প্রকাশ্যে টেনে হিঁচড়ে মার যুবতীকে, ‘প্রেমিক’কে প্রশ্রয় পুলিসের

২১ জানুয়ারি রাতে বাড়ি ফেরার সময় হামলা হয় নিগৃহীতার ওপর। ব্যাপক মারধর করা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় চুঁচুড়া সদর হাসপাতালে আইসিসিউতে ভর্তি করাতে হয় আক্রান্তকে। 

Updated: Feb 1, 2018, 10:09 AM IST
প্রকাশ্যে টেনে হিঁচড়ে মার যুবতীকে, ‘প্রেমিক’কে প্রশ্রয় পুলিসের

নিজস্ব প্রতিবেদন: দুষ্কৃতীদের হাতে নিগৃহীত হওয়ায় যন্ত্রণা এখনও দগদগে। অভিযোগ, তারওপর সুবিচারের জায়গায় পুলিসের কাছ থেকেও জুটছে লাঞ্ছনা-বদনাম। বিচারের দাবিতে এবার মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হচ্ছেন হুগলির পোলবার ঘোষপুর গ্রামের নিগৃহীতা তরুণী।

আরও পড়ুন: মাকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা ৬ ছেলের, দেশলাই হাতে থেকে পড়ে যাওয়ায় রক্ষা!

এই ঘটনার কথা বলতে গেলে কিছুটা সময় পিছিয়ে যেতে হবে। ২১ জানুয়ারি রাতে বাড়ি ফেরার সময় হামলা হয় নিগৃহীতার ওপর। ব্যাপক মারধর করা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় চুঁচুড়া সদর হাসপাতালে আইসিসিউতে ভর্তি করাতে হয় আক্রান্তকে। দোষীদের শাস্তির দাবিতে সেইসময় প্রায় ১২ ঘণ্টা পথ অবরোধ চালান ক্ষুব্ধ স্থানীয় বাসিন্দারা। শেষপর্যন্ত গ্রেফতার করা হয় শেখ হাসেম আলি নামে এক যুবককে।

আরও পড়ুন: মায়ের কোলে গলা জড়িয়ে ঘুমের মধ্যেই মৃত্যু ছোট্ট দেবের!

পুলিসের তরফে এরপর দাবি করা হয়, ওই যুবক জেরায় স্বীকার করেছে তরুণীর সঙ্গে তাঁর প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে এবং দুজনের মধ্যে ঝামেলার জেরেই সে তাঁকে মেরেছে। পোলবা থানার ওসির এই কথাতেই আরও ক্ষিপ্ত এলাকাবাসী। নিগৃহীতার দাবি, যুবককে তিনি চেনেনই না। তাঁর অভিযোগ, পুলিস যে বক্তব্য রেখেছে তাতে তাঁর চরম সম্মানহানি হয়েছে। এবার তাই বিচারের দাবি নিয়ে শুধু জেলার এসপি-ডিএম নয়, মুখ্যমন্ত্রীর কাছেও দরবার করতে চলেছেন তাঁরা।