শিশির, সিমন্স আর স্যামিতে হার ধোনিদের, সিরিজ ১-১

Last Updated: Sunday, November 24, 2013 - 21:59

ভারত- ২৮৮/৭ (কোহলি-৯৯, ধোনি- ৫১, রবি রামপাল- ৪/৬০। ওয়েস্ট ইন্ডিজ- ২৮৯/৮ (স্যামি- ৬৩ অপ, সিমন্স-৬২, অশ্বিন ২/৩৭)
ম্যাচের ফল-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২ উইকেটে জয়ী। ম্যাচের সেরা-ডারেন স্যামি
ওয়েস্ট ইন্ডিজের ঘুম ভাঙল। বিশাখাপত্তনামে ওয়ানডে দ্বিতীয় ম্যাচে ২ উইকেটে জিতে সিরিজে সমতায় ফিরে এল ক্যারিবিয়ানরা। তিন ম্যাচের সিরিজ এখন ১-১। ২৭ নভেম্বর, বুধবার কানপুরে শেষ ম্যাচে ফয়সালা হবে সিরিজের।
১৮৫ রানে দলের অর্ধেক ইনিংস গুঁটিয়ে যাওয়ার পরেও ডিয়ন ব্রাভোর দল জিতল ৪ উইকেটে। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে সিমন্স আর স্যামির অনবদ্য ৮২ রানের পার্টনারশিপ জয়-পরাজয়ে ব্যবধান গড়ে দিল। শিশির ভেজা মাঠে বল গ্রিপ করতে রীতিমত হিমশিম খাচ্ছিলেন ভারতীয় বোলাররা। সেই সুযোগটা দারুণভাবে কাজে লাগিয়ে নায়ক বনে গেলেন টেস্ট সিরিজে ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক ডারেন স্যামি।
ইনিংসের ৪৬ তম ওভারে মহম্মদ সামির বলে ১৪ রান তুলে নিয়ে জয়ের ভিত অনেকটাই গড়ে দেন স্যামি। পরের ওভারে সিমন্স (৬২)-কে ফিরিয়ে আশা জাগিয়ে ছিলেন জাদেজা, কিন্তু ঠিক তারপরের ওভারেই সব শেষ। ৪৮ তম ওভারে ভুবনেশ্বরের কুমারের শেষ তিন বলে সামি মারেন পরপর দুটি বাউন্ডারি ও একটি বাউন্ডারি।
বাংলার সামি উইকেট হোল্ডারের উইকেট তুলে নিলেও ক্যারিবিয়ানদের জিততে অসুবিধা হয়নি। সচিন তেন্ডুলকরের শেষ টেস্ট সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পারফরম্যান্স অনেক ধিক্কার আদায় করে নিয়েছিল, গেইলকে ছাড়া ব্রাভো-সামিদের এই জয় সেই ধিক্কারের কাটা ঘায়ে মলম দিল। আর শিশির ফ্যাক্টর সত্ত্বেও ভারতীয় বোলিংকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাল।
এর আগে ভারত নির্ধারিত ৫০ ওভারে করে ২৮৮ রান। মাত্র এক রানের জন্য শতরান থেকে বঞ্চিত হন বিরাট কোহলি। ধোনি দুরন্ত অপরাজিত ৫১ রানের ইনিংস খেলেন।



First Published: Sunday, November 24, 2013 - 21:53
comments powered by Disqus