হাড়োয়া থেকে গ্রফতার বাংলাদেশের দাউদ সুব্রত বায়েন

ভারতে যেমন দাউদ ইব্রাহীম, তেমনই বাংলাদেশের সুব্রত বায়েন। ভারতে বসেই বাংলাদেশের আন্ডার ওয়ার্ল্ডকে নিয়ন্ত্রণ করত সে। ১৯৮৬ সালে আলম মার্ডার কেসের মধ্যেদিয়ে তাঁর অন্ধকার জগতে প্রবেশ। ডজনখানেক খুনে হাত পাকিয়েছিল সুব্রত ওরফে শুভ্র বায়েন। যার মধ্যে বেশকিছু রানৈতিক খুনও তাঁর মস্তিষ্কপ্রসুত বলে পুলিসের মত। ২০০৪ সালে অগাস্ট মাসে ঢাকায় আওয়ামি লিগের সভায় গ্রেনেড হামলার পেছনেও ছিল তাঁর হাত। ঢাকায় অন্ধকার জগতের কুখ্যাত গ্যাং `সেভেন স্টারে`র মাস্টারমাইন ছিলেন এই সুব্রত বায়েন। বাংলাদেশের রাজধানীতে এমন কোনও ব্যবসায়ী নেই যিনি বায়েন ভাইয়ের হুমকি অগ্রাহ্য করতে পেরছেন। খুন, তোলাবাজি, সরকারি টেন্ডার পাইয়ে কাটমানি, বাংলাদেশের এস কোম্পানির জাল ছড়িয়েপরে মধ্যপ্রাচ্য এমনকী চিনেও।