আজ রাতে অল মাদ্রিদ শো, প্রতীক্ষায় প্রহর গুনছে সারা বিশ্ব

লিসবনে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে মাদ্রিদ ডার্বি। রোনাল্ডোর শহরে রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হচ্ছে লা লিগা চ্যাম্পিয়ন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। দুই স্প্যানিশ জায়েন্টের ধুন্ধুমার লড়াইয়ের অপেক্ষায় ফুটবল বিশ্ব। আজ রাতে ইউরোপ সেরার লড়াই। রোনাল্ডোর শহরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে মাদ্রিদ ডার্বির স্বাক্ষী থাকতে চলেছে ফুটবল বিশ্ব।

Updated: May 24, 2014, 10:08 PM IST

লিসবনে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে মাদ্রিদ ডার্বি। রোনাল্ডোর শহরে রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হচ্ছে লা লিগা চ্যাম্পিয়ন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। দুই স্প্যানিশ জায়েন্টের ধুন্ধুমার লড়াইয়ের অপেক্ষায় ফুটবল বিশ্ব। আজ রাতে ইউরোপ সেরার লড়াই। রোনাল্ডোর শহরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে মাদ্রিদ ডার্বির স্বাক্ষী থাকতে চলেছে ফুটবল বিশ্ব।

ইউরোপীয় ক্লাব ফুটবলের ফাইনালের ইতিহাসে এই প্রথম একই শহরের দুই দল ফাইনাল খেলতে চলেছে। বার্সেলোনা,রিয়াল মাদ্রিদের মত হেভিওয়েট দলকে পেছনে ফেলে ইতিমধ্যেই লা লিগা খেতাব জিতে নিয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। রিয়ালকে টেক্কা দিয়ে ঐতিহাসিক দ্বিমুকুট জেতার হাতছানি দিয়েগো সিমিয়োনের দলের সামনে। তবে মেগা ফাইনালের আগে অ্যাটলেটিকোকে চিন্তায় রাখছে দুই গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলারের চোট। লা লিগার শেষ ম্যাচে হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছিল দিয়েগো কোস্টাকে। সেই চোট কাটিয়ে অনুশীলনে ফিরলেও এখনও পুরোপুরি ফিট নন তারকা এই স্ট্রাইকার। ফলে আজ রাতে তাঁর মাঠে ফেরা অনিশ্চিত। কোস্টার মতই অনিশ্চিতের তালিকায় রয়েছেন আর্দা তুরান।

তবে নিজের প্রথম চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল খেলতে নামার আগে দমছেন না অ্যাটলেটিকো কোচ। কোস্তাকে নিয়ে অনিশ্চয়তা না কাটলেও রিয়ালের জার্সিতে নিজের শহর মাতাতে তৈরি ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। চলতি মরসুমে স্বপ্নের ফর্মে রয়েছেন সিআরসেভেন। লা লিগার মতই চলতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগেরও সর্বোচ্চ গোলদাতা পর্তুগিজ সুপারস্টার। চোটের কারণে আগের কয়েকটা ম্যাচে খেলতে না পারলেও ইউরোপ সেরার লড়াইয়ে নিজের সেরাটা উজাড় করে দিতে তৈরি রোনাল্ডো। দলের সেরা তারকা ফিট হয়ে উঠলেও রিয়াল কোচ কার্লো আনসেলোত্তিকে ভাবাচ্ছে ডিফেন্ডার পেপে আর স্ট্রাইকার করিম বেনজামার চোট। চলতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সবচেয়ে বেশি গোল করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। অন্যদিকে শেষ বারো ম্যাচে মাত্র ছয় গোল হজম করেছে অ্যাটলেটিকো। তাই মেগা ফাইনালে রোনাল্ডোদের আটকানোই যে সিমিয়োনের ডিফেন্সের সামনে সবচেয়ে কঠিন চ্যালেঞ্জ হতে চলেছে তা বলাই বাহুল্য। দুহাজার এক-দুই মরসুমের পর আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতেনি রিয়াল মাদ্রিদ। তাই এক দশকের সেই খরা কাটিয়ে দশমবারর জন্য ইউরোপ সেরা হওয়ার হাতছানি রোনাল্ডোদের সামনে। অন্যদিকে রিয়ালকে টেক্কা দিয়ে প্রথমবারের জন্য চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতে ইতিহাত গড়ার সুযোগ সিমিযোনের অ্যাটলেটিকোর সামনে।