সিঙ্গুরের জমি ফেরত এক অলীক স্বপ্ন

সরকারে এলেই অনিচ্ছুক চাষী ফেরত পাবে সিঙ্গুরের ৪০০ একর। এমনই প্রতিশ্রুতি ছিল। সরকারে আসার পর অতিক্রান্ত দু`বছর। জমি ফেরত পাওয়া যায়নি। সিঙ্গুর এখন অথৈ জলে। কারোর জমি ফেরত না পেয়ে স্বপ্নভঙ্গ। কারোর আবার শিল্প না হওয়ার যন্ত্রণা। রাজ্যে রাজনৈতিক পালাবদলের তরুপের তাস কী ছিল? রাজনীতি নিয়ে যাঁর বিন্দুমাত্র মাথাব্যাথা নেই তিনিও সম্ভবত উত্তরে বলবেন সিঙ্গুর ও নন্দীগ্রাম।আর তাই, ২ বছর আগে ক্ষমতায় এসে  ক্যাবিনেটের প্রথম সিদ্ধান্তই ছিল সিঙ্গুরের অনিচ্ছুক কৃষকদের জমি ফিরিয়ে দেওয়া হবে। এখন জমি ফেরানো বিশ বাঁও জলে। হাইকোর্টে সিঙ্গুর বিল নিয়ে নাস্তানাবুদ হয়েছে সরকার। এখন মামলা সুপ্রিম কোর্টে। শিল্প হবে না কী জমি ফেরত.... সিঙ্গুরের সব আশাই মুখ থুবড়ে পড়েছে।
 

সিঙ্গুরের জমি রাজ্য সরকারের হাতেই রয়েছে: মমতা

সিঙ্গুরের অনিচ্ছুক কৃষকদের জমি ফেরতের ইস্যুতে মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণায় ফের বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে। আজ সিঙ্গুরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, "জমি রাজ্য সরকারের হাতেই রয়েছে।" মামলার নিষ্পত্তি হলেই তা কৃষকদের ফিরিয়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রশ্ন উঠেছে, যে জমি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা চলছে, সেই জমি রাজ্য সরকারের হাতে রয়েছে বলে কীভাবে দাবি করেন মুখ্যমন্ত্রী? কীভাবেই বা তিনি ধরে নিচ্ছেন মামলায় রাজ্য সরকারেরই জয় হবে?