মোহনবাগানে চতুর্থ বিদেশি এডিনহো জুনিয়র!

সবকিছু ঠিকঠাক চললে লাইবেরিয়ান ফুটবলার এডিনহো জুনিয়র উইলসনই হতে চলেছেন মোহনবাগানের চতুর্থ বিদেশি। রন্টি মার্টিন্সের দিকে ঝুঁকে থাকলেও মোহনবাগান কর্তারা আশা ছেড়ে দিয়েছেন নাইজেরীয়কে পাওয়ার ব্যাপারে। মোহনবাগানের হাতে ছিল ক্যামেরুন বেল ও এডিনহো জুনিয়রের বায়োডাটা। ক্লাবের গোপন সূত্রের খবর, এডিনহো জুনিয়রই নাকি চতুর্থ বিদেশি হিসেবে পড়তে চলেছেন সবুজ-মেরুন জার্সি। ইতিমধ্যেই মোহনবাগানকে তিন বিদেশিকে দলে নিয়েছে। এঁরা হলেন ওডাফা, কাটসুমি আর ইচে।

Updated: Jun 17, 2013, 06:54 PM IST

সবকিছু ঠিকঠাক চললে লাইবেরিয়ান ফুটবলার এডিনহো জুনিয়র উইলসনই হতে চলেছেন মোহনবাগানের চতুর্থ বিদেশি। রন্টি মার্টিন্সের দিকে ঝুঁকে থাকলেও মোহনবাগান কর্তারা আশা ছেড়ে দিয়েছেন নাইজেরীয়কে পাওয়ার ব্যাপারে। মোহনবাগানের হাতে ছিল ক্যামেরুন বেল ও এডিনহো জুনিয়রের বায়োডাটা। ক্লাবের গোপন সূত্রের খবর, এডিনহো জুনিয়রই নাকি চতুর্থ বিদেশি হিসেবে পড়তে চলেছেন সবুজ-মেরুন জার্সি।
*২৪ ঘণ্টা এক্সক্লুসিভ নিউজ (বিস্তারিত জানতে দেখুন আজ রাত সাড়ে দশটা স্পোর্টস চব্বিশ অনুষ্ঠানে, ২৪ ঘণ্টা নিউজ চ্যানেলে)
ইতিমধ্যেই মোহনবাগানকে তিন বিদেশিকে দলে নিয়েছে। এঁরা হলেন ওডাফা, কাটসুমি আর ইচে।
এদিকে ক্লাইম্যাক্স লরেন্সের দিকে ইস্টবেঙ্গল ঝুঁকে থাকলেও,রবিবার রাতে নাকি গোয়ায় উপস্থিত মোহনবাগান কর্তারা ফোন করেন ক্লাইম্যাক্সকে। দলগঠনের শেষদিকে মোহনবাগান কর্তারা এখন তাকিয়ে রয়েছেন গোয়ার ফুটবলারদের দিকে। সকালে অ্যান্টনি পেরেরাকে সই করার পর এবার তাঁদের পরবর্তী টার্গেট ক্লাইম্যাক্স লরেন্স।
এদিকে, অগ্রিম নেওয়ার পরও মোহনবাগানের হাতছাড়া হতে বসেছিলেন অ্যান্টনি পেরেরা । ইস্টবেঙ্গলের নজরে থাকা অ্যান্টনি মোহনবাগানকে পাকা কথা দিয়েছেন জানার পরই নড়েচড়ে বসেন লালহলুদ কর্তারা। গোয়ায় থাকা তাঁদের এক ফুটবলারের মাধ্যমে তাঁরা অ্যান্টনিকে বোঝানোর কাজ শুরু করেন।
ফলে অ্যান্টনিকে সই করাতে রবিবার সকালে মোহনবাগানের এক কর্তা গোয়ায় পৌঁছে গেলেও সই করেননি অ্যান্টনি। কয়েকদিন আগে অগ্রিম নিয়ে নিলেও ডেম্পোর মিডফিল্ডারের গড়িমসি দেখে চাপে পড়ে যান সবুজ-মেরুনের কর্তারা। শেষপর্যন্ত আসরে নামেন সদ্য মোহনবাগানে যোগ দেওয়া ডেম্পোর ডিফেন্ডার রাউইলসন রডরিগেজ। অ্যান্টনির সঙ্গে কথা বলেন তিনি।
সোমবার সাতসকালেই মোহনবাগানে সই করে দেন অ্যান্টনি পেরেরা। একবছরের জন্য সবুজ-মেরুনের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হলেন তিনি।  অ্যান্টনির সই হয়ে যাওয়ায় কলকাতায় স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন ক্লাবের শীর্ষকর্তারা।