একশো কোটির শিবিরে এবার সন অফ সর্দার

দিওয়ালির সঙ্গে বলিউডের সম্পর্কটা সত্যিই গভীর। তা প্রমাণ হয়ে গেল আবারও। দিওয়ালিতে ছবি মুক্তি পেলে লক্ষ্মী আসবেই। সে যতই যশরাজ ফিল্মস ঘাড়ের ওপর নিশ্বাস ফেলুক না কেন। শেষপর্যন্ত দিওয়ালিতে আস্থা রেখে

যশজি, কুর্নিশ!

ইংরেজিতে swan song বলে যে কথাটা আছে, যার মানে মৃত্যুর বা রিটায়ারমেন্টের আগে করে যাওয়া শেয কাজ, অধুনা ভারতীয় ছবিতে তার একটি উত্তুঙ্গ নিদর্শন এই ছবি। ঠিক কতখানি ক্রিটিকের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে লেখা যায় তা

একশো কোটির ক্যাম্পে জব তক হ্যায় জান

ছবি মুক্তির আগে কিছুটা শঙ্কা থাকলেও ইতিহাস বলছিল দিওয়ালি শাহরুখেরই। তাই এবারেও ব্যতিক্রম হল না। কিছুটা দুরুদরু বুকে হলেও ১০০ কোটির ক্যাম্পে ঢুকে গেল `জব তক হ্যায় জান`। দিওয়ালির দিন মুক্তি পেয়েছে

তিন খানের অজিব শাম...

জব তক হ্যায় জান/ কভি তো হোঙ্গে একসাথ তিন খান...২০০৮ সালের পর থেকে টানা ৪ বছর মুখ দেখাদেখি বন্ধ ছিল প্রায়। যে কোনও অনুষ্ঠানেই এড়িয়ে গেছেন দুজন দুজনকে। অবশেষে সেই বিভেদ মুছে দিল দিওয়ালির সন্ধে। `জব তক

রিয়েল থেকে রিল লাইফের তরজায় সোনাক্ষি-অনুষ্কা

বহুদিন ধরেই মুখ দেখাদেখি বন্ধ দুই কন্যের। ইন্ডাস্ট্রিতে এখনও পাঁচ বছরও না কাটলেও ইতিমধ্যেই নিজেদের জোরালো ফ্যান ক্লাবও তৈরি করে ফেলেছেন দুজনেই। তবে এবার বোধহয় সত্যিই পর্দায় এসপার-ওসপার করে নেওয়ার