পণের বলি বধূ! পলাতক স্বামী, শ্বশুর-সহ পরিবারের ৯ জন

বিয়ের পরেও  পণের  পঞ্চাশ হাজার টাকা না মেটানোয় স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামী-সহ শ্বশুরবাড়ির  বিরুদ্ধে।  

Updated: Jan 11, 2019, 06:37 PM IST
পণের বলি বধূ! পলাতক স্বামী, শ্বশুর-সহ পরিবারের ৯ জন

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিয়ের পরেও  পণের  পঞ্চাশ হাজার টাকা না মেটানোয় স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামী-সহ শ্বশুরবাড়ির  বিরুদ্ধে।  কেতুগ্রাম থানার কোজলসা গ্রামের পাহাড় পাড়ার এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। মৃত মমতা বেগমের  (২১)  মা তা তাজমিরা বিবির অভিযোগ  বিয়ের পাওনা সমস্ত মিটিয়ে দেওয়ার পরও জামাই সেলিম শেখ পঞ্চাশ হাজার টাকা বাড়ি থেকে আনার জন্য মেয়ের উপর চাপ দিচ্ছিল। সকালে টাকা আনা নিয়ে মেয়ের সঙ্গে অশান্তি শুরু হয়।  জামাই সেলিম ও তার বাবা কুদ্দুস শেখ-সহ আরও কয়েকজন মমতাকে ব্যাপক  মারধর করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে শ্বাসরোধ করে খুন করে ঘরে ঝুলিয়ে দিয়ে পালায়।

আরও পড়ুন- নাতনির বয়সী মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার ৭২ বছরের বৃদ্ধ

সেলিম শেখ বাড়ি ছাড়ার আগে শ্বশুরবাড়ি  মুর্শিদাবাদের  মারগ্রামে ফোন করে বলে তোমাদের মেয়ে অজ্ঞান হয়ে গিয়েছে দেখতে এসো। পরিবারের লোকেরা এসে দেখে তাদের  মেয়ে মৃত অবস্থায় ঝুলছে।  কেতুগ্রাম থানার পুলিসের সামনে  প্রতিবেশীরা  মৃতদেহ নামায়।  মেয়েকে খুনের অভিযোগে জামাই সেলিম শেখ, শ্বশুর কুদ্দুস শেখ-সহ ৯ জনের বিরুদ্ধে কেতুগ্রাম থানায় তাজমিরা বিবি  অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযুক্তরা সকলেই পলাতক।  পুলিস তদন্ত শুরু করেছে।

আরও পড়ুন- সরকারি স্কুলের করুণ ছবি! শিক্ষক আছে, পড়ুয়া নেই