আধার কার্ড থেকে চিট ফান্ড: সুপ্রিম কোর্টের জোড়া নোটিস পেল কেন্দ্র

চিট ফান্ডের রমরমা আটকাতে কী ব্যবস্থা নেওয়া উচিত? কীভাবে এগুলিকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়, তারই পথ খুঁজতে এবার কেন্দ্রীয় সরকার, আরবিআই, সেবিকে নোটিস পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট। ব্যাঙ্কগুলিতে অ্যাকাউন্ট খোলার প্রক্রিয়া আরও সহজ-সরল করা জরুরি। তাহলে বহু সাধারণ মানুষ চিটফান্ডের খপ্পর থেকে রক্ষা পাবেন।

পুজোর আগেই সারদার ১২ লক্ষ আমানতকারীর টাকা ফেরতের প্রতিশ্রুতি মমতার

পুজোর আগেই সারদার আমানতকারীদের টাকা ফেরতের চেষ্টা করছে সরকার। বৃহস্পতিবার অণ্ডালে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু, মাসখানেকেরও কম সময়ে কী করে প্রায় ১২ লক্ষ আমানতকারীর টাকা ফেরত সম্ভব তানিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

এবার জেরার মুখে সারদার ডিরেক্টর দেবিকা

চিটফান্ড কাণ্ডে সারদাকর্তাকে জেরায় প্রতিদিনই উঠে আসছে নতুন নতুন তথ্য। মঙ্গলবারও বিধাননগর কমিশনারেট অফিসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় সংস্থার আরেক ডিরেক্টর দেবিকা দাশগুপ্তকে। জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে সুদীপ্ত সেনের চিঠিতে নাম থাকা সজ্জন আগরওয়াল এবং ইস্টবেঙ্গল কর্তা দেবব্রত সরকারকে। জেরা করা হয়েছে সারদার কর্নধার সুদীপ্ত সেন এবং দেবযানী মুখোপাধ্যায়কেও।

চিট ফান্ড ব্যবসায় মুখ্যমন্ত্রীর সততা নিয়ে প্রশ্ন গৌতম দেবের

রাজ্যের বৃহত্তম আর্থিক কেলেঙ্কারি নিয়ে সরগরম চারপাশ। সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন সারদার এজেন্ট আর আমানতকারীরা। কিন্তু আজ মুখ্যমন্ত্রীর সততা নিয়েই প্রশ্ন তুললেন সিপিআইএম নেতা গৌতম দেব।

সল্টলেক থেকে জাল বিছিয়েছিলেন সুদীপ্ত

সল্টলেক থেকেই রাজ্যের প্রত্যন্ত এলাকাতেও প্রতারণার জাল ছড়িয়ে দিয়েছিলেন সুদীপ্ত সেন। তদন্তে নেমে এমন তথ্যই এসেছে পুলিসের হাতে। শুধুমাত্র সল্টলেক এলাকাতেই তাঁর সাতটি সম্পত্তির হদিস পাওয়া গিয়েছে। এরমধ্যে কোনওটিতে গভীর রাত পর্যন্ত চলত বৈঠক, কোথাও রাখা হত গুরুত্বপূর্ণ নথি। নির্দিষ্ট কয়েকজন পদাধিকারীর সই করা এন্ট্রি পাস নিয়েই মিলত ভেতরে ঢোকার অনুমতি ।

দেবযানীকে ফাঁসানো হয়েছে, দাবি পরিবারের

দেবযানীর পরিবার দাবি করছে দেবযানীকে ফাঁসানো হয়েছে। যদিও আত্মীয় এবং প্রতিবেশীদের অনেকেই স্বল্প সময়ে দেবযানীর এই আর্থিক শ্রীবৃদ্ধিতে রীতিমতো আশঙ্কিত হয়েছিলেন। ফলে স্বভাবতই প্রশ্ন উঠছে, আত্মীয়-প্রতিবেশীদের কাছে যা বিস্ময়, তা কী করে চোখ এড়িয়ে গেল পরিবারের?

