এরপর তো গণধর্ষণের শাস্তি হিসেবে লজেন্স-বিস্কুট জরিমানা হবে!

এরপর তো গণধর্ষণের শাস্তি হিসেবে লজেন্স-বিস্কুট জরিমানা হবে!

কালে কালে আমাদের সমাজটায় আর কী হবে! ধর্ষণ বেড়েই চলেছে বিশ্বজুড়ে। কমার তো কোনও লক্ষণ নেই-ই। পাশাপাশি ধর্ষকদের যেভাবে ছাড় দেওয়া হচ্ছে, তাতে আগামিদিনে যে ধর্ষণ আরও বেড়ে যাবে এ পৃথিবীতে, সে খেয়াল বোধহয় কেউই রাখছে না।

গণধর্ষণের হাত থেকে বাঁচতে তিনতলা থেকে ঝাঁপ তরুনীর গণধর্ষণের হাত থেকে বাঁচতে তিনতলা থেকে ঝাঁপ তরুনীর

গণধর্ষণের হাত থেকে বাঁচতে তিনতলা থেকে ঝাঁপ দিলেন এক তরুণী। গতকাল রাতে হাওড়ার লিলুয়ার ঘটনা।

দক্ষিণ দিনাজপুরে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বাড়িতে আটকে রেখে গণধর্ষণ দক্ষিণ দিনাজপুরে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বাড়িতে আটকে রেখে গণধর্ষণ

দক্ষিণ দিনাজপুরে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে বাড়িতে আটকে রেখে গণধর্ষণ। চক্রান্তের অভিযোগ নির্যাতিতার বান্ধবীর মায়ের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, সাতশ টাকা বিনিময়ে মদ্যপ চার যুবকের হাতে নির্যাতিতাকে তুলে দেয় বান্ধবীর মা। গ্রেফতার করা হয়েছে  ওই মহিলা ও চার যুবককে। মেয়ের বান্ধবী। খুবই পরিচিত। অভিযোগ, মাত্র সাতশ টাকার জন্য তাকেই চার মদ্যপ যুবকের ফুর্তির জন্য তুলে দেয় বান্ধবীর মা। বালুরঘাট থানায় এমনই অভিযোগ জানিয়েছে নির্যাতিতার পরিবার।  অভিযুক্ত  চার যুবক ও নির্যাতিতার বন্ধবীর মাকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। ঘটনা সাতই জানুযারির। বাড়িতে মেয়ে ফিরছে না। পাড়ায় খোঁজাখুঁজিতে না মেলায় থানায় খবর দেয় নির্যাতিতার পরিবার। আটই জানুয়ারি সকালে বালুরঘাটের শান্তিময় ঘোষ কলোনি থেকে বেহুঁশ অবস্থায় নবম শ্রেণির কিশোরীকে  উদ্ধার করে  পুলিস।

'বাধা দিলেই ফেলে দেওয়া হবে', এই হুমকি দিয়েই ধর্ষণ করে জওয়ানরা 'বাধা দিলেই ফেলে দেওয়া হবে', এই হুমকি দিয়েই ধর্ষণ করে জওয়ানরা

বাধা দিলে ট্রেন থেকে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া হবে। এই হুমকি দিয়েই বার বার তাকে ধর্ষণ করে সেনা জওয়ানরা। পুলিসের কাছে চাঞ্চল্যকর বয়ান হাওড়া-অমৃতসর এক্সপ্রেসের নির্যাতিতার।  আজ আদালতে গোপন জবানবন্দি দেয় নিগৃহীতা। অন্যদিকে, ধর্ষণের দুদিন পরও অধরা দুই অভিযুক্ত।

অমৃতসর এক্সপ্রেসে কিশোরীকে গণধর্ষণ- অভিযুক্তর ৪দিনের পুলিস হেফাজত, এখনও অধরা অভিযুক্ত দুই জওয়ান অমৃতসর এক্সপ্রেসে কিশোরীকে গণধর্ষণ- অভিযুক্তর ৪দিনের পুলিস হেফাজত, এখনও অধরা অভিযুক্ত দুই জওয়ান

