ইসলামপুরের ছাত্র আন্দোলনে মৃত বেড়ে ২, বিজেপির বনধ ঘিরে উত্তেজনা

"গুলি ছুঁড়েছে মুখে কালো কাপড় বাঁধা পুলিস।" দাবি নিহত তাপস বর্মণের মায়ের।

Updated: Sep 21, 2018, 12:20 PM IST
ইসলামপুরের ছাত্র আন্দোলনে মৃত বেড়ে ২, বিজেপির বনধ ঘিরে উত্তেজনা

নিজস্ব প্রতিবেদন : ইসলামপুরের দাঁড়িভিট হাইস্কুলে ছাত্র আন্দোলনের ঘটনায় মৃত্যু হল আরও এক প্রাক্তন ছাত্রের। মৃতের নাম তাপস বর্মণ। এদিন সকালে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। গতকাল আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাপস বর্মণকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। মৃতের বাবা দাবি করেছেন, পুলিসের গুলিতেই মৃত্যু হয়েছে তাঁর ছেলে তাপসের। তাপসের মায়ের দাবি, মুখে কালো কাপড় বাঁধা পুলিস গুলি ছুঁড়েছে। আর সেই গুলিতেই মৃত্যু হয়েছে তাঁর ছেলের। প্রসঙ্গত, উর্দু শিক্ষক নিয়োগকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে ইসলামপুরের দাঁড়িভিট হাইস্কুল। ঘটনাস্থলেই গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় রাজেশ সরকার নামে এক প্রাক্তনীর।

আরও পড়ুন, ফোনালাপে যুবকের সঙ্গে ২ মাসের প্রেম, সুইসাইড নোটে মনের কথা লিখে গেল কিশোরী

স্কুলে শিক্ষক নিয়োগকে নিয়ে বিক্ষোভের সূত্রপাত মঙ্গলবার থেকে। বৃহস্পতিবার পরিস্থিতি আয়ত্তের বাইরে যায়। এদিনও সকাল থেকে থমথমে ইসলামপুরে। অন্যদিকে, গতকালের ঘটনার প্রতিবাদে এদিন জেলাজুড়ে ২৪ ঘণ্টার বনধ ডেকেছে বিজেপি। এই বনধকে ঘিরে উত্তেজনা ছড়িয়েছে ইসলামপুর ও রায়গঞ্জে। ইসলামপুর বাস ভাঙচুর চালানো হয়। রায়গঞ্জেও একটি এনবিএসটিসির বাসে অবাধে ভাঙচুর চালানো হয় বলে অভিযোগ। অভিযোগের তির বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের দিকেই। পুলিসের সঙ্গেও ধ্বস্তাধ্বস্তি বাধে বনধ সমর্থনকারীদের। বেশ কয়েকজন বনধ সমর্থনকারীকে আটক করেছে পুলিস। পাশাপাশি, আজকে বিজেপির বনধ কর্মসূচির পর পর আগামীকাল বনধে নামছে বামেরাও। এই ঘটনার প্রতিবাদে আগামীকাল রাজ্যজুড়ে বনধের ডাক দিয়েছে ৫টি বামপন্থী সংগঠন।

আরও পড়ুন, বাইকপ্রেমীদের জন্য দুঃসংবাদ! মোটরবাইক কেনার জন্য লাইসেন্স নিয়ে নতুন করে জটিলতা

ইসলামপুরের ঘটনাকে হাল্কাভাবে নেয়নি রাজ্য শিক্ষা দফতরও। এই ঘটনায় কড়া পদক্ষেপ করেছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবারই সাসপেন্ড করা হয়েছে ডিআই রবীন্দ্র মণ্ডলকে। পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, শিক্ষা দফতরকে সম্পূর্ণ অন্ধকারে রেখেই শিক্ষক এই নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। এ ধরনের জিনিসকে কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না। এই ঘটনার পিছনে আরএসএস-এর হাত রয়েছে বলেও দাবি করেছেন তিনি।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close