মশাল আর মরগ্যান ম্যাজিকে মাতোয়ারা ময়দান

মশাল আর মরগ্যান ম্যাজিকে মাতোয়ারা ময়দান

কলকাতা ময়দান এখন মশালের আলোয় উজ্জ্বল। শিলিগুড়ি থেকে লালহলুদ রং মেখে ফেড কাপের ঠিকানা ইস্টবেঙ্গল তাঁবু। টোলগে টানাপোড়েনকে কয়েক যোজন দূরে নির্বাসিত করে ইস্টবেঙ্গল আবার ভারত সেরা। চিডি থেকে অর্ণব, মননদীপ থেকে মেহতাব, সবার বসবাস এখন ``ক্লাউড নাইনে।``

Updated: Oct 1, 2012, 09:13 PM IST

কলকাতা ময়দান এখন মশালের আলোয় উজ্জ্বল। শিলিগুড়ি থেকে লালহলুদ রং মেখে ফেড কাপের ঠিকানা ইস্টবেঙ্গল তাঁবু। টোলগে টানাপোড়েনকে কয়েক যোজন দূরে নির্বাসিত করে ইস্টবেঙ্গল আবার ভারত সেরা। চিডি থেকে অর্ণব, মননদীপ থেকে মেহতাব, সবার বসবাস এখন ``ক্লাউড নাইনে।``

ইস্টবেঙ্গলে এখন মরগ্যান জমানা। কলকাতা ময়দানে বিদেশি কোচেরা সাফল্য পান না, এই আপ্তবাক্যকে সাইডলাইনের বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছেন এই ব্রিটিশ কোচ। দেশে বাংলা ফুটবলের একাধিপত্যের যুগ কবেই অস্তমিত। গোয়ার ক্লাবগুলোর দাপটে বাংলা এখন কোনঠাসা। কিন্তু মরগ্যান আসার পর থেকে গত তিন বছরে গোয়ান দলগুলোর সঙ্গে সমানে সমানে টেক্কা দিয়েছে ইস্টবেঙ্গল। লাল-হলুদের দায়িত্ব নিয়ে তিন বছরের মধ্যে দুবার ফেড কাপ জেতা হয়ে গেল ইস্টবেঙ্গেলর।
তবে এবারে ডেম্পোকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ান হওয়ার থেকেও কটকে চিরপ্রতিন্দন্দ্বী মোহনবাগানকে হারিয়ে ফেডকাপ জয়কেই এগিয়ে রাখছেন মরগ্যান। রবিবার ইস্ট কোচের জন্মদিন ছিল। ফেড কাপ জিতে দলের ছেলেরা ইতিমধ্যেই তাঁকে জন্মদিনের সেরা উপহারটা দিয়ে দিয়েছেন। তবে দুবার ফেড কাপ জিতলেও এখনও পর্যন্ত আই লিগ অধরাই রয়ে গেছে ইস্ট কোচের। এবার সেই স্বপ্ন পূরণ করতেই ঝাঁপাতে চান লাল-হলুদ কোচ।