একদিনের ক্রিকেট থেকে অবসর সচিনের

Last Updated: Sunday, December 23, 2012 - 11:51

একদিনের ক্রিকেট 'অনাথ' হয়ে গেল। একদিনের ক্রিকেট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করলেন সচিন তেন্ডুলকর। ভারত-পাক সিরিজ শুরুর আগেই একদিনের ক্রিকেট থেকে এই অবসরের সিদ্ধান্তের খবর রবিবার সকালে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ পেতেই দেশ জুড়ে আলোড়ন পড়ে যায়। শেষ হল ২৩ বছরের একদিনের ইনিংস। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের পক্ষ থেকেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ওয়ান থেকে অবসর নিচ্ছেন সচিন।
শোনা যাচ্ছে বোর্ড সভাপতি শ্রীনিবাসনের সঙ্গে কথা বলার পরই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন লিটল মাস্টার। তিনি বোর্ড কর্তাদের, তাঁর দলের সতীর্থদের ও দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন, তাঁর সঙ্গে দীর্ঘদিন থাকার জন্য। তাঁকে সব পরিস্থিতে সমর্থন করে যাওয়ার জন্য। সচিন জানিয়েছেন, অনেক ভাবনা চিন্তার পরই তিনি এই অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সেই সঙ্গে জানিয়েছেন, তাঁর শরীর, মন আর একদিনের ক্রিকেটের ধকল নিতে পারছিল না। মাস্টার ব্লাস্টার জানান, বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদ্য হতে পেরে তিনি গর্বিত। তাঁর পাশে থাকার জন্য গোটা দেশকে ধন্যবাদ জানিয়েছন তিনি। একইসঙ্গে ভারতীয় দলের তরুণ প্রজন্মকেও শুভেচ্ছা জানাতে ভোলেননি মাস্টার ব্লাস্টার । একদিনের ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেও এখনও টেস্ট ক্রিকেট খেলা চালিয়ে যাবেন সচিন।
বিশ্ব ক্রিকেটের 'সব পেয়েছির দেশের' বাসিন্দা সচিনের অবসর জল্পনা চলছিল বেশ কয়েকদিন ধরেই। শেষ মুহূর্তে অবসরের সিদ্ধান্ত এল এমন একটা দিনে যে দিন পাকিস্তান সিরিজিরে জন্য ভারতীয় দল নির্বাচন। ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের পরেই সচিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাঁর স্বপ্নপূরণ করে ফেলে ছিলেন। এরপর অন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শততম শতরানের মালিকও হয়েছেন। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সদ্য শেষ হওয়া টেস্ট সিরিজেও সেভাবে ফর্মে ছিলেন না।
ঢাকায় শেষ একদিনের ম্যাচ খেলেছিলেন সচিন। তাঁর বর্ণময় ক্যারিয়ারে তিনি ৪৬৩টি একদিনের ম্যাচ খেলেছেন। একদিনের ক্রিকেটে ১৮,৪২৬ রান করেছেন লিটল মাস্টার। একদিনের ক্রিকেট কেরিয়ারে তাঁর সর্বোচ্চ রান ২০০। ওয়ানডে ক্রিকেটে প্রথম দ্বিশতরান করা সচিনের এই ইনিংসটা আসে দক্ষিণ আফ্রিকা।
জীবন থেমে থাকে না, সময় থেকে থাকে না। সচিনের অবসরের পরেও ওয়ান ডে ক্রিকেট চলবে। ক্রিকেটাররা রঙিন জার্সি গায়ে মাঠে নামবেন। কিন্তু একের পর এক রেকর্ড গড়ে একদিনের ক্রিকেটকে সাফল্যের এভারেস্টে নিয়ে গিয়েছেন যিনি, তাঁর চিরকালীন অনুপস্থিতিটা একদিনের ক্রিকেটের রঙিন আবহকে কোথায় যেন বর্ণহীন করে দিল। আজকের দিনটা ওয়ানডে ক্রিকেটের হতাশার দিন। তবে সচিন পাঁচ দিনের ক্রিকেটে সাদা জার্সি চাপিয়ে দেশের পতাকা তুলে ধরবেন, সেটাই সান্ত্বনার। প্রথমে টি টোয়েন্টি, এবার ওয়ানডে, এরপর হয়তো---। থাক, আজকের আক্ষেপের দিনে হতাশা নয় সান্ত্বনা নিয়েই থাকাই ভাল।



First Published: Sunday, December 23, 2012 - 23:12


comments powered by Disqus