৮ বছর প্রেম-রেজিস্ট্রির পর বিয়ের কথা বলতেই প্রেমিকাকে খুনের চেষ্টা প্রেমিকের

বিয়ের শর্ত হিসেবে ১৫ লাখ পণের দাবি করে অভিযুক্ত প্রেমিক। রেজিস্ট্রি হয়ে গেলেও সামাজিকভাবে বিয়ে করতে কিছুতেই রাজি হচ্ছিল না প্রেমিক।

Updated: Sep 14, 2018, 07:32 PM IST
৮ বছর প্রেম-রেজিস্ট্রির পর বিয়ের কথা বলতেই প্রেমিকাকে খুনের চেষ্টা প্রেমিকের

নিজস্ব প্রতিবেদন : আট বছর ধরে প্রেম। তিন বছর আগে হয়েছে রেজিস্ট্রিও। কিন্তু বিয়ে করার কথা বলতেই স্বমূর্তি ধরে প্রেমিক। পনেরো লাখ টাকা পণের দাবি করে। এমনকি বাড়িতে ডেকে প্রেমিকাকে মারধর করে ঝুলিয়ে দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে প্রেমিকের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় কলকাতার বেসরকারি নার্সিংহোমে ভর্তি প্রেমিকা। গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্ত প্রেমিককে। ঘটনাটি ঘটেছে হুগলীর খানাকুলে।

আরও পড়ুন, সম্পত্তি হাতাতে শ্বশুর-শাশুড়িকে 'নগ্ন' করে মার পুত্রবধূর

একটা দুটো বছর নয়। আট বছরের প্রেম। খানাকুলের রঞ্জিতবাটির যুবক অমিতাভ রায় ও রাউত খানার তরূণীর প্রেমের কথা জানত দুই পরিবার। প্রেমের পাঁচ বছরের মাথায় হয় রেজিস্ট্রিও। কিন্তু তারপরেই সমস্যা। রেজিস্ট্রি হয়ে গেলেও সামাজিকভাবে বিয়ে করতে কিছুতেই রাজি হচ্ছিল না প্রেমিক। প্রেমিকা ও তাঁর পরিবার বিয়ের জন্য চাপ দিতেই স্বরূপ ধারণ করে অমিতাভ।

আরও পড়ুন, গাফিলতি পূর্ত দফতরের, পুরনো ব্রিজ ভেঙে ১ বছরে নতুন মাঝেরহাট ব্রিজ : মুখ্যমন্ত্রী

বিয়ের শর্ত হিসেবে ১৫ লাখ পণের দাবি করে অভিযুক্ত প্রেমিক। আরও অভিযোগ, বিয়ে নিয়ে কথা বলতে একদিন প্রেমিকা ও তাঁর ভাইকে বাড়িতে ডাকে অমিতাভ। তারপর সেখানেই যুবতীকে মারধরের পর গলায় ওড়নার ফাঁস দিয়ে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। ওই যুবতীর সঙ্গে থাকা ভাইয়ের চিত্কারে ছুটে আসেন প্রতিবেশীরা। তাঁরাই উদ্ধার করেন ওই দুজনকে।

আরও পড়ুন, 'সিরিয়ালে অভিনয় করতে চাই', চিঠি লিখে ঘর থেকে উধাও ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র

বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কলকাতার নার্সিংহোমে ভর্তি তরূণী। । অভিযুক্ত প্রেমিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে পরিবারের বাকি সদস্যরা পলাতক।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close