দিনের শেষে ভারত চাপে থাকলেও সচিনই সেরা

Last Updated: Wednesday, December 5, 2012 - 17:31

ইন্ডিয়া- ২৭৩/৭
মহেন্দ্র সিং ধোনি-২২ (ন:আ:)
জাহির খান-০ (ন:আ:)
সচিন আউট! প্রায়র কি মাটিতে ছুঁয়ে যাওয়া বলটিকে ধরে ফেললেন! ইডেন গ্যালারিতে এমনই প্রশ্ন ঘোরাঘুরি করছিল। সচিন যখন প্যাভিলিয়নের দিকে রওনা দিচ্ছেন কিছুক্ষণের জন্য সারা গ্যালারি স্তম্ভিত। জেমস অ্যান্ডারসনের বলে ৭৬ রানে আউট হন তিনি। আর সেইসঙ্গে ক্রিকেট দুনিয়ায় তাঁর অবসর নিয়ে যে জল্পনা তৈরি হয়েছিল, তাতে কিছুটা হলেও ছেদ পড়ল।
ভারত টসে জিতে প্রথম ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু শুরুতেই ধোনিবাহীনি হোঁচট খায় ব্রিটিশ বোলারদের কাছে। বীরেন্দ্র সেওয়াগ মাত্র ২৩ রান করে রান আউট হন। আমেদাবাদ, ওয়াংখেড়েতে আকাশচুম্বী সাফল্যের পর ইডেনকে চেতাশ্বর পুজারা আজ তেমন কিছুই ব্যাটিং নৈবেদ্য দিতে পারেননি। মাত্র ১৬ রান করে মন্টি পানেসরের বলে বোল্ড আউট হন। কিন্তু ইডেন দর্শকদের কাছে যাঁকে নিয়ে সব থেকে বেশি প্রত্যাশা ছিল সেই লিটল মাস্টার আজ ঝলসে ওঠেন।
ক্রিকেট জীবনে অনেকটা পথ পার হলেও ইডেনের বাইশ গজে তাঁকে আজ অনেক দুর হাঁটতে হবে, তাঁর খেলার ভঙ্গিমাই সেকথা বয়ান করছিল। তাঁর কেরিয়ারে শতরানের অভাব নেই। যেখানে পৃথিবীর তাবড় তাবড় বোলারদের রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছিলেন, সেখানে পানেসর, সোয়ানরাতো কিছুই নন। কিন্তু সচিনের লড়াই ছিল শুধু নিজের সঙ্গে। একটা ছোটো ভুল, ক্রিকেট জগতে আবার বিতর্কের সুনামি তুলতে পারে। এত চাপের বোঝা নিয়েও তাঁকে কখনও পানেসরের একহাত টার্ন করা লেগস্পিনকে ছাড়তে হচ্ছে। আবার অ্যান্ডারসনের বাউন্স বলকে নিঁখুত শিল্প কায়দায় বাউন্ডারিতে পাঠিয়ে দিচ্ছেন তিনি। দশ মাস পর তাঁর এমন রাজকীয়ভাবে ফিরে আসা প্রমাণ করেদিল ক্রিকেটে একমাত্র তিনিই জানেন কখন তাঁকে অবসর নিতে হবে। তিনি মাত্র ১৫৫ বল খেলে ৭৬ রান করেন সঙ্গে ছিল ১৩টি বাউন্ডারি।
গৌতম গম্ভীরও অনেকদিন পর ছন্দে ফিরেছেন। তিনি ৬০ রান করেন। এছাড়া বিরাট কোহলি ৬, যুবরাজ সিং ৩২ ও অশ্বিন ২১ রান করেন। দিনের শেষে ক্রিজে টিকে রয়েছেন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ২১। আর জাহির খান শূণ্য রানে অপরাজিত।



First Published: Wednesday, December 5, 2012 - 17:43


comments powered by Disqus