জয় দিয়ে আইলিগ অভিযান শুরু করল ইস্টবেঙ্গল

জয় দিয়ে আইলিগ অভিযান শুরু করল ইস্টবেঙ্গল

জয় দিয়ে আইলিগ অভিযান শুরু করল ইস্টবেঙ্গল। অ্যাওয়ে ম্যাচে স্পোর্টিং ক্লুব দ্য গোয়াকে তিন-এক গোলে হারিয়ে দিল বিশ্বজিত্ ভট্টাচার্যের গোল। জোড়া গোল করে ম্যাচের নায়ক র‍্যান্টি মার্টিন্স। একটি গোল করেন বিকাশ জাইরু। স্পোর্টিংয়ের হয়ে গোল করেন ওডাফা। অন্যদিকে, সোনির কলকাতায় আসা আরও পিছল। ফলে সালগাঁওকর ম্যাচেও অনিশ্চিত সোনি নর্দি।  হাইতিয়ান তারকার কলকাতায় পৌছতে বুধবার অথবা বৃহস্পতিবার হয়ে যেতে পারে।  আই লিগের নিয়মানুয়ায়ী ম্যাচের আটচল্লিশ ঘণ্টা আগে রেজিস্ট্রেশন করাতে হয়। অনুশীলনে না দেখে মোহনবাগান কোচ কারও নামে রেজিস্ট্রশন করাতে নারাজ। ফলে বড়ম্যাচেই হয়ত মোহনবাগান জার্সিতে প্রথমবার খেলতে দেখা যাতে পারে সোনিকে।

বাগান ছেড়ে ওডাফা সই করলেন পুরনো ক্লাব চার্চিলে

কথা আগেই চূড়ান্ত হয়ে গেছিল। রবিবার চার্চিলের চুক্তিপত্রে সই করে ফেললেন ওকেলি ওডাফা। নাইজেরীয় গোলমেশিনের সঙ্গে তিন বছরের চুক্তি হয়েছে গোয়ার এই ক্লাবটির। তবে মোহনবাগানের থেকে অনেক কম টাকায় চার্চিলে খেলতে হচ্ছে ওকেলি ওডাফাকে। এমনকি শোনা যাচ্ছে প্রথম বছরে এক কোটি টাকার কম টাকার কমে খেলবেন তিনি। চার্চিল ছেড়েই মোহনবাগানে যোগ দিয়েছিলেন ওডাফা।

ওডাফা-রন্টি সমান সমান, করিম এখনও ছন্দের খোঁজে

ঘরোয়া লিগে ইউনাইটেড স্পোর্টসের কাছে আটকে গেল মোহনবাগান। ওডাফা আর র‍্যান্টির দ্বৈরথ শেষ হল গোলশূন্যভাবে। মরসুমের প্রথম ডার্বির মহড়া হিসাবেই ইউনাইটেড ম্যাচকে দেখেছিলেন মোহনবাগান কোচ করিম। তাই ওডাফাকে শুরু থেকেই খেলান তিনি।

ব্যারোটকে হারিয়েও ওডাফা অস্বস্তি থেকেই গেল মোহনবাগানের

ভবানীপুরের বিরুদ্ধে ২-০ গোলে জিতল মোহনবাগান। প্রথমার্ধের একেবারে শেষমূহুর্তে পেনাল্টি থেকে করা ডেনসন দেবদাসের গোলে এগিয়ে যায় মোহনবাগান। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে মোহনবাগানের হয়ে ব্যবধান বাড়ান শঙ্কর ওঁরাও।

ওডাফার পঞ্চবানে শেষ চারে বাগান

ওডাফা ঝড়ে উড়ে গেল বাইচুংয়ের ক্লাব সিকিম ইউনাইটেড। একাই পাঁচ গোল করলেন মোহনবাগান অধিনায়ক। ৫-১ গোলে জিতে শিল্ড সেমিফাইনালে মোহনবাগান।

ওডাফার হ্যাটট্রিক, টোলগের জোড়া গোল

দুজনের যুগলবন্দিটা নিয়ে আলোচনা কম হয়নি। কিন্তু একজনের চোটের জন্য জুটিটা সেভাবে জমেইনি। ওডাফা-টোলগে জুটিকে নিয়ে যে স্বপ্নটা মরসুমের আগে দেখা শুরু করেছিল বাগান সমর্থকরা, সেই যুগলবন্দিরটা অন্তত একটা সোনালি স্বপ্নের দিন উপহার দিল। মঙ্গলবার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে ওডাফা-টোলগে জুটির দারুণ একটা উত্সব হয়ে গেল। যে উত্‍সবে ঘরোয়া লিগে সুপার নাইনের ম্যাচে ৫-০ গোলে সাদার্ন সমিতিকে উড়িয়ে দিল মোহনবাগান। ওডাফা হ্যাটট্রিক করলেন, আর টোলগে জোড়া গোল করলেন।

