চার বছরের শিশুর আজীবন কারাবাসের শাস্তি!

চার বছরের শিশুর আজীবন কারাবাসের শাস্তি!

মানুষ মাত্রই ভুল হয়। আবার সে ভুলের শাস্তিও হয়। কিন্তু শাস্তিটাই যদি হয় একটা মারাত্মক ভুল? তাহলে কী হবে? শাস্তি ভুল হলে, তার শাস্তি কে দেবে! কী শাস্তিই বা দেওয়া হবে। যত অবাকই লাগুক, এমনটাই ঘটেছে মিশরে। চার বছরের এক শিশুকে আজীবন কারাবাসের শাস্তি দিল মিশরের এক আদালত। তার বিরুদ্ধে অভিযোগও মারাত্মক। খুন, খুনের চেষ্টা, লুঠ, দাঙ্গা। আদালতের নথি অনুযায়ী এইসব অপারাধ সে করেছে দু'বছর আগে অর্থাৎ যখন তার বয়স ছিল মাত্র দু'বছর। কিন্তু একটা দু'বছরের শিশু কি করে এরকম মারাত্মক অপরাধ করতে পারে?

সেলেব বাস থেকে কারাবাস

এঁরা দেশের সেলেব্রিটি। কিন্তু নিয়তির ফেরে ২০১৩ জেলের পিছনে। ২০১৩ এরা সবাই এখন জেলের ঘানি টানছেন, অথবা টেনেছেন। বিভিন্ন কারণে আদালত এঁদের দোষী সাব্যস্ত করায় এদের হাজতবাস হয়। তাদের দেখুন এক নজরে।

বিধানসভায় হাতাহাতি: কী বলছে দণ্ডবিধি

বিধানসভার ভিতরে যা হয়েছে, তাতে পুলিস বা প্রশাসনের কিছু করণীয় নেই। এমনটাই নিয়ম। কিন্তু বিধানসভার বাইরে এমন ঘটনা ঘটলে গ্রেফতার বা হাজতবাস শুধু নয়, জেলও খাটার সম্ভাবনা ছিল। ভারতীয় দণ্ডবিধিই সেকথা বলছে। বিধায়ক হলেও রেহাই মিলত না। বিধানসভার মধ্যে তুমুল উত্তেজনা, মারধর, এমনকী আক্রান্ত হলেন মহিলা বিধায়কও। কিন্তু আইন ও নিয়ম অনুসারে পুলিস-প্রশাসনের কিছুই করার নেই। কিন্তু বাইরে হলেই বদলে যেত চিত্রটা। যে নজিরবিহীন ঘটনা ঘটেছে, তাতে গ্রেফতার হওয়ার সম্ভাবনা ছিল বেশ কয়েকজন বিধায়কেরও।