ইকবাল - Latest News on ইকবাল| Breaking News in Bengali on 24ghanta.com
গার্ডেনরিচ কাণ্ডে অভিযুক্তের আগাম জামিন

গার্ডেনরিচ কাণ্ডে অভিযুক্তের আগাম জামিন

Last Updated: Friday, June 28, 2013, 10:48

গার্ডেনরিচ কাণ্ডের তদন্তে ফের ধাক্কা খেল সিআইডি। পুলিসকর্মী খুনের ঘটনায় অন্যতম অভিযুক্ত অনিল ইকবালের আগাম জামিন মঞ্জুর হল আদালতে। গার্ডেনরিচে কলকাতা পুলিসের স্পেশাল ব্রাঞ্চের এস আই তাপস চৌধুরীর হত্যাকাণ্ড অন্যতম অভিযুক্ত ছিলেন মহম্মদ ইকবাল ওরফে মুন্নার পুত্র অনিল। ঘটনার পর থেকে সে ফেরার ছিল। গতকাল আলিপুর আদালতে তাঁর আগাম জামিনের আবেদন জানান অনিল ইকবালের আইনজীবী।

এক `যাত্রায়` পৃথক ফল: মুন্নার জামিন, মোক্তারের খারিজ

এক `যাত্রায়` পৃথক ফল: মুন্নার জামিন, মোক্তারের খারিজ

Last Updated: Friday, May 24, 2013, 15:48

গার্ডেনরিচ কাণ্ডে ফের বিতর্কের মুখে রাজ্য সরকার। আমরা-ওরা অভিযোগ আরও একবার দারুণভাবে উঠে এল। একই ঘটনায় তৃণমূল বরো প্রধান মহম্মদ ইকবাল ওরফে মুন্না জামিন পেলেও, আজ অভিযুক্ত কংগ্রেস নেতা মোক্তারের জামিন হল না। কারণ সরকারের আইনজীবী মোক্তারের জামিনের তীব্র বিরোধিতা করেন। অথচ গতকাল মুন্নার জামিনের আবেদনের বিরোধিতা করেননি সরকারপক্ষের আইনজীবী।

গার্ডেনরিচকাণ্ডে চার্জশিট পেশ করল সিআইডি

গার্ডেনরিচকাণ্ডে চার্জশিট পেশ করল সিআইডি

Last Updated: Friday, May 03, 2013, 14:02

গার্ডেনরিচকাণ্ডে পুলিসকর্মী খুনের মামলায় চার্জশিট জমা দিল সিআইডি। মোট ৯ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দিয়েছে সিআইডির গোয়েন্দারা। পুলিসকর্মী তাপস চৌধুরীর হত্যার ঘটনায় ১৫ নম্বর বরোর চ্যায়রম্যান মহম্মদ ইকবাল ওরফে মুন্নাকে মূল অভিযুক্ত করা হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় খুনের মামলা সহ একাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছে চার্জশিটে।

মুন্নার জেল হেফাজত

মুন্নার জেল হেফাজত

Last Updated: Monday, April 29, 2013, 23:06

ফের জেল হেফাজতে গার্ডেনরিচকাণ্ডে অন্যতম অভিযুক্ত মহম্মদ ইকবাল ওরফে মুন্না। আগামী ১৩ মে পর্যন্ত মুন্নার জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন আলিপুর পুলিস কোর্টের বিচারক।

মুন্নার ১৪, কাউয়ের ৩০ দিনের জেল হেফাজত

মুন্নার ১৪, কাউয়ের ৩০ দিনের জেল হেফাজত

Last Updated: Wednesday, April 17, 2013, 17:35

গার্ডেনরিচ কাণ্ডে অন্যতম অভিযুক্ত তৃণমূল কাউন্সিলর মহম্মদ ইকবাল ওরফে মুন্নার এপ্রিল জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল আলিপুর আদালত। তেসরা এপ্রিল গার্ডেনরিচ কাণ্ডে অভিযুক্ত মহম্মদ ইকবাল অরফে মুন্নাকে ১৪ দিনের জেল হেফাজত দেয় আদালত। আগামিকাল কলকাতা পুরসভার পনেরো নম্বর বরোর চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন। সে কারণেই প্রথমে মুন্নার প্যারোলের আবেদন করা হয় আইনজীবীর তরফে।পরে অবশ্য তা প্রত্যাহার করা হয়।

