'জিআই' দাবি মালদহের রসকদম্বের

রসকদম্বেই পরিচিতি মালদার। রসগোল্লার মতো জেলার এই মিষ্টিও স্বীকৃতি পাক, দাবি উঠছে মালদায়।

Updated: Nov 14, 2017, 08:55 PM IST
'জিআই' দাবি মালদহের রসকদম্বের

নিজস্ব প্রতিবেদন: রসকদম্বেই পরিচিতি মালদার। রসগোল্লার মতো জেলার এই মিষ্টিও স্বীকৃতি পাক, দাবি উঠছে মালদায়।

আরও পড়ুন- রসগোল্লা বাংলারই, ওড়িশাকে হারিয়ে সত্ত্ব পেল পশ্চিমবঙ্গ

সেই কবে থেকে রসকদম্বের রসে মজে গৌড়বঙ্গ। মালদার গণ্ডি ছাড়িয়ে এ মিষ্টি এখন দেশে, বিদেশেও। কদম ফুলের মতো দেখতে এই মিষ্টির ভিতরে থাকে ছোট রসগোল্লা। ওপরে ক্ষীরের প্রলেপ। গায়ে পোস্ত-চিনি-এলাচের গুঁড়ো। সুলতান হুসেন শাহের আমলে চৈতন্যদেব গৌড়ে আসেন। কেলিকদম্ব গাছের নীচে রূপ-সনাতনকে দীক্ষা দিয়েছিলেন তিনি। জনশ্রুতি, সেই কদম্ব গাছ থেকেই রসকদম্বের জন্ম। ঐতিহাসিকরা তা মানতে না চাইলেও বৈষ্ণবদের কাছে এ মিষ্টি অমৃত সমান। ফ্রিজে না রাখলেও সাত দিন টাটকা থাকে রসকদম্ব। এমন মিষ্টি সরকারি স্বীকৃতি পাক। শুধু রসগোল্লা কেন! বলছেন মালদা বাসী।

আরও পড়ুন- রসগোল্লার পর কাটোয়ার ক্ষীরের পানতুয়ার স্বীকৃতির দাবি উঠল