন কোচ। কাশ্যপের মোহনবাগানের পারফরম্যান্স শিলিগুড়িতে বসে দেখেছেন। মাঝে দুই মাস কেটে গিয়েছে। সন্তোষকে সরিয়ে তিনি দায়িত্ব নিয়েছেন। সন্তোষের জমানার ব্যর্থতা কাটিয়ে নতুন মোহনবাগান তৈরির কাজ চালিয়ে যেতে চান করিম। কাশ্যপ জমানা ছাড়িয়ে কতটা বদলেছে মোহনবাগান। ডিফেন্সিভ করিমের জবাব,ওডাফাদের মধ্যে বেড়েছে সংগঠন।
এদিকে অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলতে যাওয়ার আগে প্রতিপক্ষের থেকে করিমের চিন্তার বিষয় রয়েছে,ঠাসা সূচির ফলে গোয়া-মুম্বই ঘনঘন যাতায়াত। ২৫ তারিখ পুণেতে মুম্বই এফসি ম্যাচ খেলেই ২৬ তারিখ গোয়ায় রওনা দেবে দল। ২৮ তারিখ ডেম্পো ম্যাচ খেলেই পরের দিন মোহনবাগানকে আবার পুণেতে আসতে হবে পুনে এফসি ম্যাচ খেলতে।



First Published: Thursday, November 22, 2012 - 20:45


comments powered by Disqus