জন্মদিনে এই প্রথম নেটে নয় বুথে গেলেন সচিন

৪২-এ পা দিলেন সচিন তেন্ডুলকর। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে জন্মদিনের অনুষ্ঠান পালন করেন মাস্টার ব্লাস্টার। এদিন সকালে সস্ত্রীক ভোট দিতে যান সচিন। ভোটারদের শান্তিতে ভোট দেওয়ার আহ্বানও করেন তিনি।

Updated: Apr 24, 2014, 05:25 PM IST

৪২-এ পা দিলেন সচিন তেন্ডুলকর। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে জন্মদিনের অনুষ্ঠান পালন করেন মাস্টার ব্লাস্টার। এদিন সকালে সস্ত্রীক ভোট দিতে যান সচিন। ভোটারদের শান্তিতে ভোট দেওয়ার আহ্বানও করেন তিনি।

জীবনের ৪১টি বসন্ত পেরিয়ে ৪২ পা দিলেন সচিন রমেশ তেন্ডুলকর। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের চাপে নিজের ব্যক্তিগত জীবনের অনেক স্মরণীয় মূহুর্তকে উপেক্ষা করে তাঁকে থাকতে হয়েছে ক্রিকেটের বাইশ গজে। জন্মদিন পালন তো দূরের কথা পরিবারের সদস্য অনুরাগীদের শুভেচ্ছা গ্রহণ করার সময়টা পর্যন্ত পাননি তিনি। তবে এবারের জন্মদিনের চিত্রটা অন্যবারের থেকে সম্পূর্ণ ভিন্ন।

অন্যান্য বছরে ক্রিকেটের ব্যস্ততায় পরিবারের সদস্যরা এমনকী প্রিয় বন্ধুরা তাঁকে নিয়ে জন্মদিন পালনের কথা ভাবতেই পারতেন না। কখনও কখনও এমনও হয়েছে সচিনের জন্মদিনের কেক কাটতে স্ত্রী অঞ্জলি, কণ্যা সারা ও পুত্র অর্জুনকে ছুটে যেতে হয়েছে বিদেশে। আবার কখনও নিজের শহরে না থাকার জন্য দেশের মধ্যেই অন্য কোথাও সচিনকে জন্মদিন পালন করতে হয়েছে। এবার অবশ্য তা করেননি মাস্টার ব্লাস্টার।

পাঁচ মাস আগে ক্রিকেটের সওদাগর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে ফেলেছেন। কিন্তু দায়িত্ব কি আর কমেছে? একদিকে সাংসদ হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে। অন্যদিকে দুবাইতে আইপিএল চলছে বলে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দলের মেন্টর হিসাবে তাঁকে যেতে হয়েছিল। কিন্তু এবার পারিবারিক দায়বদ্ধতা এড়িয়ে যেতে পারেননি সচিন। বৃহস্পতিবার সচিন নিজের বাড়িতে উপস্থিত থেকে পরিবার ও বন্ধুদের সঙ্গে মাতলেন জন্মদিনের উতসবে। শুধু তাই নয় দেশের সাধারণ নির্বাচনে ভোটও দিলেন সস্ত্রীক সচিন। শান্তিতে ভোট দেওয়ার জন্য ভোটারদের আহ্বান জানান সচিন।