ডোপ টেস্ট করা হতে পারে বিজেন্দরের

ডোপ টেস্ট করা হতে পারে বিজেন্দরের

ডোপ টেস্ট করা হতে পারে বিজেন্দরেরড্রাগ বিতর্কে অস্বস্তি বাড়ছে বেজিং অলিম্পিকে পদকজয়ী বক্সার বিজেন্দর সিংয়ের। শোনা যাচ্ছে জাতীয় অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সিকে দিয়ে ডোপ টেস্ট করানো হতে পারে তারকা এই বক্সারকে। ড্রাগ বিতর্কের জেরে জাতীয় স্পোর্টস ইন্সটিট্যুট থেকে সরিয়ে দেওযা হয়েছে বিজেন্দরের সতীর্থ বক্সার রাম সিংকে। এই বক্সার পুলিসি জেরায়  স্বীকার করেছেন যে তিনি এবং বিজেন্দার ফুড সাপ্লিমেন্ট বলে ভুল করে ড্রাগ নিয়েছিলেন।

এই স্বীকারোক্তির পরই বিজেন্দরের ডোপ টেস্ট করা হবে বলে জানা যাচ্ছে। এর আগে কখনও ডোপ টেস্টে অনুত্তীর্ন হননি চ্যাম্পিয়ন এই বক্সার। রাম সিংকে আটক করলেও, এখনও বিজেন্দরকে জেরা করেনি পুলিস। তবে পাঞ্জাব পুলিস সূত্রের খবর, এই দুই বক্সার ড্রাগ নিলেও মাদক পাচারের সঙ্গে যুক্ত নন বলেই তাঁদের ধারনা।

প্রসঙ্গত, পুলিশ হেফাজতে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল বক্সার বিজেন্দর সিংকে মাদক পাচারের ঘটনায় জড়িত মাদক -ব্যবসায়ী অনুপ সিং কাহলোন৷ জেরার মুখে বিজেন্দর ও আর এক বক্সার রাম সিংকে মাদক পাচার করার কথা স্বীকারও করে সে৷ তার পরেই শনিবার স্নানের সময়ে বালতির লোহার হাতল দিয়ে কবজির শিরা কেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করে অনুপ৷ অন্য দিকে পুলিশের দাবি , শুক্রবার জেরার মুখে ওই ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে তাঁর ও বিজেন্দরের জন্য হেরোইন কেনার কথা স্বীকার করেছেন রাম সিং৷

পুলিশের দাবি , অনুপ কাহলোনকে ২০০৭ সাল থেকে চেনার কথা কবুল করেছেন রাম৷ তাদের আরও দাবি , গত বছরের ডিসেম্বর মাসে বিজেন্দরের সঙ্গে অনুপের আলাপ করিয়ে দেন রামই৷ এই সময় থেকেই তাঁরা দু’জন মাদক নেওয়া শুরু করেন বলে জানিয়েছে পুলিশ৷ রামের দাবি , তখন থেকে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত নাকি অনুপের কাছ থেকে অন্তত ৬ বার মাদক নিয়েছেন তিনি ও বিজেন্দর৷ তবে এই দাবির সত্যতা এখনও খতিয়ে দেখা হয়নি বলে জানান এসএসপি এইচ এস মান৷ বিজেন্দর আপাতত মুম্বইয়ে একটি সিনেমার শ্যুটিংয়ে ব্যস্ত৷ তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হবে কিনা , তা নিয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি বলে এ দিন জানিয়েছে পুলিশ৷ প্রসঙ্গত , শুক্রবারই অনুপকে ব্যক্তিগতভাবে চেনার কথা অস্বীকার করেন বিজেন্দর৷

কিছুদিন আগে মোহালির জিরকাপুরে ১৩০ কোটি টাকার হেরোইন -সহ ধরা পড়ে অনুপ ও তার পাঁচ সহযোগী৷ শুক্রবার অনুপের ফ্ল্যাটের সামনে থেকে উদ্ধার হয় বিজেন্দরের স্ত্রী অর্চনার গাড়ি৷ পুলিশকর্তারা জানিয়েছেন , তার আঘাত খুব একটা গুরুতর নয়৷ মাদক -পাচারের অভিযোগের পাশাপাশি এখন আত্মহত্যার চেষ্টার অভিযোগও আনা হবে চলেছে অনুপের বিরুদ্ধে৷ ধৃত ৬ অভিযুক্তকে আপাতত দফায় দফায় জেরা করা হচ্ছে৷ --- সংবাদসংস্থাগত বছরের ডিসেম্বর মাসে বিজেন্দরের সঙ্গে অনুপের আলাপ করিয়ে দেন রামই৷ ওই সময় থেকেই তাঁরা দু’জন মাদক নেওয়া শুরু করেন বলে জানিয়েছে পুলিশ৷ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত নাকি অনুপের কাছ থেকে অন্তত ৬ বার মাদক নিয়েছেন তিনি ও বিজেন্দর৷

First Published: Sunday, March 10, 2013, 15:55


comments powered by Disqus