হাওড়া-অমৃতসর এক্সপ্রেসে কিশোরীকে গণধর্ষণে অভিযুক্ত মঞ্জরীশ ত্রিপাঠির ৪দিনের পুলিস হেফাজতের নির্দেশ। কিন্তু, এখনও অধরা অভিযুক্ত আরও দুই জওয়ান।  সেনাবগিতে করা ভিডিওগ্রাফি থেকে ওই দুজনকে চিহ্নিত করেছে নির্যাতিতা। আজ সকালে নির্যাতিতা ও ধর্ষণে অভিযুক্ত মঞ্জরীশ ত্রিপাঠিকে মধুপুর থেকে  হাওড়া GRP-তে নিয়ে আসা হয়।  হাওড়া GRP আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করেন অভিযুক্ত সেনা জওয়ানদের বেশকয়েকজন সহকর্মী।

আড়াই বছরের প্রতীক্ষা শেষ, ২৮ জানুয়ারি কামদুনি গণধর্ষণ মামলার রায় আড়াই বছরের প্রতীক্ষা শেষ, ২৮ জানুয়ারি কামদুনি গণধর্ষণ মামলার রায়

আড়াই বছরের প্রতীক্ষা শেষ। ২৮ জানুয়ারি কামদুনি গণধর্ষণ মামলার রায়। ওইদিন দুপুর দুটোয় রায় ঘোষণা করবেন বিচারক সঞ্চিতা সরকার। দোষী প্রমাণিত হলে অভিযুক্তদের সর্বোচ্চ শাস্তি চাইবে সরকারপক্ষ।

 পড়াশোনায় সাহায্য চেয়েছিল, পরিবর্তে ছাত্রীকে গণধর্ষণ করল তারই চার বন্ধু পড়াশোনায় সাহায্য চেয়েছিল, পরিবর্তে ছাত্রীকে গণধর্ষণ করল তারই চার বন্ধু

পড়াশোনায় সাহায্য করার জন্য বন্ধুদের বাড়িতে ডেকেছিল এক কিশোরী। ১৫ বছরের ওই কিশোরীর বাড়িতে এসেছিল তারই চার বন্ধু। যারা সবাই একইসঙ্গে স্কুলে পড়ে, পাড়ায় থাকে। কিন্তু বাড়িতে সেই সময় কেউ ছিল না। তার কারণ, ওই কিশোরীর বাবা আগেই মারা গিয়েছেন। মা বিদেশে চাকরি করেন। তাই সে থাকে ঠাকুমা, পিসি এবং বোনের সঙ্গে। কিন্তু সেই দিন কেউ বাড়িতে ছিলেন না।

স্ত্রী সঙ্গে নিয়ে দেশ ছাড়লেন গণধর্ষণে অভিযুক্ত সৌদি কূটনীতিক  স্ত্রী সঙ্গে নিয়ে দেশ ছাড়লেন গণধর্ষণে অভিযুক্ত সৌদি কূটনীতিক

স্ত্রীকে নিয়ে দেশ ছাড়লেন ধর্ষণে অভিযুক্ত সৌদি কূটনীতিক, সংবাদ সংস্থার খবর। তবে এখনও পর্যন্ত পুলিসের তরফ থেকে কোনও বিবৃতি পাওয়া যায়নি। দুই নেপালি মহিলাকে আটকে রেখে গণধর্ষণ ও নির্মম অত্যাচার করার অভিযোগ ওঠে সৌদি কূটনীতিকের বিরুদ্ধে।

সৌদি কূটনীতিকের বিরুদ্ধে গণধর্ষণ ও ভয়াবহ শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ মা, মেয়ের সৌদি কূটনীতিকের বিরুদ্ধে গণধর্ষণ ও ভয়াবহ শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ মা, মেয়ের

সৌদি আরব দূতাবাসের কূটনীতিকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুললেন নেপালের এক মহিলা। ২০ বছরের ওই মহিলা তার ৪৪ বছরের মা দিল্লিতে ওই কূটনীতিকের বাড়িতে কাজ করতেন বলে জানা গিয়েছে। মহিলার অভিযোগ তাকে ও তার মাকে টানা ৪ মাস ধরে ধর্ষণ করে ওই কূটনীতিক। শুধু তাই নয়, কূটনীতিকের স্ত্রী ও তার মেয়ের বিরুদ্ধে তাদের ওপর মানসিক ও শারীরিক অত্যাচারেরও অভিযোগ তুলেছেন ওই মহিলা।