জেরার সময় মুন্নার সঙ্গে থাকবেন আইনজীবী

জেরার সময় মুন্নার সঙ্গে থাকবেন আইনজীবী

Last Updated: Friday, March 15, 2013, 12:17

জেরার সময় নিজের এক আইনজীবীকে সঙ্গে রাখার অনুমতি পেলেন মহম্মদ ইকবাল ওরফে মুন্না। বৃহস্পতিবার আলিপুর সিজেএম আদালতে সওয়াল জবাবে সেই অনুমতি আদায় করে নিয়েছেন মুন্নার আইনজীবীরা। তাদের যুক্তির সামনে আদালতে কার্যত আত্মসমর্পণ করেন নবনিযুক্ত সরকারি আইনজীবী শ্যামাদাস গাঙ্গুলি। প্রশ্ন উঠছে, তবে কি জেনেবুঝেই বদল করা হয়েছে সরকারি কৌঁসুলি?

মুন্নার জামিনের বিরোধিতা, সরানো হল সরকারি আইনজীবীকে

মুন্নার জামিনের বিরোধিতা, সরানো হল সরকারি আইনজীবীকে

Last Updated: Tuesday, March 12, 2013, 23:20

গার্ডেনরিচ কাণ্ডের জেরে সরানো হল সরকারি আইনজীবীকে। গার্ডেনরিচে পুলিস খুনের ঘটনায় ধৃত মুন্ন ইকবালের জামিনের বিরোধিতা করায় সরানো হল তাঁকে। গত বৃহস্পতিবার বিহার থেকে গ্রেফতার করা হয় মুন্নাকে।

মুন্নাকে ফেরার হতে সাহায্য করেছিল পুলিসই, অভিযোগ সিআইডির

মুন্নাকে ফেরার হতে সাহায্য করেছিল পুলিসই, অভিযোগ সিআইডির

Last Updated: Friday, March 08, 2013, 16:22

গার্ডেনরিচে দুষ্কৃতীর গুলিতে নিহত এস আই হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত মহম্মদ ইকবালকে গ্রেফতারে দেরি হওয়ায়, কলকাতা পুলিসের একাংশের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ আনল সিআইডি।

ফেরার মুন্না, খালি বরো চেয়ারম্যানের পদ, বিপাকে সাধারণ মানুষ

ফেরার মুন্না, খালি বরো চেয়ারম্যানের পদ, বিপাকে সাধারণ মানুষ

Last Updated: Sunday, February 24, 2013, 14:11

গার্ডেনরিচকাণ্ডে অন্যতম অভিযুক্ত কলকাতা পুরসভার ১৫ নম্বর বরোর চেয়ারম্যান মহম্মদ ইকবাল ওরফে মুন্না  ফেরার  চোদ্দই ফেব্রুয়ারি থেকে। তেরোই ফেব্রুয়ারি বরো এলাকায় উদ্বোধন হওয়ার কথা ছিল একটি স্বাস্থ্যকেন্দ্রের। মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের উদ্বোধন করার কথা ছিল ওই হাসপাতালের। কিন্তু এসআই খুনের ঘটনার পর খোলেনি ওই হাসপাতাল। স্থানীয় মানুষের অভিযোগ, বরো চেয়ারম্যান উধাও হওয়ায় আটকে রয়েছে ওই অঞ্চলে পুরসভার কাজকর্ম। অন্য কাউকে বরো চেয়ারম্যান করার উদ্যোগও দেখাচ্ছে না পুরসভা। পরিস্থিতি নিয়ে ক্ষুব্ধ এলাকার বাসিন্দারা।