৫০ বছর রাজ্যে সিপিআইএম ফিরতে পারবে না, একুশে সমাবেশে বললেন অভিষেক

৫০ বছর রাজ্যে সিপিআইএম ফিরতে পারবে না, একুশে সমাবেশে বললেন অভিষেক

শহীদ দিবস মঞ্চ থেকে বিরোধীদের একহাত নিলেন রাজ্য যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিষেক বিরোধীদের কটাক্ষ করে জানান, 'সিপিআইএম মানুষের কথা বলে না'। 'বিরোধীরা শুধু কুত্সা করেন'। সিপ

সমাবেশ স্থলের ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে আজ চলবে একুশে জুলাই মামলার শুনানি

আজ কলকাতা হাইকোর্টে একুশে জুলাই মামলার শুনানি। তিন পুলিস অফিসার একুশে জুলাই কমিশনে সাক্ষ্য দিতে আসবেন কিনা তার রায় হতে পারে আজ। সবপক্ষের নথি দেখে বিচারপতি চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন। ১৯৯৩ সালে একুশে জুলাই পুলিসের গুলিতে তেরজনের মৃত্যু হয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে ২০১২ সালে তদন্ত কমিশন কাজ শুরু করে। সেখানেই সাক্ষ্য দিতে যাওয়ার কথা থাকলেও এই তিন পুলিস অফিসার সাক্ষ্য দিতে চাননি। ফলে একুশে জুলাই চলে এলেও মামলার নিষ্পত্তি না হওয়ায় একুশে জুলাইয়ের তদন্ত রিপোর্ট জমা দেওয়া সম্ভব হয়নি কমিশনের পক্ষে।

একুশে জুলাই প্রসঙ্গে ফিরহাদের নিশানায় বুদ্ধদেব

ফের নিশানায় বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। মদন মিত্রের সুরেই একুশে জুলাই যুব কংগ্রেসের মহাকরণ অভিযানের মিছিলে গুলি চালনার জন্য বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকেই দায়ী করলেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। মদন মিত্র কমিশনকে জানিয়েছিলেন, দাবি ভুল প্রমাণিত হলে তিনি পদত্যাগ করবেন, তবে এদিন সেরকম চড়া সুর অবশ্য শোনা যায়নি ফিরহাদ হাকিমের গলায়।

একুশে জুলাইয়ের ভিডিও পেশ হবে কমিশনে

একুশে জুলাই কমিশনে ফের চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ্যে এল। ঘটনার দিন, অর্থাত্‍ ১৯৯৩ সালের ২১ জুলাই যুব কংগ্রেস কর্মীদের বিক্ষোভের ভিডিও ফটোগ্রাফি করেছিল কলকাতা পুলিস। সেই ভিডিওটি তত্‍কালীন পুলিস কমিশনারের কাছে জমাও পড়েছিল। সেই ভিডিও ফুটেজটি পাওয়ার জন্য বর্তমান পুলিস কমিশনারকে ডেকে পাঠানো হবে কমিশনে।

গুলির নির্দেশ ছিল না পুলিস কমিশনারের, নতুন তথ্য ২১ জুলাই কমিশনের

একুশে জুলাই কমিশনের শুনানিতে উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য। কোনও অবস্থাতেই চালানো যাবে না গুলি। এমনই নির্দেশ দিয়েছিলেন তত্কালীন পুলিস কমিশনার তুষার তালুকদার। যদিও, পুলিস রেকর্ড থেকে জানা গিয়েছে সেদিন পুলিস কমিশনারের নির্দেশ এসেছিল ওয়্যারলেসের মাধ্যমে।