মোহনবাগানে ফিরছেন সুব্রত পাল!

ফের মোহনবাগানে ফিরতে পারেন জাতীয় দলের গোলকিপার সুব্রত পাল। সুব্রতকে দলে নিতে আগ্রহী সবুজ-মেরুন কর্তারাও। এই মরসুমে পুণে এফ সি ছেড়ে প্রয়াগে এসেছিলেন সুব্রত। কিন্তু কোচ এলকোর সঙ্গে বিরোধে সেভাবে খেলার সুযোগই পাননি। তাই দল ছাড়তে চান ভারতের অন্যতম সেরা গোলকিপার। সুব্রতর কাছে বেশ কয়েকটি ক্লাবের অফার থাকলেও, মোহনবাগানের অফার বেশ ভাল। শোনা যাচ্ছে মোহনবাগান কর্তাদের সঙ্গে তাঁর একপ্রস্ত কথাও হয়েছে। ২০০৪ সালে মোহনবাগান থেকেই বড় ক্লাবে তার কেরিয়ার শুরু করেছিলেন সুব্রত। সুব্রত পাল নিশ্চিত হয়ে গেলে শিল্টন পালকে ছেড়ে দিতে পারে মোহনবাগান।

Updated: Apr 9, 2013, 08:33 PM IST

ফের মোহনবাগানে ফিরতে পারেন জাতীয় দলের গোলকিপার সুব্রত পাল। সুব্রতকে দলে নিতে আগ্রহী সবুজ-মেরুন কর্তারাও। এই মরসুমে পুণে এফ সি ছেড়ে প্রয়াগে এসেছিলেন সুব্রত। কিন্তু কোচ এলকোর সঙ্গে বিরোধে সেভাবে খেলার সুযোগই পাননি। তাই দল ছাড়তে চান ভারতের অন্যতম সেরা গোলকিপার। সুব্রতর কাছে বেশ কয়েকটি ক্লাবের অফার থাকলেও, মোহনবাগানের অফার বেশ ভাল। শোনা যাচ্ছে মোহনবাগান কর্তাদের সঙ্গে তাঁর একপ্রস্ত কথাও হয়েছে। ২০০৪ সালে মোহনবাগান থেকেই বড় ক্লাবে তার কেরিয়ার শুরু করেছিলেন সুব্রত। সুব্রত পাল নিশ্চিত হয়ে গেলে শিল্টন পালকে ছেড়ে দিতে পারে মোহনবাগান।
বেশ কিছু ম্যাচ ধরে মোহনবাগানের প্রথম আঠেরোয় জায়গা পাচ্ছেন না জাতীয় দলের মিডফিল্ডার জুয়েল রাজা। শোনা যাচ্ছিল ইস্টবেঙ্গল, ডেম্পোর কাছ থেকে অফার পাওয়ার জন্যই করিম দলে রাখছেন না তাঁকে। তবে দল থেকে বাদ পরার জন্য নিজেকেই দায়ী করছেন মোহনবাগানের এই মিডফিল্ডার। তাঁর মতে,পারফরম্যান্স খারাপ হওয়ার জন্যই বাদ পড়তে হয়েছে তাঁকে।
অনুশীলনে কঠোর পরিশ্রম করছেন জুয়েল। ভাল পারফরম্যান্স করে দলে ফিরতে বদ্ধপরিকর তিনি।