ভয়ে অনুশীলনে ছুটি ওডাফাদের, মন উড়ু উড়ু ফুটবলারদের

বর্ষবরণের ছুটি নাকি সমর্থকদের ভয়? নির্বাসিত মোহনবাগানের অনুশীলন থেকে আগামি সোম ও মঙ্গলবার ছুটি দেওয়া হল ফুটবলারদের। কারণ অবশ্য এখনও কিছুই জানানো হয়নি। বিশেষ সূত্রের খবর,অবশ্য সমর্থকদের বিক্ষোভের ভয়েই নাকি এই সিদ্ধান্ত। নির্বাসনের পর দুদিন ধরে মোহনবাগান সমর্থকরা ক্লাবতাঁবুতে এসে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। এমনকি ক্লাবের সচিব ও অর্থসচিবও রেহাই পাননি এই বিক্ষোভ থেকে।

বাগানে ব্যারেটো নেই, তবু যেন আছেন!

আইলিগের কক্ষপথ থেকে অনেকদূরে তিনি। কিন্তু না থেকেও যেন আছেন দারুণভাবে। ফেডকাপ ও আইলিগের প্রথম ম্যাচে ব্যর্থতার পর সমর্থকদের মধ্যে শোনা গিয়েছিল একটা গুঞ্জন। স্ট্যানলির জায়গায় ব্যারেটো থাকলেই ভাল হত! বৃহস্পতিবার যুবভারতীতে ওডাফারা মাঠ ছাড়ার পর অনুশীলন করতে ঢোকে ভবানীপুর। ব্যারেটোকে দেখেই স্টেডিয়াম ছাড়ার আগে দেখা করে যান ওডাফা।

হার দিয়ে শুরু বাগানের, কাশ্যপকে নিয়ে প্রশ্ন

আই লিগের শুরুটা মোহনবাগানের হল দুঃস্বপ্ন দিয়ে। ফেড কাপের ব্যর্থতা আই লিগেও বয়ে বেড়াতে শুরু করলেন ওডাফা-টোলগেরা। শনিবার আই লিগের প্রথম ম্যাচে শিলংয়ে লাজং এফসি`র বিরুদ্ধে মোহনবাগান হারল ০-২ গোলে।

শিলংয়ে বৃষ্টির মাঝেই অনুশীলন টোলগেদের

শনিবার আই লিগ অভিযান শুরু মোহনবাগানের। প্রথম ম্যাচে বাগানের প্রতিপক্ষ শিলং লাজং এফসি। শিলংয়ে এখন দিনভর বৃষ্টি চলছে। বিকেলে বৃষ্টির মধ্যে ফিল্ডটার্ফে মোড়া প্র্যাকটিস মাঠে অনুশীলন সারলেন টোলগেরা। এদিন অনুশীলনে অবশ্য টোলগে-ওডাফা জুটিকে খোশমেজাজেই দেখা গেল অনুশীলন সারতে। দামি এই ফুটবল জুটির মধ্যে যে প্রচন্ড ঝামেলা, তা দেখে বোঝার উপায় ছিল না এদিনের অনুশীলনে।

বাগানে ডামাডোলের মাঝেই টোলগে-ওডাফার `মিলন`

আই লিগের প্রথম ম্যাচের জন্য একসঙ্গে প্রস্তুতি সারলেন টোলগে-ওডাফা।সেদিনই আবার মোহনবাগান অনুশীলনে আসা বন্ধ করে দিলেন সহকারি কোচ বার্নার্ড।কয়েকদিন আগেই পদত্যাগ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন তিনি।

মোহনবাগান সংসারে ফাটল; টোলগে-ওডফা দ্বৈরথ শুরু

টোলগে-ওডাফার সম্পর্কে চিড়। মোহনবাগানে শুরু হয়ে গেল দুই মহা তারকার ইগোর লড়াই। ফেডারেশন কাপ

চলাকালীন টোলগে আর ওডাফার মধ্যে ঝামেলার কথা স্বীকার করে নিলেন স্বয়ং কোচ সন্তোষ কাশ্যপ।