'মা-কে অনর্গল মনে পড়ে'

হাসিন জাহানের বড় মেয়ের কথায়, "স্কুলে ছুটি পড়লেই মায়ের কাছে যাই। মায়ের সঙ্গে এ বাড়ির কোনও যোগাযোগই নেই। শুধুমাত্র আমাদের সঙ্গেই কথা হয়।"

Updated: Mar 12, 2018, 02:38 PM IST
'মা-কে অনর্গল মনে পড়ে'

নিজস্ব প্রতিবেদন: শামি-হাসিন বিতর্কে এবার সংবাদ শিরোনামে এল হাসিন জাহানের প্রাক্তন স্বামী সেখ সইফুদ্দিন এবং তাঁর দুই মেয়ে। শামির সঙ্গে বিবাদ মিটিয়ে স্বামীর ঘরে ফিরে যান হাসিন, এমনটাই চাইছেন হাসিনের প্রাক্তন স্বামী সেখ সইফুদ্দিন। সমস্ত জটিলতা কাটিয়া, সুখী সংসার গড়ুক মা, চাইছে মেয়েও। মা যে মানসিক অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে, তাতে বিচলিত হাসিনের বড় মেয়ে।

আরও পড়ুন- শামি কাণ্ডে বিসিসিআই-এর কাছে তথ্য চাইল কলকাতা পুলিস

মা - বাবার বিচ্ছেদকে নিয়তি বলে মেনে নিয়েছে হাসিনের বড় মেয়ে। ২৪ ঘণ্টা সে জানিয়েছে, 'মায়ের কথা সব সময় মনে পড়ে।' ফোনে যোগাযোগ থাকলেও মায়ের সঙ্গে মেয়ের দেখা হয় খুবই কম।

আরও পড়ুন- শামি-হাসিন বিতর্কে মুখ খুললেন হাসিনের প্রাক্তন স্বামী

হাসিন জাহানের বড় মেয়ের কথায়, "স্কুলে ছুটি পড়লেই মায়ের কাছে যাই। মায়ের সঙ্গে এ বাড়ির কোনও যোগাযোগই নেই। শুধুমাত্র আমাদের সঙ্গেই কথা হয়।" মায়ের সঙ্গে দেখা না হওয়ায় যে দুই বোনের কাছেই বেদনাদায়ক সেকথাও জানাতে ভোলেনি সে। তার কথায়, "মা এখানে এলেই মায়ের সঙ্গে দেখা হয়।"

আরও পড়ুন- 'আজীবন ওর সঙ্গে থাকতে চাই', হাসিনের 'চক্রান্তে' কান্নায় ভেঙে পড়লেন শামি

বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ যে তাদের মনে গভীর প্রভাব ফেলেছে, সেকথাও উঠে এসেছে ছোট্ট মেয়েটির কথায়। "মা-বাবার কথা কে ভুলে থাকতে পারে? মায়ের কাছে গেলে আবার বাবার কথা মনে পড়ে। নিয়তিই এমন, বাবা-মা একসঙ্গে থাকেন না", ২৪ ঘণ্টাকে একথাই জানিয়েছে হাসিন জাহান এবং সেখ সইফুদ্দিনের বড় মেয়ে।

আরও পড়ুন- 'দাদাকে দিয়ে স্ত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ', শামির বাড়িতে পুলিস

উল্লেখ্য, পরিবারের অমতেই সেখ সইফুদ্দিনকে বিয়ে করেন হাসিন। যদিও, পরে দুই পরিবারের তরফেই বিয়ে মেনে নেওয়া হয়। বিয়ের কয়েক বছরের মধ্যেই জন্ম হয় ২ মেয়ের। ২০১০ সালে সেখ সইফুদ্দিনের সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙে হাসিনের। বিচ্ছেদের পর মেয়েদের নিজের কাছেই রেখেছিলেন হাসিন। পরে ২০১২-তে শামির সঙ্গে হাসিনের সম্পর্কের কথা জানতে পেরে আদালতের কাছে আবেদন করে দুই মেয়েকে নিজের বাড়িতে নিয়ে আসেন সইফুদ্দিন। সেই থেকে সেখ সইফুদ্দিনই তাদের বাবা, সইফুদ্দিনই তাদের মা'। বীড়ভূমের সিউড়িতেই বড় হচ্ছে দুই বোন।

আরও পড়ুন- 'শামির একাধিক যৌনসঙ্গী রয়েছে', আফআইআর-এ অভিযোগ স্ত্রীর

প্রসঙ্গত, ভারতীয় দলের স্পিডস্টার শামির সঙ্গে প্রেম তারপর বিয়ে; সুখীই ছিলেন হাসিন জাহান। সংসারের চিড় ধরায় সম্পর্কের টানাপড়েন। বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক, খুনের চক্রান্ত, বধূ নির্যাতন, দাদাকে দিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা,শামির বিরুদ্ধে এমনই একাধিক অভিযোগ এনেছেন তাঁর সহধর্মিনী হাসিন জাহান। আর সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই তদন্ত শুরু করছে লালবাজারের মহিলা গ্রিভান্স সেল।

 

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close