তালিবানি হুমকির পরই ইউনিসেফের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর সচিন

তালিবানি হুমকির মুখে পড়ার দিনেই ইউসেফের দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হলেন সচিন তেন্ডুলকর। সচিন জানান, "আমার জীবনের এই সুন্দর দ্বিতীয় ইনিংস সূচনা করার জন্য ধন্যবাদ। আমি ইউনিসেফের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হয়ে আমার সেরাটা দেওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী।" এটা আমার কাছে সত্যিই খুব গুরুত্বপূর্ণ। গত ৮-১০ বছর ধরে ইউনিসেফের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন সচিন। তাঁকে আগামী ২ বছরের জন্য ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর নিযুক্ত করেছে ইউনিসেফ।

Updated: Nov 28, 2013, 10:49 PM IST

তালিবানি হুমকির মুখে পড়ার দিনেই ইউসেফের দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হলেন সচিন তেন্ডুলকর। সচিন জানান, "আমার জীবনের এই সুন্দর দ্বিতীয় ইনিংস সূচনা করার জন্য ধন্যবাদ। আমি ইউনিসেফের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হয়ে আমার সেরাটা দেওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী।" এটা আমার কাছে সত্যিই খুব গুরুত্বপূর্ণ। গত ৮-১০ বছর ধরে ইউনিসেফের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন সচিন। তাঁকে আগামী ২ বছরের জন্য ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর নিযুক্ত করেছে ইউনিসেফ।

সচিন এ দিন তাঁর সবথেকে বড় চিন্তার বিষয়গুলি তুলে ধরেন। বলেন, "পৃথিবীর ৩৬ শতাংশ মানুষ জানেনই না পরিচ্ছন্ন ও নিরাপদ শৌচালয় বলতে কী বোঝায়। আজকের দিনে এবং আগামী সময়ে এটা সত্যিই চিন্তার বিষয়। আমাদের দেশে মহিলারাই সংসার চালান। তাঁদের রান্না করতে হয়, সন্তানদের খাওয়াতে হয়। খোলা মাঠে মলমূত্র ত্যাগ করার পর ভাল করে সাবান দিয়ে হাত না ধুয়ে বাড়ি ফিরলে পুরো পরিবারই অসুস্থ হয়ে পড়তে পারে। শিশুমৃত্যুর ব্যাপারও আমাকে ভাবায়। প্রতিদিন ১৬০০ শিশু ডায়রিয়ায় মারা যায়। আমি চাই মানুষের মধ্যে সাধারণ সচেতনতা গড়ে তোলার জন্য ইউনিসেফকে সবরকম সাহায্য করতে।"