রিলিফ ফান্ডের ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

সারদা কেলেঙ্কারির দায় এড়াতে গরীব মানুষদের জন্য ৫০০ কোটি টাকার রিলিফ ফান্ডের ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। বুধবার সন্ধেবেলা মহাকরণে সাংবাদিক সম্মলনে করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, গরীব মানুষদের জন্য ৫০০ কোটি টাকার রিলিফ ফান্ডের পাশাপাশি তামাক জাতীয় দ্রব্যের ওপর ১০ শতাংশ কর বসিয়ে ক্ষতিপূরণের চেষ্টা করবে সরকার।

সুদীপ্ত সেনদের বাঁচাতেই অর্ডিন্যান্স আনছে সরকার, অভিযোগ বামেদের

দোষীকে বাঁচাতেই এই পরিস্থিতিতে চিট ফান্ড নিয়ে অর্ডিন্যান্স আনতে চাইছে রাজ্য সরকার। চিট ফান্ড কেলেঙ্কারি নিয়ে সরকারি উদ্যোগ প্রসঙ্গে আজ এই অভিযোগ করলেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু। সারদার দুর্নীতিতে যখন রাজ্যের বহু মানুষ সর্বশান্ত তখন চিট ফান্ডের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সরকারকে চাপ দেয় বামফ্রন্ট। আজ বিমান বসু বলেন, ``সুর্যকান্ত মিশ্রের নেতৃত্বে দিল্লিতে ডেপুটেশন দেবে বামেরা।`` সারদার চিট ফান্ড কাণ্ড নিয়ে কোনও ধোঁয়াশা রাখা চলবে না বলেও দাবি তুলেছেন ফ্রন্ট চেয়ারম্যান।

চিট ফান্ড রুখতে মহকরণে জরুরী বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী

চিট ফান্ড নিয়ে সমস্যার মোকাবিলায় ব্যবস্থা নিতে আজ মহাকরণে বৈঠকে বসছেন মুখ্যমন্ত্রী। মহাকরণ সূত্রে খবর, রাজ্য সরকার চাইছে চিটফান্ডের সমস্যা নিয়ে দ্রুত একটি কমিশন গঠন করতে। এছাড়াও সরকার যাতে চিটফান্ডের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে পারে সেই অধিকার পাওয়ার জন্য একটি অর্ডিন্যান্স আনার কথাও ভাবা হচ্ছে। এই বিষয়গুলি নিয়েই মূলত আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে আজকের বৈঠকে। বৈঠকে থাকার কথা রয়েছে মুখ্যসচিব, অর্থসচিব ও স্বরাষ্ট্রসচিবের।

পুলিসের হেফজতে সারদার ডিরেক্টর

সারদা গোষ্ঠীর অন্যতম ডিরেক্টর মনোজ নাগেলের পাঁচদিনের পুলিসি হেফাজতের নির্দেশ দিল বিধাননগর আদালত। তাঁর বিরুদ্ধে প্রতারণা ও প্রতিশ্রুতিভঙ্গের অভিযোগে মামলা রুজু করা হয়েছে। যদিও মনোজ নাগেলের দাবি, যে সংস্থার কর্মীদের দায়ের করা এফআইআরের ভিত্তিতে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে, সেই সংস্থার সঙ্গে তিনি যুক্তই নন।

কলকাতা ভুয়ো আর্থিক সংস্থার আখরা হয়ে উঠেছে: দিগ্বিজয় সিং

সারদার মতো চিটফান্ডগুলির বিরুদ্ধে আন্দোলন ছড়িয়ে দিতে এবার পথে নামল কংগ্রেস। আজ দক্ষিণ কলকাতার ভবানীপুরে পথ অবরোধ করেন কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরা। মিছিলও করেন তারা। সুদীপ্ত সেনের মতো ভুঁইভোড় আর্থিক সংস্থাগুলির কর্ণধারদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে কংগ্রেস। একই সঙ্গে গোটা ঘটনায় সিবিআই তদন্তেরও দাবি জানানো হয়েছে।