তৃণমূলের কোটিপতি প্রার্থীদের ভিড়ে রয়েছেন প্রায় কপর্দক শূন্য ব্যতিক্রমী এক প্রার্থী

তৃণমূলের কোটিপতি প্রার্থীদের ভিড়ে রয়েছেন প্রায় কপর্দক শূন্য ব্যতিক্রমী এক প্রার্থী

নির্বাচনে প্রাথী হন যাঁরা, তাঁদের  সম্পর্কে সাধারণ ধারনা হল, তাঁদের অনেক অনেক টাকা আছে।  আর একবার যদি নির্বাচনে তিনি জিতে যান, তাহলে তো আর কথাই নেই। পরের ৫ বছরে তিনি নিশ্চয়ই নিজের সম্পত্তির পরিমাণ বেশ কয়েক গুন বাড়িয়ে নেবেন।

উত্তপ্ত ভোটের ময়দান, অশান্তির আঁচ বিভিন্ন জেলায় উত্তপ্ত ভোটের ময়দান, অশান্তির আঁচ বিভিন্ন জেলায়

আজও ভোট অশান্তি বিভিন্ন জেলায়। বাসন্তীতে সিপিএম প্রার্থী সুভাষ নস্করের মিছিলে হামলা।  ভাঙড়ে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ সিপিএম কর্মী। বারাসতে সিপিএম নেতাকে হুমকির অভিযোগ। তৃতীয় দফা ভোটের আগে চড়ছে পারদ। বাতাসে আগুনের হলকা। উত্তপ্ত ভোটের ময়দান। অশান্তির আঁচ বিভিন্ন জেলায়।

অধীর গড়ে জোটে বড় জট, কংগ্রেসের জেতা আসনেও প্রার্থী দিল বামেরা অধীর গড়ে জোটে বড় জট, কংগ্রেসের জেতা আসনেও প্রার্থী দিল বামেরা

জোট জট আরও গভীর। মুর্শিদাবাদে কংগ্রেসের জেতা আসনেও প্রার্থী দিয়ে দিল বামফ্রন্ট। কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতির দূর্গ হিসেবে পরিচিত জেলায় এমন পাঁচটি আসনে প্রার্থী দিল বামেরা, যা কংগ্রেসের জেতা আসন! সুতি, জঙ্গীপুর, রঘুনাথগঞ্জ, বড়ঞা, নওদা।  সাগরদিঘিতেও প্রার্থী দিল বামেরা। এক নজরে দেখে নিন বামেদের প্রার্থী তালিকা।

আজ রাজ্য কমিটির বৈঠকে বসছে আরএসপি আজ রাজ্য কমিটির বৈঠকে বসছে আরএসপি

বাম-কংগ্রেস জোটের আসন রফা নিয়ে আজ রাজ্য কমিটির বৈঠকে বসছে আরএসপি।  জোট নিয়ে সিপিএমের একতরফা সিদ্ধান্তের অভিযোগে  আগেই আপত্তি তুলেছে  আরএসপি। তাঁদের অভিযোগ, শরিক দলের সঙ্গে কোনওরকম আলোচনা না করেই জোট নিয়ে একতরফা সিদ্ধান্ত নিচ্ছে আলিমুদ্দিন। আজকের আলোচনায় গুরুত্ব পাবে মুর্শিদাবাদের  আসন বন্টন। গতবারের বিধানসভা নির্বাচনে  ২৩টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল আরএসপি। আরএসপি সূত্রের খবর, বাম-কংগ্রেস জোট হলে এবার তারা ৩টি আসন  ছাড়তে পারে। তিনের বেশি আসন কোনওভাবেই ছাড়তে রাজি নয় বামেদের এই শরিক দল। মুর্শিদাবাদে বেশ কয়েকটি জায়গায় আরএসপিরও সংগঠন যথেষ্ঠই মজবুত। আজকের  বৈঠকে  আসন বন্টনের বিষয়টিই সবথেকে বেশি গুরুত্ব পাবে বলে জানা গেছে। জোট ইস্যুতে আগামিকাল ফরোয়ার্ড ব্লকও বৈঠকে বসছে।

 রাজ্যে বাম-কংগ্রেস জোট হলে, কোথায়, কটি আসন ছাড়তে হতে পারে আরএসপিকে? রাজ্যে বাম-কংগ্রেস জোট হলে, কোথায়, কটি আসন ছাড়তে হতে পারে আরএসপিকে?

