বাংলা থেকে ম্যানচেস্টার: বিতর্কে সেই রেফারি

Last Updated: Wednesday, March 6, 2013 - 21:54

ফুটবলের বয়স যত বাড়ছে ততই রেফারি বিতর্কের ভূত তত বাড়ছে। বিশ্বের দুই প্রান্তের দুই ফুটবল প্রতিযোগিতায় রেফারিং নিয়ে বড় বিতর্ক বাঁধল। একটা বাঁধল বিশ্বের সেরা ক্লাব প্রতিযোগিতায় আর অন্যটা বাঁধল রুগ্ন ঐতিহ্যের প্রতীক আইএফে শিল্ডে।
আসুন দেখেনি কীভাবে রেফারি বিতর্ক মিলল বাংলা থেকে ম্যানচেস্টার--

ঘটনা ১-- চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রিয়াল বনাম ম্যান ইউয়ের মত হাইপ্রোফাইল ম্যাচে রুনি-রোনাল্ডোদের ছাপিয়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রেফারি ক্যাকির। রেফারিংয়ে বিরক্ত হয়ে ম্যাচ শেষে সাংবাদিক সম্মেলনেই এলেন না ম্যান ইউ কোচ অ্যালেক্স ফার্গুসন। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায়ের পর সাংবাদিক সম্মেলন করেন ম্যান ইউয়ের সহকারি ম্যানেজার মাইক ফেলান। নানির লালকার্ডের সিদ্ধান্তে হতাশ গোটা ম্যান ইউ শিবির।
সাংবাদিক সম্মেলনে এসে সেকথাই বলে যান রুনিদের সহকারি ম্যানেজার। নানি লালকার্ড দেখে বেরিয়ে যাওয়ার আগে পর্যন্ত ম্যাচের দখল ছিল ম্যান ইউয়ের হাতে।এক গোলে এগিয়েও ছিল তারা। কিন্তু রেফারির বিতর্কিত সিদ্ধান্তের পরই ম্যাচ থেকে হারিয়ে যায় রেড ডেভিলরা।

ঘটনা ২-- ইস্টবেঙ্গল-ওএনজিসি ম্যাচে রেফারি অ্যান্ড্রু শেখরের রেফারিং প্রশ্নের মুখে। তবুও রেফারিংকে ভিন্ন সুর দুই কোচের। ম্যাচ হারের পর ওএনজিসি কোচ সন্তোষ কাশ্যপ একরাশ ক্ষোভ উগড়ে দিলেন রেফারিংয়ের বিরুদ্ধে। তবে ম্যাচ জয়ের পর রেফারিং নিয়ে কোনও অভিযোগ আনলেন না ইস্টবেঙ্গল কোচ। শিল্ড যত এগোচ্ছে ততই বাড়ছে রেফারিং নিয়ে বিতর্কও।



First Published: Wednesday, March 6, 2013 - 22:00


comments powered by Disqus