দস্যি হস্তিশাবকদের বাগে আনতে গানই অস্ত্র সাঙ্গডুয়েনের!

দস্যি হস্তিশাবকদের বাগে আনতে গানই অস্ত্র সাঙ্গডুয়েনের!

সাঙ্গডুয়েনের লুলাবাই না শুনলে ঘুমই আসতে চায়না থাইল্যান্ডের চিয়াঙ্গমাইয়ের এলিফ্যান্ট নেচার পার্কের হস্তি শাবকদের। তবে শুরুতে বিষয়টা খুব একটা সহজ ছিল না। তাতে উত্সাহ  হারাননি তিনি। দস্যি হস্তিশাবকদের বাগে আনতে এখন গানই অস্ত্র সাঙ্গডুয়েনের। এভাবেই সন্তানস্নেহে হাতিদের ঘুম পাড়ান সাঙ্গডুয়েন চ্যাইলআর্ট।

সিংহের খাঁচায় ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা যুবকের (ভিডিও) সিংহের খাঁচায় ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা যুবকের (ভিডিও)

এক উন্মত্ত যুবকের পাগলামোর ফলে প্রাণ দিতে হল দুটি সিংহকে। ঘটনাটি ঘটেছে সান্টিয়াগো চিড়িয়াখানায়। এক উন্মত্ত যুবক হঠাত্‌ই নগ্ন হয়ে সিংহের খাঁচায় ঝাঁপ দেন। খাঁচায় দুটি সিংহ ছিল। ঝাঁপ দেওয়া মাত্র যুবকের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে সিংহদুটি। সিংহের আক্রমণে মারাত্মক জখম হয় ওই যুবক। তাঁকে অত্যন্ত আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর সিংহদুটিকে গুলি করে মেরে ফেলা হয়।

 পাঁচ বছরের ছেলে চিড়িয়াখানায় গোরিলার খাঁচায় পড়ে গেল! পাঁচ বছরের ছেলে চিড়িয়াখানায় গোরিলার খাঁচায় পড়ে গেল!

একটি পাঁচ বছরের ছেলে বাবা-মায়ের হাত ধরে গিয়েছিলো চিড়িয়াখানায়। বেশ খানিকক্ষণ ধরে অনেক পশু-পাখি দেখেছে সে। এরপর ছেলেটি আসে গোরিলার ঘেরা জায়গার সামনে। সেখানে উপর থেকে ঝুঁকে নিচে তাকিয়ে গোরিলা দেখছিল সবাই। পাঁচ বছেরের ছেলটি আর নিজের ভারসাম্য ঠিক রাখতে পারেনি। তাই পড়ে গিয়েছিল গোরিলার খাঁচার মধ্যে। তারপর একটা বিশাল গোরিলা আর একটা খুদে গোরিলার মধ্যে থেকেও বেঁচে ফিরল ছেলেটি! না, গোরিলাটি ছেলেটাকে উল্টেপাল্টে দেখলো বটে। তবে, তাকে বিন্দুমাত্র আক্রমণ করেনি। ছেলেকে এরপরেও বুকে পেয়ে খুব খুশি তার বাবা-মাও। সত্যিই তো। এ যে নতুন জীবন। সেটাও কিনা দান করল এক গোরিলা!

শীতের সকালে চিড়িয়াখানায় পোলিও শিবির

বহু প্রতীক্ষার পর এসেছে শীত। কলকাতায় সে অল্প কয়েকদিনের অতিথি। তাই শীতের কটা দিন আনন্দে গা ভাসাতে সারা বছর ধরে তৈরি কলকাতা। রবিবার শীতের সকালে চিড়িয়াখানায় উপচে পড়া ভিড়। শীতের মিঠে রোদ গায়ে মেখে রবিবার সকালে বাবা-মায়ের হাত ধরে কচিকাঁচার দল হাজির চিড়িয়াখানায়।