রাজ্যে বাম-কংগ্রেস জোট হলে, কোথায়, কটি আসন ছাড়তে হতে পারে আরএসপিকে? আজ দলের সম্পাদকমণ্ডলীর বৈঠকে মূলত এটিই আলোচনার কেন্দ্র। চলছে সমাধানসূত্রের খোঁজ। জোট-ইস্যুতে ফ্রন্টের মধ্যে সিপিএম বেশ কিছু একতরফা সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে অভিযোগ উঠছে। আগেই এনিয়ে প্রকাশ্যে ক্ষোভ প্রকাশ করেন দলের রাজ্য সম্পাদক ক্ষিতি গোস্বামী। জোট নিয়ে দলের নানা জেলার নেতা-কর্মীদের কী মনোভাব, তা স্পষ্ট করতে আজকের বৈঠক। বিশেষ করে উত্তর দিনাজপুর, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, বালুরঘাট সহ একাধিক এলাকা, যেখানে আরএসপির শক্ত ঘাঁটি রয়েছে, সেখানে কর্মীরা ঠিক কী চাইছেন তা বোঝাই বৈঠকের উদ্দেশ্য। কাল বৈঠকে বসবে আরএসপি রাজ্য কমিটি। কী সিদ্ধান্ত হয় তার ওপর ভিত্তি করে রিপোর্ট পাঠানো হবে ফ্রন্টে।

এক ঝলকে দেখুন গত বিধানসভা নির্বাচনের ফল এক ঝলকে দেখুন গত বিধানসভা নির্বাচনের ফল

রাজ্যে বিধানসভা ভোটের দামামা বেজে গেল আজ থেকেই। টাটকা ভোটের আমেজে গা ভাসানোর আগে আজ আর একবার ডুব দিন না, গত বিধানসভা নির্বাচনের ফলের স্মৃতিতে। তাহলে বুঝতে সুবিধা হবে, কী হতে চলেছে এবারের নির্বাচনে।

ফের বামেদের লালবাজার অভিযান, ২৮ জানুয়ারি ফের বামেদের লালবাজার অভিযান, ২৮ জানুয়ারি

ফের বামেদের লালবাজার অভিযান। আইনশৃঙ্খলার অবনতি, সারদা সহ অন্যান্য চিট ফান্ডে প্রতারিতদের টাকা ফেরতের দাবি সহ আরও কয়েকটি ইস্যুতে পথে নামছে বামেরা। আটাশে জানুয়ারি লালবাজার সহ,জেলার প্রশাসনিক দফতরে অভিযানের কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। গতবছরের পয়লা অক্টোবর লালবাজার বামেদের লালবাজার অভিযানে ধুন্ধুমার। পুলিসের লাঠির ঘায়ে আহত হন বেশ কয়েকজন বাম নেতা কর্মী। মাথা ফাটে দীপক দাশগুপ্তের। পরে,কলকাতা জেলা কমিটির একশ পঁয়তাল্লিশ জন নেতার বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে কলকাতা পুলিস।

আরএসপি নেতা খুনের প্রতিবাদে শনিবার বাসন্তীতে ১২ ঘণ্টার বনধ

আরএসপি নেতা খুনের ঘটনায় বাসন্তী ব্লকে শনিবার বারো ঘণ্টার বনধ ডাকল বামফ্রন্ট।  গতকাল রাতে খুন হন আরএসপি নেতা মিন্টু ইসলাম মোল্লা। বাড়ি ফেরার পথে গুলি করে খুন করা হয় তাঁকে। মৃত্যু নিশ্চিত করতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানোও হয়। বাসন্তী পঞ্চায়েত সমিতির প্রাক্তন সহ সভাপতি ছিলেন মিন্টু ইসলাম মোল্লা। বাসন্তী থানা থেকে কার্যত ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে রামচন্দ্রখালি এলাকায় তাঁকে খুন করে দুষ্কৃতীরা। ঘটনায় অভিযোগের তির উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

বিধায়ক হেনস্থার ঘটনায় সরব বাম শরিকরা

বিধানসভার মধ্যে মহিলা বাম বিধায়ক দেবলীনা হেমব্রমের নিগ্রহ ও হেনস্থার ঘটনায় সমালোচনার ঝড় উঠল রাজনৈতিক মহলে। বামফ্রন্টের তিন শরিক আরএসপি, ফরওয়ার্ড ব্লক ও সিপিআই-এই ইস্যুতে নিজেদের ক্ষোভ উগরে দিয়েছে। তাঁদের মতে, তৃণমূল কংগ্রেসের হাতে রাজ্য যে আর নিরাপদ নয়, তা মানুষ বুঝতে পারছেন। এর প্রভাব আগামী নির্বাচনে পড়বে বলে মনে করছে বাম শরিকরা।