সেরে উঠছেন নবি

কালকের ম্যাচে আহত মোহনবাগানের রহিম নবির অবস্থা এখন স্থিতিশীল। আজ দুপুরেই অস্ত্রোপচার হয় নবির। এদিন সকাল থেকেই হাসপাতালে নবিকে দেখতে আসেন দুই শিবিরের কর্তা ও ফুটবলাররা। মোহনবাগান সচিব অঞ্জন মিত্র সহ আসেন অনেক কর্তারাই। নবিকে দেখতে আসেন শান্তিরঞ্জন দাশগুপ্ত, দেবব্রত সরকারের মত ইস্টবেঙ্গলের শীর্ষকর্তারাও। তাঁকে দেখতে আসেন সহ খেলোয়াড়রাও। টোলগে-করিমের পাশাপাশি সুশান্ত ম্যাথু, সুবোধকুমার, ইসফাকরাও হাসপাতালে আসেন নবিকে দেখতে।

Updated: Dec 10, 2012, 08:30 PM IST

কালকের ম্যাচে আহত মোহনবাগানের রহিম নবির অবস্থা এখন স্থিতিশীল। আজ দুপুরেই অস্ত্রোপচার হয় নবির। এদিন সকাল থেকেই হাসপাতালে নবিকে দেখতে আসেন দুই শিবিরের কর্তা ও ফুটবলাররা।
মোহনবাগান সচিব অঞ্জন মিত্র সহ আসেন অনেক কর্তারাই। নবিকে দেখতে আসেন শান্তিরঞ্জন দাশগুপ্ত, দেবব্রত সরকারের মত ইস্টবেঙ্গলের শীর্ষকর্তারাও। তাঁকে দেখতে আসেন সহ খেলোয়াড়রাও। টোলগে-করিমের পাশাপাশি সুশান্ত ম্যাথু, সুবোধকুমার, ইসফাকরাও হাসপাতালে আসেন নবিকে দেখতে।
রবিবার ডার্বি ম্যাচে দর্শকের ছোঁড়া ইটের আঘাতে জখম হন রহিম নবি। একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। মাথায় চারটি সেলাই পড়েছে নবির। সিটি স্ক্যানে কিছু না মিললেও কান ও চোয়ালের হাড়ের মাঝে চিড় ধরেছে তাঁর। সোমবার দুপুরে অস্ত্রোপচার হয় নবির।
ম্যাচের পর রবিবার রাতেই হাসপাতালে নবিকে দেখতে যান দুই শিবিরের কর্তারা। হাসপাতালে যান ক্রীড়ামন্ত্রী মদন মিত্র। রাতে নবিকে দেখতে হাসপাতালে যান আইএফএ সচিব উত্‍‍‍পল গাঙ্গুলি।
আগামী পাঁচ থেকে ছয় দিনের মধ্যেই হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হবে নবিকে। চিকিত্সকরা জানিয়েছেন, পুরো সুস্থ হয়ে মাঠে ফিরতে কমপক্ষে দেড়মাস সময় লাগবে নবির।