কাজের টোপ দিয়ে জয়পুরে হোটেলে ১১ জন মিলে গণধর্ষণ কিশোরীকে কাজের টোপ দিয়ে জয়পুরে হোটেলে ১১ জন মিলে গণধর্ষণ কিশোরীকে

কাজ পাইযে দেওয়ার নাম করে হোটেলে গণধর্ষণ করা হল দিল্লির ১৭ বছরের এক কিশোরীকে। ওই কিশোরী পুলিসকে জানিয়েছে জয়পুরের এক হোটেলে তাকে টানা ২৪ ঘণ্টা ধরে ১১ জন ধর্ষণ করে।

ধর্ষণে অভিযোগ জানাতে গিয়ে ফের পুলিসের অভব্য আচরণের শিকার প্রৌঢ়া ধর্ষণে অভিযোগ জানাতে গিয়ে ফের পুলিসের অভব্য আচরণের শিকার প্রৌঢ়া

গণধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করতে গিয়ে পুলিস অফিসারের অভব্য ব্যবহারের শিকার নির্যাতিতা। খাস কলকাতার অজয়নগরের ঘটনা। পরে উচ্চপদস্থ অফিসারদের নির্দেশে গণধর্ষণের অভিযোগ দায়ের হয়। কর্তব্যে গাফিলতির অভিযোগে সর

গণধর্ষণের ঘটনা চেপে যেতে নির্যাতিতাকেই চাপ পুলিসের গণধর্ষণের ঘটনা চেপে যেতে নির্যাতিতাকেই চাপ পুলিসের

গণধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে নির্যাতিতাকেই চাপ দিল পুলিস। পাশে দাঁড়ানো দূরের কথা, আসল ঘটনা চেপে গিয়ে নির্যাতিতাকে মারধরের অভিযোগ দায়ের করতে চাপ দিল নলহাটি থানার পুলিস। এমনকী,  সাদা

বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেই ছাত্রীকে গণধর্ষণের চেষ্টা হরিয়ানায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেই ছাত্রীকে গণধর্ষণের চেষ্টা হরিয়ানায়

বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের মধ্যেই ছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল হরিয়ানার সোনিপতে। ওপি জিন্দল গ্লোবাল ইউনিভার্সিটির তিন ছাত্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন বিশ্ববিদ্যালয়েরই এক ছাত্রী।  পুলিস এক অভিযুক

নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ বাবা, জ্যাঠা,দাদার বিরুদ্ধে নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ বাবা, জ্যাঠা,দাদার বিরুদ্ধে

নবম শ্রেণির ছাত্রীকে লাগাতার গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল তার বাবা, জ্যাঠা এবং দাদার বিরুদ্ধে। জলপাইগুড়ির ধূপগুড়ির কালিরহাটের বাসিন্দা ওই ছাত্রী অবশেষে শুক্রবার মুখ খুলেছে তার স্কুলের শিক্ষিকাদের কাছে। থানায় অভিযোগ দায়েরের পরই গ্রেফতার করা হয়েছে ওই ছাত্রীর জ্যাঠাকে। বাকিরা পলাতক।  

আতঙ্ক রেখেই স্বাভাবিক জীবন যাপনের পথে  গাঙনাপুর আতঙ্ক রেখেই স্বাভাবিক জীবন যাপনের পথে গাঙনাপুর

ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরছে গাঙনাপুরের কনভেন্ট অব জিসাস অ্যান্ড মেরি স্কুল। আজ ক্লাস ওয়ান থেকে নাইনের বার্ষিক পরীক্ষার ফল বেরোল।  ছেলেমেয়েদের সঙ্গে নিয়ে আজ  স্কুলে যান অনেক অভিভাবক। সকলেই গণধর্ষণকাণ্ডে দোষীদের শাস্তির দাবিতে সরব হন।

সিস্টারকে ধর্ষণকাণ্ডে এবার জেরার মুখে গাঙনাপুর থানার পুলিসকর্মীরা সিস্টারকে ধর্ষণকাণ্ডে এবার জেরার মুখে গাঙনাপুর থানার পুলিসকর্মীরা

কনভেন্টের নিরাপত্তারক্ষীর বয়ান অনুসারে, রাতে তিনি হুইসল বাজিয়েছিলেন। সেই শব্দ কেন পুলিসকর্মীদের কানে পৌছল না?