শর্ট স্ট্রিটে জমিযুদ্ধ, গুরুত্বপূর্ণ নথি ২৪ ঘণ্টার হাতে, ২০১০ থেকে জমি নিয়ে তদন্ত শুরু করে কলকাতা পুলিস

৯ এ শর্ট স্ট্রিট। যত দিন যাচ্ছে, ততই সামনে আসছে জমি দখলকে কেন্দ্র করে নানা চাঞ্চল্যকর তথ্য। ওই জমির যে দলিল বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিস, তা এসেছে ২৪ ঘণ্টার হাতে। ওই দলিলের ভিত্তিতেই পুলিস পরাগ মজমুদার এবং রাজেশ দামানিকে গ্রেফতার করেছে। সঞ্জয় সুরেখাকে জমি বিক্রি করেছিল এরাই। দলিল থেকে জানা যাচ্ছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। এই দলিলকে হাতিয়ার করেই তদন্ত করছে গোয়েন্দা পুলিস। কীভাবে জমির হাতবদল হয়, তাতেও মিলছে নিত্যনতুন অনেক তথ্য। মুম্বইয়ের হার্টলাইন সংস্থার আদতে কোনও অস্তিত্ব নেই। এই সব কটি সংস্থাই পরাগ মজমুদার বেনামে চালাতেন বলে খবর।