ব্রততী বন্দ্যোপাধ্যায়কে হেনস্থায় গ্রেফতার অভিযুক্তরা, ঘটনার বিবরণ দিলেন শিল্পী নিজে

ব্রততী জানিয়েছেন, ব্যক্তিগত গাড়িটি মেরামতির জন্য গ্যারাজে থাকায় একটি ট্রাভেল এজেন্সি থেকে ওই গাড়িটি ভাড়া নিয়েছিলেন তিনি। হামলাকারী যুবকদের দাবি, সেই গাড়ির ঋণের ২ মাসের কিস্তি বাকি ছিল। কিস্তি না মেটানোয় গাড়িটি নিজেদের হেফাজতে নিতে এসেছেন তাঁরা। 

Updated: Mar 13, 2018, 12:33 PM IST
ব্রততী বন্দ্যোপাধ্যায়কে হেনস্থায় গ্রেফতার অভিযুক্তরা, ঘটনার বিবরণ দিলেন শিল্পী নিজে

ওয়েব ডেস্ক: হুগলিতে বাচিক শিল্পী ব্রততী বন্দ্যোপাধ্যায়কে হেনস্থার ঘটনায় ৫ জনকে গ্রেফতার করল পুলিস। মঙ্গলবার একান্ত সাক্ষাত্কারে ২৪ ঘণ্টা ডট কমকে এমনটাই জানিয়েছেন শিল্পী। 

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ব্রততী এদিন বলেন, সোমবার ভাড়ার গাড়িতে কলকাতা থেকে একটি কর্মশালায় যোগ দিতে চুচুড়া যাচ্ছিলেন তিনি। পথে দীর্ঘাঙ্গী মোড়ে কাছে তাঁর গাড়ি আটকায় কয়েকজন ষণ্ডামার্কা যুবক। গাড়ি দাঁড় করিয়ে চালকে নামিয়ে গাড়ি নিয়ে চম্পট দেওয়ার চেষ্টা করে তারা। 

ব্রততী জানিয়েছেন, ব্যক্তিগত গাড়িটি মেরামতির জন্য গ্যারাজে থাকায় একটি ট্রাভেল এজেন্সি থেকে ওই গাড়িটি ভাড়া নিয়েছিলেন তিনি। হামলাকারী যুবকদের দাবি, সেই গাড়ির ঋণের ২ মাসের কিস্তি বাকি ছিল। কিস্তি না মেটানোয় গাড়িটি নিজেদের হেফাজতে নিতে এসেছে তারা। 

আরও পড়ুন - শুটিংয়ের মধ্যেই অসুস্থ হয়ে পড়লেন অমিতাভ
গোলমালের মধ্যেই নিজের পরিচয় দেন ব্রততী। তাতেও কাজ হয়নি বলে অভিযোগ। গাড়িতে ব্রততীর সঙ্গে ছিলেন তাঁর খুড়তুতো ভাই বিশ্বজিত্ বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

 
শিল্পীর দাবি, তাঁর গাড়ির চালক রাজা দাসকে টেনে হিঁচড়ে অন্য একটি গাড়িতে তোলে গুন্ডারা। অন্য এক চালক বসে পড়েন ব্রততীর গাড়িতে। সে-ই গাড়ি চালিয়ে ব্রততী ও বিশ্বজিতবাবুকে চুচুড়ায় গন্তব্যে পৌঁছে দিয়ে আসে। 

গন্তব্যে পৌঁছেই ভাই তথা সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফোন করেন ব্রততী। গাড়িটি ছিনতাই হয়ে যেতে পারে এই আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে ভদ্রেশ্বর ও শ্রীরামপুর থানাকে জানান কল্যাণবাবু। তত্পর হয় পুলিস। উদ্ধার করা হয় গাড়িটিকে। 
রাতে কর্মশালার আয়োজক সংস্থার পক্ষ থেকে গাড়ির ব্যবস্থা করে ব্রততী ও বিশ্বজিত্ বাবুকে বাড়িতে ফেরত পাঠানো হয়।  

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close